১৫ই আগস্ট, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ ৩১শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
শোকাবহ বেদনাদায়ক ১৫আগষ্ট আজ বরগুনার আমতলীতে জমি দখলের জের ধরে বৃদ্ধকে পিটিয়ে... বরগুনার পাথরঘাটায় অ’স্ত্রসহ আটক ১ শার্শা উপজেলা যুবলীগের পক্ষথেকে বঙ্গবন্ধুর ৪৫তম... বরগুনা পাথরঘাটা থেকে হরিণের চামড়া উদ্ধার

একুশে পদকপ্রাপ্ত বাঘার পলান সরকার আর নেই

  সমকালনিউজ২৪

নাজিম হাসান,রাজশাহী প্রতিনিধি:
একুশে পদকপ্রাপ্ত রাজশাহীর বাঘার পলান সরকার আর নেই। তিনি গ্রামের পথে ঘুরে ঘুরে আর বই বিলি করবেন না। পৃথিবীর মায়া ছেড়ে না ফেরার দেশে চলে গেছেন তিনি। শুক্রবার দুপুর ১২টা ২০ মিনিটে নিজ বাড়িতে মারা যান তিনি। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৯৮ বছর। বার্ধক্যজনিত কারণে দীর্ঘদিন অসুস্থ ছিলেন তিনি। পলান সরকারের মৃত্যুর বিষয়ে নিশ্চিত করেন তার ছেলে স্থানীয় খাগড়বাড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক হায়দার আলী। পলান সরকারের গ্রামের বাড়ি রাজশাহীর বাঘা উপজেলার বাউসা ইউনিয়নের বাউশা পূর্বপাড়া গ্রাামে।নিজের টাকায় বই কিনে পাঠকের বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দিতেন পলান সরকার। বই পড়ার এমন আন্দোলন গড়ে তোলার জন্য তাকে ২০১১ সালে একুশে পদকে ভূষিত করা হয়। সে সময় ঢাকার জাতীয় দৈনিক পত্রিকা গুলোতে তাকে নিয়ে প্রতিবেদন ছাপানো হয়। পলান সরকারকে নিয়ে সায়াহ্নে সূর্যোদয় নামে একটি নাটক তৈরি করা হয়েছে। পলান সরকারের আসল নাম হারেজ উদ্দিন। তবে দেশব্যাপী তিনি পলান নামেই পরিচিতি পেয়েছেন। ১৯২১ সালে জন্ম নেয়া এই বই পাগল গুণী ব্যক্তিটি প্রথম দিকে স্থানীয় একটি উচ্চবিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে বই বিলি শুরু করেন। শিক্ষার্থীদের মধ্যে মেধা তালিকায় ১ থেকে ১০ ক্রমিক নম্বরদের তিনি একটি করে বই উপহার দিতেন। তবে এর কিছুদিন পর থেকে উপজেলার সবাইকেই বই দেয়া শুরু করেন। এভাবে পায়ে হেঁটে একটানা ৩০ বছরের বেশি সময় ধরে বই বিলি করেছেন বই পাগল পলান সরকার। তাঁর ৬ ছেলে তিন মেয়েসহ অসংখ্যগুনাগ্রাহী রেখে গেছেন। পলান সরকারের মৃত্যুতে রাজশাহী-৬ (বাঘা-চারঘাট) আসনের সাংসদ ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম তাঁর পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান।#

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
রাজশাহী বিভাগ বিভাগের সর্বশেষ
ওপরে