আজ রবিবার,২৪শে জুন, ২০১৮ ইং,১০ই আষাঢ়, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সময়: রাত ১২:০৭
  • বাগমারায় অনিয়ম দুর্নীতির অভিযোগে বিদ্যালয়ে তালা ঝুলিয়েছে ছাত্র অভিভাবকেরা
  • বরগুনায় স্ত্রীকে কু-প্রস্তাবের প্রতিবাদ করায় প্রবাসী স্বামীকে কুপিয়ে জখম,আদালতে মামলা 
  • ঈদে দেখা নয়
  • পটুয়াখালীতে টেলিভিশন জার্নালিষ্ট ফোরামের কমিটি গঠন
  • টাঙ্গাইলের গোপালপুরে মিথ্যা মামলায় হয়রানির শিকার সাংবাদিক সোহেল রানা!
  • চিরিরবন্দরে হারিয়ে যাচ্ছে গ্রামবাংলার ঐতিহ্যবাহী খেলাধুলা
  • জয়পুরহাটে আন্তর্জাতিক পাবলিক সার্ভিস দিবস উদযাপন

‘আমার স্বামী যখন নিজেই আমাকে ধর্ষণ করে তাহলে অন্য পুরুষদের জন্য আমার দেহ ফ্রি’

আমি এখন কলকাতা থেকে বলছি। আমার নাম নুসরাত ফারিয়া। আমার বাড়ি বাংলাদেশের নোয়াখালীর কনো এক জেলায়।

আমি দুই বছর আগে ঢাকায় চাকরির জন্য আসি। আর সেখানেই আমার সঙ্গে রাজিব নামের এক পশুর পরিচয় হয়। আমি কথন জানতাম না সে কত ভয়ংকর মানুষ। কতো নোংরা মানুষ।

এবার মুল কথায় আসি, আমাকে প্রথম দেখায় রাজিব আমাকে একটা চাকরী দেওয়ার নাম করে তার পরিচিত এক খালার বাসায় তিন মাস রাখে। তার পরে আস্তে আস্তে আমাদের ভালোবাসা হয়। একে অপরকে ভালোসাতে শুরু করি।

এইভাবে ছয় মাস যাওয়ার পরে আমাকে বিয়ে করবে বলে কয়ের বার আমাদের শারীরিক সম্পর্ক হয়। কিন্তু আমি জানতাম না রাজিব আমাদের এই শারীরিক সম্পর্কের সব তথ্য ভিডিও করে রেখেছে।

এক বছর পরে রাজিব আমাকে বিয়ে করেছে কিন্তু সেটা আসল বিয়ে ছিল না সেটা নকল বিয়ে ছিল। আমি সেটা পরে জানতে পারলাম। আর যখন জানতে পারলাম তখন অনেক দেরি হয়ে গেছে। জানার পরে আমাদের মধ্যে শারীরিক সম্পর্ক হত না।

পাঠকরা বলতেই পারেন, আমাকে সে জোর করে ধর্ষণ করে। আমি তাকে কয়েক বার বলেছিম আমার স্বামী যখন নিজেই আমাকে ধর্ষণ করে তাহলে অন্য পুরুষদের জন্য আমার দেহ ফ্রি । শুধু ভাবতাম কবে যে আমি রাজিবের কাছ থেকে মুক্তি পাবোআসলে তখন আমার কিছুই করার ছিল না। কারণ আমি রাজিবকে কিছু বললেই সে আমাকে ভয় দেখাতো। আমার সেক্স ভিডিও ইন্টারনেটে ছেড়ে দিবে। আমি আমার এই সেক্স ভিডিও নিয়ে খুব চিন্তিত থাকতাম ।

কারণ আমি তখন আমার মানসম্মাকে খুব ভয় পেতাম। আমার ভাই-বোনরা সবাই ইন্টারনেট ব্যবহার করে। এখন আমি কিছুই আর ভয় পাইনা। আমি এখন রাজিবের কাছ থেকে মুক্ত।

ধর্ষণ
রাজিব আমার ও তার সেক্স ভিডিও ইন্টারনেটে ছেড়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে আমাকে দিয়ে দেহব্যবসা করিয়েছে এক বছর। যদিও আমি এই দেহব্যবসায় রাজি ছিলাম না।

আমাকে জোর করে এই ব্যবসায় নামিয়েছে রাজিব। আমি কেউকে কিছু বলতে পারি নি। আমার শুধু একটাই ভয় ছিল। আমার ভিডিও যদি ইন্টারনেটে চলে যাই তখন আমার কি হবে। সর্বশেষ রাজিব আমাকে ভারতে যৌনপল্লিতে পাচার করে দেয়।

আমি এখন সেখান থেকে পালিয়ে কলকাতায় আছি ভালো একটা চাকরিও করছি। মোটামুটি খুব ভালোই আছি। আমার জন্য সবাই দোয়া করবেন।

আমার এই লেখার উদ্দেশ্য একটাই আমার মত কেউ এই ভুল যেন না করে। রাজিবের সঙ্গে আমার সম্পর্কই একটা ভুল ছিল। আমি চাই না আমার মত কেউ এই ভুল করে। সবইকে অনেক অনেক ধ্যনবাদ।


samakalnews24.com এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

বিশেষ প্রতিবেদন বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ