আজ বৃহস্পতিবার,১৯শে এপ্রিল, ২০১৮ ইং,৬ই বৈশাখ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সময়: বিকাল ৩:৫৮
  • বিশ হাজার টাকার জন্য যুবক হত্যা, পালাতক অারিফ
  • বরিশালে কৃষিবিদ ইকবালের পেটে সরকারি মাছ
  • লোকবল সংকটে উপজেলা সাস্থ্যকমপ্লেক্স
  • বরগুনায় ফারিয়া এর নির্বাচন মহসীন খান সভাপতি সাহাবুদ্দিন আহম্মেদ সম্পাদক ও সগির সাংগঠনিক
  • হাতীবান্ধায় ফেন্সিডিলসহ আটক-১
  • শেরপুরে সিএনজি ও ট্রলি সংঘর্ষে নিহত-১, আহত-৪
  • ফুলবাড়ীতে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অপরাধে উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি বরখাস্ত

চাকরিতে প্রবেশের বয়স ৩৫ না হলে আমরণ অনশন

চাকুরীর বয়স ৩৫

চাকুরীর বয়স ৩৫

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা ৩৫ করার দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে উচ্চশিক্ষিত বেকার ছাত্র-ছাত্রীরা। বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র পরিষদ (বাসাছাপ) নামের সংগঠনের ব্যানারে এই কর্মসূচি পালিত হচ্ছে। শিগগিরই তারা আমরণ অনশন কর্মসূচি শুরু করবেন বলে জানিয়েছে।

বাসাছাপের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হোসেন জানান, ২০১২ সালের ৩১ শে জানুয়ারী মাননীয় রাষ্ট্রপতি জনাব আব্দুল হামিদ খান স্পীকার থাকাকালীন ৭১ বিধিতে প্রথম জাতীয় সংসদে ৩৫ নিয়ে আলোচনা করেন। তারপর নবম জাতীয় সংসদের প্রথম অধিবেশনে সাংসদ পিনু খান ৩৫ এর প্রস্তাব রাখেন। তারপরে ধারাবাহিকভাবে মুজিবুল হক চুন্নু, শাহরিয়ার আলম, নুরুল ইসলাম নাহিদ, রাশেদ খান মেনন ও রওশন এরশাদ এককভাবে ৩ বার অত্যন্ত অনুরোধের স্বরে মহান জাতীয় সংসদে প্রধানমন্ত্রী বরাবর এই প্রস্তাব তুলে ধরেন। পাশাপাশি আরও অসংখ্য মন্ত্রী, এমপিরাও ধাপে ধাপে এই পর্যন্ত প্রায় ৫০ থেকে ৬০ বার এর প্রস্তাব রাখেন। এছাড়াও “পয়েন্ট অব অর্ডার” –এ ৪ বার এই ৩৫ এর পক্ষে জোরালো প্রস্তাব রাখা হয়।

ইতিহাস পর্যালোচনা করলে দেখা যায়, স্বাধীন বাংলাদেশের ইতিহাসে কোন একটা নির্দিষ্ট বিষয় বা দাবীর পক্ষে জাতীয় সংসদে এতবার কোন প্রস্তাব তোলা হয়নি। সর্বোচ্চ ২/৩ বার কোন বিষয় উত্তাপিত হলে তার সমাধান হয়ে যায়। কিন্তু ৩৫ এর ক্ষেত্রে আজ পর্যন্ত কেন এত বড় অবহেলা?

গত ১০ জানুয়ারি থেকে তারা জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে অবস্থান করছেন। ইতোমধ্যে অসংখ্য ছাত্র-ছাত্রী সেখানে উপস্থিত হয়েছে। আগামী দুই-একদিনের মধ্যে দাবি মানা না হলে, তারা আমরণ অনশনে যাওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছে।

এ কর্মসূচি সফল করার জন্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচার-প্রচারণা চালাচ্ছে এ দাবি আদায়ে উদ্যোগী বাসাছাপের সদস্যরা।

এ বিষয়ে বাসাছাপের সাধারণ সম্পাদক এমএ আলী বলেন, সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়স ৩৫ করার দাবিতে বুধবার সকাল ১১টা থেকে প্রেসক্লাবের সামনে অনির্দিষ্টকালের জন্য অবস্থান ও অনশন কর্মসূচি পালন করতে যাচ্ছি।

চাকরিতে প্রবেশের বয়স ৩৫ করার দাবির কারণ হিসেবে তিনি বলেন, ‘সরকারের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে- বাংলাদেশে কোনো সেশন জট নেই। অথচ এটাই বাস্তব যে, আমরা ৩-৪ বছর সেশনজট পার করে এসেছি। তাই সরকার আমাদের এ যৌক্তিক দাবি মেনে নেবে বলে আমরা আশা করি।’

সংগঠনের সভাপতি মো. ইমতিয়াজ হোসেন জানান, অবস্থান কর্মসূচিতে অংশ নেওয়ার জন্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের বিভিন্ন গ্রুপ, পেজের মাধ্যমে সারা দেশের চাকরির বয়স ৩৫ প্রত্যাশী ছাত্র-ছাত্রীকে পোস্ট করে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল।

তিনি জানান, দেশের প্রতিটি জেলা থেকে তরুণ-তরুণীরা ঢাকায় আসতে শুরু করেছে। ১২ জানুয়ারি বিভিন্ন নিয়োগ পরীক্ষা থাকায় অনেকের আসতে একটু দেরি হচ্ছে। তিনি আরো বলেন, আমাদের এই দাবি নিয়ে দীর্ঘ ৬ বছর ধরে আমরা আন্দোলন করে আসছি। আমরা এখনো আশানুরূপ ফল পাইনি। দুই একদিনের মধ্যে আমাদের দাবি না মানলে কাফনের কাপড় মাথায় বেঁধে আমার আমরণ অনশনে যাবো।

‘হয় দাবি আদায় করে ঘরে ফিরবো, না হয় এখানেই মরবো। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত তাদের এই কর্মসূচি চলবে’-বলেন মো. ইমতিয়াজ হোসেন। তিনি এ ব্যাপারে সরকারের সুদৃষ্টি কামনা করছেন।


samakalnews24.com এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

চাকুরীর খবর,জাতীয় বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ