২১শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ইং ৯ই ফাল্গুন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
বরিশাল শেবাচিমে ময়লার স্তূপে মিললো ২২ অপরিণত শিশুর... স্বামীর লাশ ওয়ারড্রবে রেখে অফিস করলেন স্ত্রী! ঐক্যফ্রন্টকে গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর দাওয়াত চাকরিতে প্রবেশের বয়স ৩৫ করার দাবিতে মানববন্ধন বন্য হাতির আক্রমণে নিহত জাসদ নেতা সাইমুন কনক

অবৈধ দানব ট্রলি অবৈধ ঘোষিত হবে কবে ?

 মোহাম্মদ আলী লক্ষ্মীপুর।। সমকাল নিউজ ২৪

“ঢাল নেই তলোয়ার নেই নিধিরাম সর্দার ” প্রচলিত এ প্রবাদটির মতই যেন লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জের রাস্তা-ঘাট, মাঠ-প্রান্তর ধুমড়ে মুচড়ে দাবড়ে বেড়ানো অবৈধ ট্রলি। উপজেলাব্যাপী এখন যে দিকেই কান রাখি কেবলি শুনি হাহাকার – একটিই আওয়াজ রুখবে কে ওই দানব ট্রলি।

রাস্তায় চলার পারমিট নেই – নাম্বারপ্লেট নেই-তবুও যেভাবে চলছে বুক ফুলিয়ে চোখ কপালে ওঠার মত। আমার জানামতে ডাকাতরাও এমন চলেনা। তাদের কাজ রাতের গহীনে। উপর থেকে নীচ পর্যন্ত সবাই জানেন এবং মানেন রক্ত-খেকো এ ট্রলি অবৈধ – দিনের পর দিন এ ট্রলি’ই রামগঞ্জের রাস্তা – ঘাট, মাঠ- প্রান্তর ধুমড়ে মুচড়ে গিলে খাচ্ছে, গনহারে অনাবাদি করে যাচ্ছে একরের পর একর ভূমি – তবুও যেন কিছুই করা যাচ্ছেনা।

অসহায় যেন সকল জনপ্রতিনিধি থেকে নির্বাহী প্রশাসন। হায়রে কপাল। কোন এক ফকির লালের রচিত গানের একটি কলি আজ বড্ড মনে পড়ছে -“হায়রে কপাল মন্দ-চোখ থাকিতে অন্ধ ” যাই মনে করেছিলাম তবে আজ মনে হচ্ছে গানটি যথার্থই। এ মুহুর্তে যদি ওই গানটির রচয়িতাকে পেতাম তাহলে উনাকে পুরস্কৃত করে বলতাম দাদা দয়াকরে রামগঞ্জ বাসীর ললাট নিয়ে আরও একটি গান লিখুন।

অবশ্য এ ধরনের গান আরও অনেকেই লিখেছেন যেমন – তোরা দেখ – তোরা দেখ – তোরা দেখরে চাহিয়া
চোখ থাকিতে এমন কানা- কেমন করিয়া -, আসলেই সঠিক- আমরা কানাও হয়তোবা। তা না হলে আমরা সঠিকটি দেখছিনা কেন ! নাকি দেখেও না দেখার ভান করছি! আজকাল ঘর থেকে দু’পা ফেলতেই দেখি – প্রতিনিধিদের মুখে দারুন হাসি ভর ভর গালে।

চিরল ঠোঁট বাঁকিয়ে উনারা দারুন দারুন নীতিবাক্য শুনিয়ে যাচ্ছেন নিত্য- ভাইসব সত্যের পথে চলুন, সত্যকে গ্রহন আর মথ্যেকে বর্জন করুন। এমন আচরনে মনটা ভরে উঠলেও পরক্ষনেই ভেঙ্গে পড়ি উনাদের দ্বিমুখী আচরন দেথে। একদিকে উনারা শান্তনা দিলেও গোপনে অপরদিক ভাজে রাখেন ঠিকই। দানব ট্রলির দানবীয় ধ্বংসলীলা বন্ধে রামগঞ্জে কোন কাজ হচ্ছেনা কেন? এমন প্রশ্ন আজ ঘরে ঘরে।

জনপ্রতিনিধিগন রাতদিন শান্তনার বড়ি খাইয়ে জনগনকে ঘুমপাড়িয়ে রাতের নির্দৃষ্ট প্রহরে রেস্টুরেন্টে বসে ট্রলি মালিকদের সাথে অংক কষলে এর সমাধান বানরের রুটি ভাগ করার মতই। গোলেমালে যাক দিন – আর আছে কয়দিন – এভাবে আপনারা যতই সময় পার করছেন মনে রাখবেন এরই সাথে আপনাদেরও সময় ফুরিয়ে আসছে।

আর একবার সময় পেরুলে আর ফিরে আসবেনা। মনে রাখবেন নিষিদ্ধ বটিকা সেবনে যেহারে শরীর তুলতুলে করে যাচ্ছেন – মাটির ঘরে ওই তুলতুলে শরীরে পোকাই কেবল বুনিবে বাসা। নিজের কৃতকর্মের জন্য যখন দণ্ডিত হবেন তখন মহান রাব্বুল আলামীনের নিকট যতই মিনতি জানাবেন হে- দয়াময়- আরেকটিবার সুযোগ দিন। মনে রাখবেন সেদিন লাভ হবেনা।
এ নিয়ে ফকির লালন গেয়ে ছিলেন –
সময় গেলে সাধন হবেনা—–

Print Friendly, PDF & Email

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
লক্ষ্মীপুর বিভাগের সর্বশেষ
লক্ষ্মীপুর বিভাগের আলোচিত
ওপরে