২৬শে আগস্ট, ২০১৯ ইং ১১ই ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
কলাপাড়া হাসপাতালে ডাক্তার সংকট অথচ বদলির হিড়িক না’গঞ্জে গোল্ডেন চেস আন্তজার্তিক রেটিং দাবায় হানিফ... আমতলীতে চো’রাই গরু উ’দ্ধার শার্শা উপজেলার সকল কর্মকর্তাদের সাথে মত বিনিময় করলেন... মতলবে ফলদ বৃক্ষমেলার উদ্বোধন করেন- এমপি নুরুল আমিন

অবশেষে বানারীপাড়ায় হাই কোর্টের আদেশ মানার সূচনায় ছটাক হাসিতে কয়েক শত পরিবার

 মো. রেজাউল ইসলাম বেল্লাল বানারীপাড়া প্রতিনিধি সমকালনিউজ২৪

অবশেষে বানারীপাড়ায় সন্ধ্যা নদীর ভাঙন রোধে নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলণ বন্ধ’র হাই কোর্টের আদেশ মানার সূচনা হয়েছে।

 

অপরদিকে বন্দর বাজার সংলগ্ন সন্ধ্যা নদীর তীরে জেগে ওঠা চর অবৈধ দখলমুক্ত করতে উদ্যোগ নেওয়ায় হাফ ছেড়ে ঘুরে বসতে শুরু করেছে এ উপজেলার মানুষ। জনমুখি এ দুটি কাজের জন্য বরিশাল-২ আসনের নব নির্বাচিত সংসদ সদস্য বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি মো. শাহে আলমকে এলাকাবাসী সাধুবাদ জানিয়েছেন। নির্বাচিত হওয়ার পরের দিনই তিনি ভাঙন রোধে সন্ধ্যা নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলণ বন্ধের জন্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ আব্দুল্লাহ সাদীদ ও ওসি খলিলুর রহমানকে নির্দেশ দেওয়ায় তারা নদী থেকে বেশ কয়েকটি অবৈধ বলগেট ও ড্রেজার আটক করে বালু উত্তোলণ বন্ধ করে দেন।

 

এদিকে সোমবার সকালে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ আব্দুল্লাহ সাদীদ পৌর শহরের বন্দর বাজার সংলগ্ন সন্ধ্যা নদীর তীরে জেগে ওঠা চরে অবৈধভাবে গড়ে ওঠা বেশ কিছু স্থাপনা ভেঙ্গে ফেলেন।

 

এসময় তিনি অবৈধ দখলদারদের নিজ উদ্যোগে স্থাপনা সরিয়ে ফেলার নির্দেশ দেওয়ার পাশাপাশি অন্যথায় তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও হুশিয়ারী দেন।

 

প্রসঙ্গত নদীর ভাঙন রোধে বালু মহাল ইজারা না দেওয়ার দাবিতে ইলুহার ইউনিয়নের এক সাবেক ইউপি সদস্যের হাইকোর্টে করা রিটের প্রেক্ষিতে গত দুই বছর ধরে বানারীপাড়ার সন্ধ্যা নদীতে বালু মহাল ইজারা দিতে পারেনি জেলা প্রশাসন। বালু মহাল ইজারা দেওয়া না হলেও বালু উত্তোলণ বন্ধ হয়নি বরং উপজেলা আওয়ামী লীগের এক শীর্ষ নেতার ছত্রছায়ায় পূর্বের তুলনায় অবৈধভাবে বেশী বালু উত্তোলণ করা হতো। অনিয়মান্ত্রিক ভাবে বালু উত্তোলণের ফলে নদীর ভাঙন তীব্ররূপ ধারণ করে ভিটেমাটি,ফসলী জমি,রাস্তা-ঘাট,বিভিন্ন শিক্ষা ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান নদী গর্ভে বিলীন হয়ে অসংখ্য পরিবার নিঃস্ব ও রিক্ত হয়ে পড়ে।

 

বর্তমানে সন্ধ্যা নদী থেকে অবৈধ বালু উত্তোলন বন্ধ হওয়ায় নদী পাড়ের অসহায় পরিবার গুলোর মুখে ছটাক হাসি দেখা যাচ্ছে।

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
ওপরে