৫ই জুন, ২০২০ ইং ২২শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
চলতি মাসেই পোশাক শ্রমিক ছাঁটাই হবে : রুবানা হক বগুড়ায় সাংবাদিক অধ্যাপক মোজাম্মেল হকে’র মৃ’ত্যু সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রীর জন্য দোয়া চেয়েছেন মোহনপুর... ভারত সীমান্তে পারমাণবিক অ’স্ত্রের সমাবেশ চীনের! এমপি ফজলে করিমের ভাইয়ের মৃ’ত্যুতে তথ্যমন্ত্রীর শোক!

করোনা: খাবার নিয়ে বাড়ি বাড়ি ছুটছেন কুতুবদিয়ার ওসি

  সমকালনিউজ২৪

জে.জাহেদ, চট্টগ্রাম প্রতিনিধি ::

বিশ্ব কাঁপানো করোনা ভাইরাস কোভিড-১৯ এর প্রাদুর্ভাবে কঠিন পরিস্থিতিতে কর্মহীন হয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছে সাধারণ মানুষ। ছুটিতে পুরো দেশ। ঘরবন্দি মানুষের দিন কাটছে আতঙ্ক আর উৎকণ্ঠায়।

এমন সময় চলাচল সীমিত হওয়ায় জীবিকা সংকটে পড়া একটি পরিবার ফোনে দিলেন কক্সবাজার জেলার কুতুবদিয়া থানার হটলাইন নাম্বারে। গত কয়েক দিন ঘরের বাইরে যেতে পারেননি পরিবারটি। ঘরে খাবার না থাকায় কষ্টে দিন পার করতে হচ্ছিলো। কল পেয়ে তাৎক্ষনিক ঐ বাড়িতে নিত্য প্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী নিয়ে ওসি নিজেই হাজির। পরিবারটির আহারের ব্যবস্থা করে দিলেন ওসি মো. দিদারুল ফেরদৌস।

এ যেনো এক মানবিক পুলিশ। ওরাও মানুষ আমাদের মতো। মানবতা আর মানবিকতা ওদেরও নাড়া দেয়। প্রমাণ করলেন দেশের ক্রান্তিলগ্নে পুলিশ বসে থাকে না। যতটা সম্ভব সামর্থ্য অনুযায়ী গরিব দুঃখী মানুষের পাশে দাঁড়ায়। ওসি দিদারুল ফেরদৌসও কক্সবাজার জেলা পুলিশ সুপারের নির্দেশনায় সেই অন্যন্য নজির সৃষ্টি করলেন কুতুবদিয়া উপজেলায়।

এ ছাড়াও গত দুদিন ধরে ওসির উদ্যোগে কুতুবদিয়া উপজেলার ধুরং বাজার ও তার আশপাশে, লেমশিখালি, উত্তরধুরং, বিদ্যুৎ মার্কেট, জেলে পাড়া, হিন্দুপাড়া, মলমচর এলাকার প্রায় তিন শতাধিকেরও অধিক দুস্থ, অসহায় ও হতদরিদ্র পরিবারের মধ্যে নিত্য প্রয়োজনীয় ( চাল, ডাল, তেল, আলু, সাবান ইত্যাদি ) খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন।

কুতুবদিয়া থানার ওসি দিদারুল ফেরদৌস বলেন, ‘করোনার কারণে ঘরবন্দি কোনো মানুষ যাতে না খেয়ে থাকে, সেটি নিশ্চিত করতে বাড়ি বাড়ি গিয়ে নিজেই ত্রাণ সামগ্রী নিয়ে হাজির হচ্ছি। ত্রাণ সামগ্রী উপজেলার সর্বত্র পৌঁছাতে দিনরাত কাজ করে যাচ্ছি। আবার কিছু এলাকাতে পরিচিত জনদের সংঘটিত করে তহবিল বা ফান্ড করে দিচ্ছি। একই ভাবে যেনো নিম্ন আয়ের লোকদের সহায়তা করা হয়।’

এ সময় ওসি সরকারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সবাইকে ঘরে থাকার পরামর্শ দেন। খাদ্য সংকট দূর করতে মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়ে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দেওয়া হবে বলে আশ্বস্ত দেন তিনি।

ওসি আরও জানান, খাবার শেষ হয়ে গেলে প্রয়োজনে আবারও দেওয়া হবে।’

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
চট্টগ্রাম বিভাগের সর্বশেষ
চট্টগ্রাম বিভাগের আলোচিত
ওপরে