আজ সোমবার,২৩শে এপ্রিল, ২০১৮ ইং,১০ই বৈশাখ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, সময়: বিকাল ৩:০৭
  • “টিম অন্বেষণ উদ্যোগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার শীর্ষক ক্যাম্পেইন “
  • ঠাকুরগাঁওয়ের প্রয়াত যুবলীগ নেতার কন্যার দায়িত্ব নিলেন আর ডি আর এস সংস্থা
  • জাতীয় সংসদ নির্বাচন কে সামনে রেখে লিফটনের পথেই হাটছেন বাশার!
  • গোয়াইনঘাটে চাচাতো ভাইয়ের হাতে ভাই খুন
  • কুয়েতে হৃদরোগে প্রাণ গেলো ১ বাংলাদেশী শ্রমিকের মৃত্যু
  • কলাপাড়ায় কৃষক লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন
  • বরিশাল লাকুটিয়া বীজ খামারে ইকবালের অর্ধকোটি টাকার দূর্নীতি ফাঁস-৩বছরে ৩০লক্ষ টাকা সরকারী সম্পদ লুট

পুলিশ বনাম সাংবাদিক, কেনো আজ আমরা এতো লাঞ্ছিত?

পুলিশ বনাম সাংবাদিক, কেনো আজ আমরা এতো লাঞ্ছিত?

পুলিশ বনাম সাংবাদিক, কেনো আজ আমরা এতো লাঞ্ছিত?

এইচ কে শরীফ সালেহীনঃ জাতির বিবেক বলা হয় সাংবাদিক কে আর এই জাতির বিবেকের উপর দিন দিন যেমন অত্যাচার বাড়ছে তেমনই সাংবাদিক পেশাটাও আজ কাল হাস্যকর হয়ে গেছে। দেশ প্রেমিক হলো সাংবাদিক,কলম সৈনিক সাংবাদিক, পুলিশের সাথে অস্ত্র থাকে লাইসেন্স করা তাই যখন তখন যে কাউকেই হেনস্থ করতে তাদের বিবেকেও বাধা দেয়না।পুলিশ, সারাদিন সারারাত জনগনকে পাহারা দিয়ে থাকে।

দেশের সকল প্রকার কাজে পুলিশ সব সময় সজাগ, দেশের মানুষ যখন চরম সুখে রাতে নিদ্রা যায় তখন আমাদের পুলিশ বাহিনীর সদস্যরা রাত জেগে পাহারা দেয় আপনাকে আমাকে। তারা নিজেদের সুখ কে বাদ দিয়ে পাহারায় ব্যস্ত থাকেন যেনো দেশের মানুষ আরামে ঘুমাতে পারে, অথচ পুলিশের এই কষ্ট কেউ চোখে দেখেনা। ঈদের সময় দেশের সকল মানুষ যখন আনন্দে আত্যহারা হয়ে আনন্দ ভাগাভাগি করে তখন ও পুলিশ পাহারায় থাকে জনগনকে। পুলিশের কি আনন্দ আয়েশ বলতে কিছুই নাই? পুলিশ, সাংবাদিক ভাই ভাই, এই কথা সবাই যানি। আজ আমরা কেনো ভাইয়ের হাতে ভাই নির্যাতিত হবো? আমরা ও তো কেউ লেখা পড়া ছাড়া নয়, শিক্ষিত ভাই হয়ে কেনো আমরা মারামারি করবো? পুলিশ কেনো সাংবাদিকের গায়ে হাত দিবে? কই পাইলো সাংবাদিকের গায়ে হাত দেওয়ার অধিকার?সাংবাদিক আমরা, আমরা সব সময় সকল জায়গায় গিয়ে নিউজ কাভারেজ করে সারা বিশ্বকে জনিয়ে দেওয়াই আমাদের মূল কাজ। আর আমাদের এই কাজের লাইসেন্স দিয়েছে দেশের সংবিধান।

কিছু অসাধু পুলিশ ও কিছু অসাধু সাংবাদিকের কারনে পুলিশ ও সাংবাদিক আমরা উভয়েই আজ এই সমাজে লাঞ্ছিত।পুলিশ কে দেখলে সাধারণ মানুষ মনে করে আসছে ঘুষখোর, সাংবাদিক দেখলে কেউ কেউ মনে করে আসছে চাঁদাবাজ।

কেনো আজ আমরা এমন লাঞ্ছিত? কেনো আমরা পুলিশ সাংবাদিক সমাজে আজ এতো ঘৃনিত? যে পুলিশ সাংবাদিকদের উপর অত্যাচার করেন, মনে রাখবেন আপনার মত একজন পুলিশ অফিসারের চাকরীটা ক্ষেতে মাত্র ১০ মিনিট কলম চালালেই আপনার আপনার চাকরী গাছের আগায় উঠে যাবে। আর আপনি পুলিশ সব চেয়ে বেশি করতে পারলে এরেস্ট করে চালান করতে পারবেন এর থেকে বেশি কিছু না। সুতরাং আসুন আমরা ভাই হয়ে ভাইয়ের সহযোগীতা করি।ভুলে যান আপনাদের আর আমাদের সকল প্রকার ভেদাভেদ, আর না হলে আমরা সাংবাদিকরা যদি কলম চালানো বন্ধ করে দেই আপনার পুলিশের পাওয়ার কই যাবে একবার ও কি ভেবে দেখেছেন? কয়েকজন অসাধু অফিসারের কারনে আজ লাঞ্ছিত পুলিশ ডিপার্টমেন্ট, আর কয়েকটা বেক্কল সাংবাদিকের জন্য আজ লাঞ্ছিত সাংবাদিক জাতি, তাই সকলেই এক জোট হয়ে দেশের জন্য এগিয়ে আসেন, আমরা প্রমাণ করবো পুলিশ আর সাংবাদিক না থাকলে দেশের মেরুদণ্ড ও থাকেনা। আর যে দেশের মেরুদণ্ড নাই সে দেশের ও কোন দাম নাই, আসুন আমরা সবাই মিলে মিশে কাজ করি আর সবাইকে বুঝিয়ে দেই আমরা পুলিশ সাংবাদিক ভাই ভাই।


samakalnews24.com এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

বিশেষ প্রতিবেদন বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ