আজ শুক্রবার,১৯শে অক্টোবর, ২০১৮ ইং,৪ঠা কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সময়: সকাল ৬:৪৬
  • এবার তাহেরপুরে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের দুর্গাপূজার উৎপত্তিস্থলে মানুষের ঢল
  • কঠোর নিরাপত্তার মধ্যদিয়ে টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে ২৩৭ মন্ডপে শারদীয়া দূর্গা পূজার উৎসব।
  • বিনা চিকিৎসায় মৃত্যুর প্রহর গুনছেন সাবেক ধর্ম প্রতিমন্ত্রী
  • গোদাগাড়ীতে মাচায় তরমুজ চাষ,পাওয়া যাচ্ছে বারমাস
  • উদ্ধার হওয়া সালামের সাথে দেখা করলেন আ’লীগের নেতৃবৃন্দ
  • জিজ্ঞাসাবাদের সময় মারা যান খাশোগি
  • প্রকাশ্যে পিস্তল হাতে এমপিপুত্রের কাণ্ড!

এডিবির চাঞ্চল্যকর তথ্য: অবকাঠামো খাতে বিনিয়োগের ঘাটতি উদ্বেগজনক হারে বাড়ছে

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশের অবকাঠামো খাতে বিনিয়োগের ঘাটতি পূরণ হচ্ছে না। এ খাতে বাংলাদেশের বিনিয়োগের হার এশিয়ার অন্যান্য দেশের তুলনায় প্রায় তলানিতে। শিক্ষা ও স্বাস্থ্যের মতো গুরুত্বপূর্ণ সামাজিক অবকাঠামো খাতেও পর্যাপ্ত বিনিয়োগ হচ্ছে না বাংলাদেশে। এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকের (এডিবি) সর্বশেষ প্রতিবেদনে এসব তথ্য উঠে এসেছে। এশিয়ার দেশগুলোয় অবকাঠামো খাতে বিনিয়োগের ঘাটতি উদ্বেগজনক হারে বাড়ছে বলে দাবি করা হয়েছে প্রতিবেদনটিতে।

এডিবি বলছে, গত অর্থবছরে (২০১৭-১৮) অভ্যন্তরীণ সঞ্চয় মোট দেশজ উৎপাদনের (জিডিপি) ২৩ দশমিক ৬১ শতাংশে উন্নীত হলেও বাংলাদেশে বিনিয়োগ হয়েছে জিডিপির ৩১ দশমিক ৪৭ শতাংশ। ৫ লাখ ২৮ হাজার ৫৬৯ কোটি টাকা সঞ্চয়ের বিপরীতে এক বছরে বিনিয়োগ হয়েছে ৭ লাখ ৪ হাজার ৩৯৬ কোটি টাকা। ১ লাখ ৭৫ হাজার ৮২৭ কোটি টাকা বেশি জোগান সত্ত্বেও

এশিয়ার অবকাঠামো খাতে অর্থায়ন ঘাটতি শীর্ষক প্রতিবেদনটি সম্প্রতি এডিবির সদর দফতর ফিলিপাইনের ম্যানিলা থেকে প্রকাশ করা হয়। এতে বলা হয়, অর্থনৈতিক উন্নতির সঙ্গে এশিয়ার দেশগুলোয় অবকাঠামো খাতে বিনিয়োগের চাহিদা বাড়ছে। এ খাতে বিনিয়োগের পরিমাণ সামান্য বাড়লেও থেকে যাচ্ছে বড় অঙ্কের ঘাটতি। এ অঞ্চলের দেশগুলোর উন্নতি ধরে রাখতে প্রতিবছর আরো ৪৫ হাজার ৯০০ কোটি ডলার বাড়তি বিনিয়োগ করতে হবে অবকাঠামো খাতে। এ হিসাবে অবকাঠামো খাতে বিনিয়োগের ঘাটতি দাঁড়াচ্ছে এসব দেশের মোট অভ্যন্তরীণ উৎপাদনের ২ দশমিক ৪০ শতাংশে। স্বাস্থ্য, শিক্ষা ও সামাজিক খাত হিসাবে আনলে অবকাঠামো বিনিয়োগে ঘাটতি দাঁড়ায় ৯০ হাজার ৭০০ কোটি ডলারে।

প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী, এশিয়ার উন্নয়নশীল ২৫টি দেশ প্রতিবছর গড়ে ৮৮ হাজার ১০০ কোটি ডলার বিনিয়োগ করে অবকাঠামো খাতে। এ খাতে মোট ১ লাখ ৩৪ হাজার কোটি ডলার বিনিয়োগের চাহিদা রয়েছে। এ হিসাবে বছরে ঘাটতি থাকছে ৪৫ হাজার ৯০০ কোটি ডলার, যা এসব দেশের জিডিপির ২ দশমিক ৪০ শতাংশ। অবশ্য হিসাব থেকে চীনকে বাদ দিলে অবশিষ্ট ২৪ দেশে অবকাঠামো খাতে বিনিয়োগের ঘাটতি জিডিপির ৫ শতাংশে উন্নীত হয়েছে বলে উঠে এসেছে প্রতিবেদনে। এতে বলা হয়েছে, ২৪ দেশ প্রতিবছর ১৯ হাজার ৫০০ কোটি ডলার বিনিয়োগ করে থাকে। এ সব দেশের অবকাঠামো খাতে বছরে ৫০ হাজার ৩০০ কোটি ডলার বিনিয়োগ প্রয়োজন। এ হিসাবে বছরে অবকাঠামো বিনিয়োগে ঘাটতি থাকছে ৩০ হাজার ৮০০ কোটি ডলার। এসব দেশ অবকাঠামো খাতে প্রয়োজনের মাত্র সাড়ে ৩৮ শতাংশ অর্থ বিনিয়োগ করতে পারছে। আর ঘাটতি থাকছে অবশিষ্ট সাড়ে ৬১ শতাংশ।

অবকাঠামো অর্থায়নে মৌলিক সমস্যার সমাধানে দ্রুত উদ্যোগ নেওয়া না হলে এ খাতে অর্থায়নের ঘাটতি এশিয়ায় আরো বেড়ে যাবে বলে আশঙ্কা করছে এডিবি। এর ফলে অবকাঠামো ঘাটতিও প্রতিনিয়ত বেড়ে যাবে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। এ লক্ষ্যে অবকাঠামো খাতে বিনিয়োগ প্রকল্পের পাইপলাইন সমৃদ্ধ করা, বিদ্যমান অবকাঠামোর বিভিন্ন ঝুঁকি কমিয়ে আনা, বিনিয়োগে প্রাতিষ্ঠানিক বাধা দূর করা, অবকাঠামো খাতে বিনিয়োগকে মূলধন হিসেবে বিবেচনা করা ও দক্ষ পূঁজিবাজার গড়ে তোলায় গুরুত্ব আরোপ করেছে এডিবি।

এতে আরেও বলা হয়েছে, বিশ্বের যেকোনো অঞ্চলের চেয়ে এশিয়ার দেশগুলোর সঞ্চয় হার বর্তমানে অনেক বেশি। ২০১৫ সালে এশিয়ার এক-তৃতীয়াংশ দেশেই সঞ্চয়ের হার ছিল ৩০ শতাংশের ওপর। ওই বছর চীনে সঞ্চয় হয়েছে জিডিপির ৪৫ শতাংশ। এক বছরে দেশটিতে সঞ্চয় হয়েছে ৫ লাখ কোটি ডলার। ২০১৬ সালে এশিয়ার দেশগুলো নিজ এলাকার বাইরে ৬ লাখ ২০ হাজার কোটি ডলার বিনিয়োগ করেছে। এ সময় এশিয়ায় অন্যান্য এলাকা থেকে এসেছে ৪ লাখ ৪০ হাজার কোটি ডলারের বিনিয়োগ।


Leave a Reply

samakalnews24.com এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

অর্থনীতি-ব্যবসা বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ