১৮ই জুলাই, ২০১৯ ইং ৩রা শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
দাগনভূঞায় মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষে শোভাযাত্রা ও পোনা... ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে তরুণ প্রজন্ম নেটের বিভিন্ন... আমতলী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন হাজার- হাজার সমর্থকদের... বরগুনায় জব ফেয়ার অনুষ্ঠিত শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের কবর সংরক্ষনের ব্যবস্থা গ্রহন...

আব্বু তুমি অজু কর, একটু পরই এসে দুজনে একত্রে মসজিদে নামাজ পড়ব; নামাজ পড়া আর হলো না তাওহিদের ; ফিরলো লাশ হয়ে

 জাহাঙ্গীর কবীর মৃধা বরগুনা। সমকাল নিউজ ২৪

পবিত্র ঈদুল ফিতরের দিন দাদার কবর জিয়ারত শেষে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারালেন বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব বিজনেস টেকনোলজির মেধাবী ছাত্র মো. তাওহীদুল ইসলাম (১৯)। তাওহীদ বাকেরগঞ্জ উপজেলার নিয়ামতি গ্রামের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আব্দুস সালাম মৃধা ও বিবিচিনি স্কুল এন্ড কলেজের সিনিয়র শিক্ষক মোসাঃ আলমতাজ কলির পুত্র।

তাওহীদুল ইসলাম বিবিএ দ্বিতীয় বর্ষের সেমিস্টারের প্রথম স্থান অধিকার করার পর গত ২৯ মে পরিবারের সাথে ঈদ পালনের জন্য নিজ গ্রামের বাড়ি বাকেরগঞ্জ উপজেলার নিয়ামতি বাজারে চলে আসেন। ৫জুন ঈদেও নামাজ শেষে বেলা ১০টার দিকে পিতা আব্দুস সালাম মৃধাকে সাথে নিয়ে মোটরসাইকেল যোগে দাদা-দাদীর কবর জিয়ারত করতে যান। কবর জিয়ারত শেষে বেলা ১২টার দিকে বাড়ি ফিরে বাবাকে বললেন, “আব্বু তুমি অজু কর, একটু পরই এসে দুজনে একত্রে মসজিদে যোহরের নামাজ পড়ব।” পিতাার সাথে এটাই ছিলো তাওহিদের শেষ কথা। বাসা থেকে বের হওয়ার সময় মাকে বললেন, বন্ধুদের সাথে একটু ঘুরে এসে তোমার কাছে আসতেছি। বাবার সাথে নামাজ পড়া আর হলো না তাওহিদের। আর হল না মায়ের সাথে দেখা। ফিরে আসলো একসময়ে। তবে জীবিত নয়, লাশ হয়ে।

আমি একটু মোটর সাইকেল নিয়ে ঘুরে আসি তুমি অজু করো এরপরে আমরা নামাযে জোহরের নামাজে যাব মিজান তৌহিদ বাড়ির পাশে নিয়ামতি সড়কে ঘুরতে গেলে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হন আর জোহরের নামাজ পড়া হয়নি তারপবিত্র ঈদুল ফিতরের আনন্দ ও খুশির দিনটা নেমে আসে মর্মান্তিক শোকের ছায়া।

তাহিদুল ইসলাম এর অকাল মৃত্যুতে গ্রামে এখনো শোকের ছায়া বিরাজ করছে শোকে মূর্ছা যাচ্ছেন মা বাবাসহ স্বজনরা।
পিতা মাতার দুই পুত্র সন্তানের মধ্যে তাজুল ইসলাম বড় ছোট ভাই মহিদুল ইসলাম ক্লাস সেভেনে পড়ে।

Print Friendly, PDF & Email

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
বরগুনা বিভাগের সর্বশেষ
বরগুনা বিভাগের আলোচিত
ওপরে