১৬ই জুলাই, ২০১৯ ইং ১লা শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
ফুলগাজীর সেই বৃদ্ধ উপজেলা চেয়ারম্যান থেকে  ২০কেজী চাউল... মতলব কৃষি ব্যাংকে চুরির ঘটনায় ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন... মায়ের পরকিয়া দেখে ফেলায় শিশুকে জবাই, ৬ মাস পর ইউপি... দুর্গাপুরে বাস ট্রাকের সংঘর্ষে শিক্ষার্থী নিহত ডিবিওয়াইও’র এডুকেশন ট্যুর!

কাদিয়ানীদের অমুসলিম ঘোষণার ও কথিত ইজতেমা বন্ধের দাবীতে হাটহাজারীতে বিক্ষোভ।

  সমকাল নিউজ ২৪

হাটহাজারীতে কাদিয়ানী সম্প্রদায়কে রাষ্ট্রীয়ভাবে অমুসলিম ঘোষণা এবং পঞ্চগড়ে কথিত জাতীয় ইজতেমা বন্ধের দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সোমবার (১১ ফেব্রুয়ারী) বিকালে উপজেলার ডাক বাংলো চত্তরে মজলিসে তাহাফফুজে খতমে নবুওয়াত বাংলাদেশ হাটহাজারী উপজেলা শাখার আয়োজনে এ বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

বড় মাদ্রাসার সিনিয়র মুহাদ্দিস আহমদ দিদারের সভাপতিত্বে এবং ইমরান সিকদারের সঞ্চালনায় এ সমাবেশে প্রধান অতিথি উপস্থিত ছিলেন হেফাজত ইসলাম বাংলাদেশের যুগ্ম মহাসচিব আল্লামা জোনায়েদ বাবুনগরী।

এতে বক্তব্যে রাখেন উপজেলা ভাইস
চেয়ারম্যান নাছির উদ্দিন মুনির, আল আমিন সংস্থার সাধারণ সম্পাদক আহসান উল্লাহ মাষ্টার, খতমে নবুওয়াত নেতা মাওলানা জাকারিয়া নোমান ফয়জি, মমতাজুল করিম বাবু, কামরুল ইসলাম কাসেমী প্রমুখ।

সমাবেশ বক্তারা বলেন, কাদিয়ানী সম্প্রদায় একটি বিধ্বংসী আকিদা নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে। যারা আখেরী নবীকে মানে না তারা কিভাবে নিজেকে মুসলিম দাবী করে, তারা কিভাবে পঞ্চগড়ে ইজতেমা করার মত সাহস দেখায় ? বক্তরা সরকারকে এ ইজতেমা অনতিবিলম্বে বন্ধ করতে এবং কাদিয়ানীদের অমুসলিম ঘোষণা না করলে বাংলাদেশের প্রতিটা ঘরে আগুন জ্বলবে বলেও হুশিয়ারীও প্রদান করেন।

এছাড়াও বক্তারা বলেন,একজন মন্ত্রী কিভাবে তাদের সহযোগীতার আশ্বাস দেন তা আমাদের বোধগম্য নয়। কাদিয়ানীরা মুসলিম নয়। তারা ইহুদী নাছারার দালাল। তাই তাদের পাশাপাশি ইহুদী নাছারার বিরুদ্ধেও যুদ্ধ ঘোষণা করতে হবে। পাকিস্তানে তাদের নিষিদ্ধ করা হলেও বাংলাদেশে এখনও করা হয়নি। কিছু মোনাফেকের কারণে তাদের নিষিদ্ধ করা যাচ্ছেনা উল্লেখ করে বক্তারা তাদের চিহ্নিত করারও আহবান জানান।

সমাবেশ শেষে এক বিক্ষোভ মিছিল ডাক বাংলো চত্তর থেকে শুরু হয়ে সদরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে বড় মাদ্রাসার সামনে এসে শেষ হয়।

Print Friendly, PDF & Email

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
চট্টগ্রাম বিভাগের সর্বশেষ
চট্টগ্রাম বিভাগের আলোচিত
ওপরে