২১শে সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং ৬ই আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
চাঁদপুরে ইলিশের আমদানী বাড়লেও দাম না কমায় হতাশ ক্রেতারা আত্রাইয়ে পানিতে ডুবে মাদ্রাসা ছাত্রীর মৃ’ত্যু; ১৯... পাইকগাছায় ভুয়া ঠিকানা দিয়ে বিয়ে করে দুই লক্ষ টাকা... বাল্যবিবাহ-ই’ভটিজিং-স’ন্ত্রাস ও মা’দক প্রতিরোধে... বরগুনায় ৬ষ্ট শ্রেনীর মাদরাসা ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টার ...

এক নারীর গর্ভের সন্তানের পিতৃত্ব দাবী করে দুই যুবকের যুদ্ধ

 অনলাইন ডেস্ক সমকালনিউজ২৪

এক নারীর গর্ভের সন্তানের পিতৃত্ব দুই যুবক দাবী করার চাঞ্চল্যকর ঘটনা ঘটেছে ফরিদপুরের নগরকান্দায়। বিষয়টি নিয়ে বেশ কয়েক দফায় সালিশি বৈঠক করেও কোনও সমাধান করতে পারেনি স্থানীয় গ্রাম্য মাতবররা।

জানা গেছে, উপজেলার পুরাপাড়া ইউনিয়নের গোয়ালদি গ্রামের আলমগীর কাজির মেয়ে নাজমা বেগমের সঙ্গে প্রায় ১০ বছর আগে গোপালগঞ্জের কাশিয়ানি উপজেলার জুনাসুর গ্রামের বাদশা লস্করের ছেলে ছাবু লস্করের বিয়ে হয়। পরে নাজমা বেগম ২০১৮ সালের ৩০ আগস্ট ছাবুকে তালাক দেন।

পরে নিজের গ্রামের লাল মোল্লার ছেলে হেলাল মোল্লার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে নাজমার। এরপর ২০১৮ সালের ২৭ ডিসেম্বর হেলালের সঙ্গে নাজমার বিয়ে হয়। পরে চলতি বছরের ১ মার্চ নাজমা হেলালকে তালাক দিয়ে পূর্বের স্বামী ছাবুর সঙ্গে সংসার শুরু করেন। এরই মাঝে নাজমা সন্তানসম্ভবা হয়ে পড়েন।

এখন হেলালের দাবী এই সন্তান তার; তিনি নাজমার গর্ভের সন্তানকে নিজের দাবী করে বলেন, এই সন্তান আমার। অন্যদিকে এই সন্তান নিজের বলে দাবী করেন ছাবুও।

অন্যদিকে গর্ভের সন্তান নিজের দাবী করে ছাবু বলেন, হেলাল আমার সঙ্গে যুদ্ধ শুরু করেছে। সেজন্য নাজমাকে দিয়ে হেলালের বিরুদ্ধে নারী নির্যাতন মামলা করিয়েছি। তবে এ বিষয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলতে রাজি হননি নাজমা।

এ বিষয়ে পুরাপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুস সোবহান মিয়া বলেন, বিষয়টি নিয়ে এলাকায় মিমাংসার চেষ্টা চলছে। শিগগিরই বিষয়টি মিমাংসা করে দিব।

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
ওপরে