১৭ই অক্টোবর, ২০১৯ ইং ২রা কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
আমতলীতে ভয়াবহ অগ্নিকান্ড বসতঘর ভস্মিভূত, প্রায় ১০ লক্ষ... বাংলাদেশ সফরে যাচ্ছেন নিউইয়র্কের ৫ জন ষ্টেট সিনেটর ফরাশী ভাষায় নির্মিত তথ্য চিত্র প্রদর্শনী, উদীয়মান... রি’ফাত হ’ত্যা মা’মলার প্রধান আ’সামির জা’মিন... স্পেনে টাইগার মাদ্রিদের নতুন জার্সি উন্মোচন ও...

উজিরপুরের নারী নি’র্যাতনকারী সেই ওসি ও কনস্টেবলের বি’রুদ্ধে মা’মলা

  সমকালনিউজ২৪

রাহাদ সুমন,বানারীপাড়া(বরিশাল)প্রতিনিধি ::

বরিশালের উজিরপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শিশির কুমার পাল ও কনস্টেবল জাহিদুল ইসলামের বি’রুদ্ধে আদালতে মা’মলা দায়ের করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বরিশাল চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে ওসির নি’র্যাতনের শিকার রাশিদা বেগম (৫২) বাদী হয়ে মা’মলাটি দায়ের করেন। রাশিদা বেগম পুলিশের সাবেক এএসআই মরহুম মো. হেলাল মাতুব্বরের স্ত্রী।

আদালতের বিচারক সানা মো. মাহরুফ হোসাইন মা’মলাটি আমলে নিয়ে পুলিশ সুপারকে ত’দন্ত শেষে প্রতিবেদন জমা দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। মা’মলার এজাহারে উলে­খ করেন অ’ভিযুক্তরা পুলিশ বিভাগে কর্মরত থেকে ক্ষমতার অপব্যবহার করে বিভিন্ন সময় মানুষকে হয়রানি করে আসছেন। গত ১১ সেপ্টেম্বর সকাল ১০টায় ওসি শিশির কুমার পালের নির্দেশে কনস্টেবল জাহিদুল ইসলাম বাদীর ঘরের মালামাল জব্দ করেন।

পরে একই দিন মালামাল ফেরত নেওয়ার জন্য রাশিদাকে থানায় ডাকা হয়। সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে তিনি থানা সংলগ্ন বাচ্চুর দোকানে চা পান করতে যান। এসময় কনস্টেবল জাহিদুল সেখানে এসে নাম জিজ্ঞাসা করলে জবাব দিতে বিলম্ব হওয়ায় তাকে গালাগাল করেন। এর প্রতিবাদ করায় কনস্টেবল জাহিদুল দোকানের দেয়ালের সঙ্গে চেপে ধরে তার দুই গালে ও ঠোঁটে সিগারেটের আগুনের ছ্যাকা দেন।

এ ঘটনায় ওসি শিশির কুমার পালের কাছে থানায় বিচার দিতে গেলে তিনি ডিআইজির কাছে যেতে বলেন। এসময় রাশিদা বেগম তাকে বিচার করার জন্য বললে ওসি তার চুলের মুঠি ধরে মারধর করেন। একপর্যায় আছাড় দিলে রাশিদা বেগম সেখানে মলত্যাগ করেন।

এসময় রাশিদা বেগমের ছেলে বাবু এসে প্রতিবাদ করলে তাকে থাপ্পড় দেওয়াসহ সাদা কাগজে সই নেওয়া হয়। এছাড়া রাশিদা বেগমের সঙ্গে থাকা ১৩ হাজার টাকা দামের একটি স্বর্ণের চেইনও নিয়ে যান তারা। এই ঘটনায় মা’মলা করলে তাদের অবস্থা আরও ভয়াবহ হবে বলে হুমকি দেওয়া হয়।

এদিকে, উজিরপুর থানার ওসি শিশির কুমার পাল এ অ’ভিযোগ অস্বীকার করেন ও মা’মলার বিষয়ে কিছু জানেন না বলে দাবি করেন।

এর আগে, ওই নারীকে নি’র্যাতনের ঘটনায় ডিআইজি ও পুলিশ সুপার বরাবর অ’ভিযোগ দেওয়া হয়। এর প্রেক্ষিতে ঘটনার ত’দন্তে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। পাশাপাশি অ’ভিযুক্ত কনস্টেবল জাহিদুল ইসলামকে থানা থেকে প্রত্যাহার করে পুলিশ লাইন্সে সংযুক্ত করা হয়েছে বলেও জানা গেছে।

 

‘বিদ্রঃ সমকালনিউজ২৪.কম একটি স্বাধীন অনলাইন পত্রিকা। সমকালনিউজ২৪.কম এর সাথে দৈনিক সমকাল এর কোন সম্পর্ক নেই।’

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
বরিশাল বিভাগের সর্বশেষ
বরিশাল বিভাগের আলোচিত
ওপরে