২৫শে মার্চ, ২০১৯ ইং ১১ই চৈত্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
হাটহাজারীতে এক কিশোরীকে গনধর্ষন ঠাকুরগাঁওয়ে ভুল অপারেশনে প্রাণ গেল তৃতীয় শ্রেণীর... স্বাধীনতা যুদ্ধে বীর শহীদের স্বরনে মোংলা ইপিজেড কর্তৃক... ডিনস এ্যাওয়ার্ড পেলেন রাবির দুই শিক্ষক রাবিতে পাঁচ দিনব্যাপী শিল্পকর্ম প্রদর্শনী শুরু

আটক পাইলট দেশে ফিরলেই ‘জবাব’ দেবে ভারত।

  সমকাল নিউজ ২৪

আলোচনার জন্য পাকিস্তান বারবার প্রস্তাব দিলেও তাতে কোন সাড়া দিচ্ছেন না ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। বুধবার পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান মোদিকে টেলিফোন করেও কথা বলতে ব্যর্থ হন।

এদিকে বৃহস্পতিবার ভারতের এয়ার ভাইস মার্শাল আরজিকে কাপুর বলেছেন, ‘একবার অভিনন্দন ভালোভাবে ফিরে আসুক, তারপর পাকিস্তান এবং ইমরান খানের বক্তব্যের জবাব দেব আমরা।’ পাকিস্তানের বিরুদ্ধে যুদ্ধকে উৎসাহ দেওয়ার প্রমাণ রয়েছে। পাকিস্তান জঙ্গি দমনে ব্যবহৃত ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার করেছে তার প্রমাণ সংবাদমাধ্যমে দেখানো হয়েছে।

পাকিস্তানের হাতে আটক ভারতের বৈমানিক অভিনন্দনকে আজ ছেড়ে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে পাকিস্তান। গতকাল এ ঘোষণা দিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। তিনি বলেছেন, শান্তিপ্রক্রিয়া চালিয়ে নিয়ে যেতেই এই উদ্যোগ।

কিন্তু ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে বলা হচ্ছে, ভারতীয় কর্তৃপক্ষ পাকিস্তানের এ পদক্ষেপের ভিন্ন অর্থ দেখতে পাচ্ছেন। তাঁরা বলছেন, জেনেভা কনভেনশন অনুসারে তাঁকে ছাড়া হচ্ছে। এতে সমঝোতা বা অন্য কোনো বিষয় নেই।

পাকিস্তানের ডন অনলাইনের প্রতিবেদনে বলা হয়, দুই দিনের সামরিক উত্তেজনার পর কাল বুধবার সেই উত্তেজনা কিছুটা স্তিমিত হয়েছে। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ভারতের বৈমানিককে আজ মুক্তি দেওয়ার কথা বলেছেন। এতে তিনি সব দল ও সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে প্রশংসা পেয়েছেন।

এ ছাড়া ভারতকে আলোচনার প্রস্তাব দেওয়ার কারণে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে টেলিফোনে অভিনন্দন জানিয়েছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়িপ এরদোয়ান।

ভারতীয় বিমানবাহিনীর সূত্রে ভারতের কয়েকটি গণমাধ্যমে বলা হচ্ছে, আন্তর্জাতিক চাপের কারণে পাইলট অভিনন্দন বর্তমানকে ফিরিয়ে দিতে সম্মত হয়েছে পাকিস্তান। পাকিস্তান সংসদে দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান এই মুক্তি দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন।

কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরার খবরে বলা হয়, বৃহস্পতিবার পার্লামেন্টে যৌথ সেশনে ভারত-পাকিস্তান উত্তেজনার পরিপ্রেক্ষিতে পাকিস্তানের পার্লামেন্টে যৌথ অধিবেশন আহ্বান করা হয়। সেই অধিবেশনেই পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান আটক ভারতীয় পাইলটকে মুক্তি দেওয়ার ঘোষণা দেন।

এনডিটিভি ও টাইমস অব ইন্ডিয়া অনলাইনের খবরে জানানো হয়, বৃহস্পতিবার ভারতের সেনাবাহিনী, বিমানবাহিনী ও নৌবাহিনীর যৌথ সংবাদ সম্মেলনে এয়ার ভাইস মার্শাল আরজিকে কাপুর দাবি করেছেন, ‘জেনেভা কনভেনশন অনুসারে তাঁকে ছাড়া হচ্ছে। নিয়ন্ত্রণরেখায় (লাইন অব কন্ট্রোল) পড়ে যাওয়ার পর পাকিস্তানের হেফাজতে থাকা ভারতের উইং কমান্ডার পাইলট অভিনন্দনকে ছেড়ে দেওয়ার ঘোষণায় আমরা খুশি। আমরা তাঁকে ফিরে পাব জেনে অত্যন্ত খুশি। আমরা এটাকে শুধু জেনেভা কনভেনশনের চুক্তি বাস্তবায়ন হিসেবেই দেখছি।’

তিনি বলেন, ‘আমরা যা করতে চেয়েছিলাম, তা করেছি। দেখানোর জন্য আমাদের কাছে প্রমাণও আছে। এসব দেখানোর সিদ্ধান্ত রাজনৈতিক নেতৃত্বের ওপর নির্ভরশীল।’

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, ‘গতকালই আমি ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে ফোন করে বলতে চেয়েছিলাম। আমরা শান্তি চাই। আমাদের কাছে একজন পাইলট আছেন। তাঁকে আমরা কাল মুক্তি দিয়ে দেব।’

এনডিটিভির খবর, ভারতের সরকারি সূত্র বলছে, পাকিস্তানের সঙ্গে কোনো সমঝোতা নয়, তারা পাইলটকে ফেরত চায়। সমঝোতা করার প্রক্রিয়া অভিপ্রায় না থাকায় কূটনৈতিক চ্যানেল দিয়েও বিষয়টিকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা নেই। এর আগে পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূতকে এ-সংক্রান্ত তথ্য তুলে দেওয়া হয়েছে।

পুলওয়ামা হামলার পর থেকেই পাকিস্তানের ওপর আন্তর্জাতিক চাপ বাড়ানোর চেষ্টা করছে ভারত। মার্কিন রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, দুই দেশের কাছ থেকেই কিছুটা সুসংবাদ পেয়েছি আমরা। প্রথম থেকেই যুক্তরাষ্ট্র চায় দুই দেশের মধ্যে উত্তেজনা কমে যাক।

পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কুরেশি বলেছেন, পাইলটকে মুক্তি দিলে যদি উত্তেজনা প্রশমিত হয় তাহলে পাকিস্তান সেটা করতে চায়।

ইমরান খান বলেছেন, ‘আমি বুধবার রাতে নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করেছিলাম (কিন্তু ব্যর্থ হই)। তাঁকে বলতে চেয়েছিলাম আমরা (পাকিস্তান) কোনো ধরনের অস্থিরতা চাই না।’

শাহ মাহমুদ কুরেশি বলেন, নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলতে চান ইমরান খান। মোদির সঙ্গে কথা বলে তিনি (ইমরান) শান্তির প্রস্তাব দিতে চান।

তবে ভারতের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, পাকিস্তান সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে শক্ত অবস্থান না নেওয়া পর্যন্ত কথা বলতে রাজি নন নরেন্দ্র মোদি।

শুক্রবার পাকিস্তানের স্থানীয় সময় বিকাল ৩টার দিকে ভারতীয় পাইলটকে মুক্তি দেয়ার কথা আছে পাকিস্তানের। সেই সঙ্গে আলোচনার প্রস্তাব দিয়েছে পাকিস্তান। তবে ভারতের পক্ষ থেকে এখন পর্যন্ত পাকিস্তানের সঙ্গে আলোচনার বিষয়ে কেউ মুখ খোলেনি।

Print Friendly, PDF & Email

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
আন্তর্জাতিক বিভাগের আলোচিত
ওপরে