২৭শে জুন, ২০১৯ ইং ১৩ই আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
মনোহরগঞ্জে বসত বাড়িতে সশস্ত্র হামলা ভাঙচুর ও লুটপাট বরগুনায় নয়ন বন্ডের দায়ের কোপে রিফাতের মৃত্যু! বগুড়ায় ছিনতাই আক্রমনে আহত ৪ দা দিয়ে কুপিয়ে যাচ্ছিল দুই সন্ত্রাসী, যার ভিডিও... বরগুনা সদর উপজেলার গৌরিচন্না ইউপির উন্মুক্ত বাজেট...

আমতলীতে ইউপি চেয়ারম্যানের উপর সন্ত্রাসী হামলা আহত-৪

 হায়াতুজ্জামান মিরাজ সমকাল নিউজ ২৪

বরগুনার আমতলী উপজেলার গুলিশাখালী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এ্যাড. নুরুল ইসলাম ও তার সহযোগীদের উপর হামলা করেছে সন্ত্রাসীরা। এতে চেয়ারম্যানসহ ৪ জন আহত হয়। আহতদের আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। ঘটনা ঘটেছে শনিবার সকাল ১০ টায় বাইনবুনিয়া গ্রামে।

স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে, আমতলী উপজেলার গুলিশাখালী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এ্যাড. নুরুল ইসলাম ও তার ৮/৯ জন সহযোগী নিয়ে দুটি ইজিবাইক গাড়ীতে গোজখালী ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্সে যাচ্ছিল। পথিমধ্যে বাইনবুনিয়া নামক স্থানে পৌছলে স্থানীয় শাহাজাহান মৃধাকে চেয়ারম্যান তার গাড়ীতে তুলে নেয়ার জন্য ইজিবাইক থামান। এ সময় চেয়ারম্যানের ইজিবাইক গাড়ীটি মিজান, মোকলেস, মোমেন, বাদল হাজী ও মোয়াজ্জেমসহ ৮/১০ জন সন্ত্রাসী ঘিরে ফেলে। পরে সন্ত্রাসীরা চেয়ারম্যান নুরুল ইসলামকে ইজিবাইক থেকে নামিয়ে কিল ঘুষি মারে। চেয়ারম্যানের সহযোগী দেলোয়ার হোসেন খাঁন , হারুন অর রশিদ, শহীদুল ইসলাম, স্বপন মোল্লা, জহিরুল ইসলাম, লিটন ও মোঃ ইউসুফ আলী চেয়ারম্যানকে রক্ষায় এগিয়ে আসলে তাদের উপর হামলা চালায়। এতে চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম, শহীদুল ইসলাম, স্বপন মোল্লা ও হারুন অর রশিদ আহত হয়।

আহতদের আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এদিকে চেয়ারম্যান নুরুল ইসলামের উপর হামলার প্রতিবাদে ইউপি চেয়ারম্যানদের উদ্যোগে আমতলী পৌর শহরে মৌন মিছিল করা হয়েছে। এ মৌন মিছিলে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ মজিবুর রহমান, ইউপি চেয়ারম্যান মোতাহার উদ্দিন মৃধা,আখতারুজ্জামান বাদল খান, হারুন অর রশিদ, শহীদুল ইসলাম মৃধা ও উপজেলা আওয়ামীলীগ সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ রেজাউল করিম শাহজাদা আকন।

আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক মোঃ শাহাদাত হোসেন বলেন, আহত চারজনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। আহত চার জনের ঠোট ও কপালে আঘাতের চিহৃ রয়েছে। তিনি আরো বলেন চেয়ারম্যানসহ আহত চারজনের অনুরোধে তাদের উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
গুলিশাখালী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এ্যাড. নুরুল ইসলামের গাড়ী চালক মোঃ ইউসুফ আলী জানান, মিজান, মোকলেস, মোমেন, বাদল হাজী ও মোয়াজ্জেম সহ ৮/১০ জন সন্ত্রাসী চেয়ারম্যানের গাড়ী থামিয়ে মারধর শুরু করে। তাকে রক্ষায় আমরা এগিয়ে গেলে আমাদের মারধর করেছে।

চেয়ারম্যানের সহযোগী মোঃ দেলোয়ার হোসেন খাঁন বলেন, সন্ত্রাসীরা চেয়ারম্যানের ইজিবাইক গাড়ী থামিয়ে চেয়ারম্যানকে নামিয়ে কিল ঘুষি মারতে শুরু করলে আমি তাকে আগলে রক্ষা করেছি।

গুলিশাখালী ইউপি চেয়ারম্যান এ্যাড. নুরুল ইসলামের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তিনি অসুস্থ্যতার কারনে কথা বলতে অপরগতা প্রকাশ করেছেন।

আমতলী থানার ওসি মোঃ আবুল বাশার বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে অভিযোগ পেলে আইনি ব্যাবস্থা নেয়া হবে।

Print Friendly, PDF & Email

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
বরগুনা বিভাগের সর্বশেষ
বরগুনা বিভাগের আলোচিত
ওপরে