৩০শে মে, ২০২০ ইং ১৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
একটি সিট বাদ দিয়ে ট্রেনের টিকিট বিক্রি হবে : রেলমন্ত্রী নওগাঁর পত্নীতলায় সড়ক দুর্ঘটনায় দুই ভাইয়ের মৃ’ত্যু রাণীনগরে গভীর রাতে ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হ’ত্যা নটরাজ হুমায়ুন ফরিদীর জন্মদিন আজ ‘চোর’ বলে প্রকাশ্যে পেটানোর অভিযোগে চেয়ারম্যান’র...

কালাইয়ে আ.লীগের দু”পক্ষের সংঘর্ষে ঘটনায় ইউপি চেয়ারম্যানসহ ৪৭ জনের নামে মামলা,আটক ১

 রনি আকন্দ, কালাই ,জয়পুরহাট; সমকালনিউজ২৪

জয়পুরহাটের কালাই উপজেলার উদয়পুর ইউনিয়নের মোসলেমগঞ্জ বাজারে গত শনিবার রাত প্রায় ১১ টার আ.লীগের দুই গ্রুপে সংঘর্ষে ঘটনায় কালাই থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের হয়েছে।

এই মামলার আসামী হিসেবে উপজেলার পুর্ব-কৃষ্টপুর গ্রামের মো. রমজান আলীর ছেলে ওমর আলী (৫৫) নামে এক আসামিকে কালাই থানা পুলিশ গ্রেফতার করেছেন।

কালাই থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) সুমন কুমার রায় বলেন, উপজেলার উদয়পুর ইউনিয়নের মোসলেমগঞ্জ বাজারে গত শনিবার রাতে আ.লীগের দুই গ্রুপে সংঘর্ষের ঘটনায় উপজেলার পুনট মোন্না পাড়ার মৃত. আবদুস সামাদ সরদারের ছেলে আফতাব সরকার (৫৫) এবং পুনট মাইশ্বা পাড়ার শ্রী চারু মোহন্তের ছেলে রতন মোহন্ত (৪৮) নিহত হয়। এই ঘটনায় নিহত আফতাব সরকারের ছেলে গোলাম রব্বানি বাদী হয়ে গতকাল ররিবার রাত ১০টার দিকে কালাই থানা একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন যা মামলা নং-১৮।

এই মামলায় জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও মাত্রাই ইউনিয়ান পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান আ. ন. ম. শওকত হাবিব তালুকদার লজিক এবং উদয়পুর ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ইউ’পি চেয়ারম্যান ওয়াজেদ আলী দাদাসহ ৪৭ জনের নাম দিয়ে এবং আরও ১৫০ থেকে ২০০ জন অজ্ঞাতনামা ব্যাক্তিকে আসামি করে কালাই থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। তিনি আরও বলেন, উপজেলার মোসলেমগঞ্জ বাজার থেকে হত্যাকান্ডের আসামি উদয়পুর ইউনিয়নের পুর্ব-কৃষ্টপুর গ্রামের রমজান আলীর পুত্র ওমর আলীকে (৫৫) গ্রেফতার করা হয়েছে।

উল্লেখ,জয়পুরহাটের কালাই উপজেলার উদয়পুর ইউনিয়নের মোসলেমগঞ্জ বাজারে আ.লীগের দুই গ্রুপে সংঘর্ষে দুইজন নিহত ও আহত হয়েছে অন্তত ৬ জন। গত শনিবার রাত প্রায় ১১ টার এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন-কালাই উপজেলার পুনট মোন্না পাড়ার মৃত. আবদুস সামাদ সরদারের ছেলে আফতাব সরকার (৫৫) এবং পুনট মাইশ্বা পাড়ার শ্রী চারু মোহন্তের ছেলে শ্রী রতন মোহন্ত (৪৮) এবং আহতরা হলেন-কালাই উপজেলার দেওগ্রাম গ্রামের আবদুল রাজ্জাকের ছেলে রানা (৩৮), মান্দায় গ্রামের মৃত মোহাম্মদের ছেলে আবু মুসা (৪২), দুধাইল-নয়াপাড়া গ্রামের তোফাজ্জালের ছেলে বাইজিদ (৪৫),জগডুম্বর গ্রামের মোছলেম উদ্দিনের ছেলে মহসিন (৩৫), দুধাইল-নয়াপাড়া গ্রামের আব্বাস আলির ছেলে ছোবাহান (৪৭) ও পুনট-মধ্যেপাড়া গ্রামের মৃত ইদ্রিসের ছেলে নাছির সরদার (৪৩)।

গত ১০ মার্চ প্রথম ধাপে কালাই উপজেলা নির্বাচনের সময় জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও মাত্রাই ইউনিয়ান পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান আ.ন.ম.শওকত হাবিব তালুকদার লজিক আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন আর উদয়পুর ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ইউ’পি চেয়ারম্যান ওয়াজেদ আলী দাদার লজিকের সমর্থন করেছিলেন। পরে ওই নির্বাচনে কালাই উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন জেলা আ.লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মিনফুজুর রহমান মিলন নৌকা প্রতীকে জয়লাভ করে। এরপর থেকেই উদয়পুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ওয়াজেদ আলী দাদার নেতাকর্মীদের সাথে মিলনের নেতাকর্মীদের মধ্যে নির্বাচন পূর্ববর্তী বিরোধের জের ধরে প্রায় সময়ই তাদের মাঝে বাক বিতন্ডা ঘটে।

এরই ধারাবাহিকতায় শনিবার দিবাগত রাতে মোসলেমগঞ্জ বাজারে দুই পক্ষের কর্মী-সমর্থকদের সংঘর্ষে নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান মিনফুজুর রহমান মিলন গ্রুপের দুইজন নিহত ও অন্তত ৬জন আহত হয়। আহতদের কালাই, জয়পুরহাট ও বগুড়া শজিমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে ১১৩ রাউন্ড ফাকা গুলি ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এই ঘটনায় নিহতদের পরিবারে চলছে শোকের মাতন। অন্যদিকে স্বজন ও প্রতিবেশীরা এ ঘটনার সুষ্টু বিচার দাবী করেছে।

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
জয়পুরহাট বিভাগের সর্বশেষ
ওপরে