১৭ই জুন, ২০১৯ ইং ৩রা আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
সকলে ঐক্যবদ্ধভাবে সংগ্রাম করে গনতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করতে... বিদ্যালয়েে দেহব্যবসা চালাচ্ছেন দপ্তরি-নৈশপ্রহরী, শুনে... আমতলী উপজেলা পরিষদের উদ্যোগে বিদায়ী ও নবাগত নির্বাহী... রাজাপুরে ওয়ারেন্ডভুক্ত আসামী গ্রেফতার বগুড়ায় অবৈধভাবে বালু উত্তোলন নিয়ে সংঘর্ষ একজনকে...

অতিরিক্ত মদ্যপানে রাবির দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যু

 জান্নাতুল ফেরদৌ, রাবি : সমকাল নিউজ ২৪

অতিরিক্ত মদ্যপানে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। এরমধ্যে রোববার (০৭ মার্চ) ভোর ৫টার দিকে একজন ও সকাল ৮টার দিকে অন্যজন মারা যান। এছাড়া অসুস্থ হয়ে রকি নামের রাজশাহী প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (রুয়েট) আরেক শিক্ষার্থী রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতলের ১৭ নম্বর ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

মারা যাওয়া শিক্ষার্থীরা হলেন- বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের ছাত্র মুহতাসিম রাফি খান। তিনি খুলনার দৌলতপুর থানার কবির আলম খানের ছেলে। আরেক জন অর্থনীতি বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র তুর্য রায়। তিনি নীলফামারি জেলার ডোমার ছোট রাউতরা গ্রামের পুনেন্দ্র রায়ের ছেলে। অন্যদিকে রামেকে ১৭ নং ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন রুয়েটের শিক্ষার্থী রকি।

এরা দু’জনই বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন রামচন্দ্রপুর এলাকার মেসে থাকতেন। এদের মধ্যে মুহতাসিম ছালছাবিল মেসে ও তুর্য সাইদ টাওয়ারের মেসে থাকতেন বলে জানা গেছে।

জানা গেছে, শুক্রবার এই তিন শিক্ষার্থী মিলে মদপান করেন। অতিরিক্ত মদপানের কারণে তারা অসুস্থ হয়ে পড়েন। শনিবার দিবাগত রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের পেছনে রামচন্দ্রপুর এলাকার বাশার রোডের একটি মেসে তিনজনের অবস্থার অবনতি হয়। পরে ভোর ৪টার দিকে তাদেরকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে নিয়ে আসে মেসের অন্য সদস্যরা। পরে হাসপাতালে আনার সঙ্গে সঙ্গে মুহতাসিম মারা যান এবং সকাল ৮টার দিকে মৃত্যু হয় তূর্যের। এছাড়া রকি নামের রুয়েটের আরেক শিক্ষার্থী এখনো চিকিৎসা নিচ্ছেন।

মেস বাড়ির মালিক আলফাজ হোসেন বলেন, ‘শনিবার ভোরে তিন শিক্ষার্থীর অবস্থা আশঙ্কাজনক দেখে মেসের অন্যান্য শিক্ষার্থীরা হাসপাতালে নিয়ে যায়। হাসপাতালে নেওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই মুহতাসিম মারা যান এবং সকাল ৮টার দিকে চিকিৎসকরা তুর্য মারা গেছে বলে নিশ্চিত করে।’

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক লুৎফর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমি রাজশাহীর বাইরে আছি। সকালে এক শিক্ষার্থী ফোন করে ঘটনাটি জানালো। শুনেছি অতিরিক্ত ড্রিংকস করার কারণে অসুস্থ হয়ে মারা যান। তাদের লাশ বর্তমানে রামেক হাসপাতাল মর্গে আছে।’

রাজশাহী মহানগর পুলিশের মুখপাত্র ইফতে খায়ের আলম সমকাল নিউজ২৪ডট কম কে বলেন, ‘রাবির দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যুর বিষয়ে নিয়ে তদন্ত শুরু হয়েছে। কারণ তারা দু’জনে পৃথক মেসে থাকতো। তারা একত্রে মাদক নিয়েছে নাকি এর সাথে অন্য কোন কিছু জড়িত আছে কিনা এটি তদন্তের বিষয়।’

Print Friendly, PDF & Email

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
ওপরে