২৭শে জুন, ২০১৯ ইং ১৩ই আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
যেকোনো মূল্যে রিফাতের খুনিদের গ্রেফতারের নির্দেশ... রিফাত হত্যার ঘটনায় মর্মাহত হাইকোর্ট জানতে চান কি... স্বামীর খুনীর সঙ্গে স্ত্রীর ফুল হাতে ছবি ভাইরাল! বরগুনায় রিফাত হত্যা মামলায় গ্রেফতার – ১ কলারোয়া থানা পুলিশের অভিযানে ছয় ব্যক্তি আটক।

চট্টগ্রামের পতেঙ্গা থেকে লক্ষাধিক টাকা হাতিয়ে নিয়েছে প্রতারক লোকমান

  সমকাল নিউজ ২৪
চট্টগ্রামের পতেঙ্গা থেকে লক্ষাধিক টাকা হাতিয়ে নিয়েছে প্রতারক লোকমান

চট্টগ্রামের পতেঙ্গা চড়িহালদা থেকে মো.লোকমান নামের এক যুবক লাভের প্রলোভন দেখিয়ে সাধারণ মানুষ থেকে লক্ষাধিক টাকা হাতিয়ে নিয়েছে।

ভুক্তভোগীরা জনান লোকমান তাদের কে বড় আকারের লাভ দেওয়ার আশ্বাস দিলে তারা তাকে টাকা দেয় । মূলত লোকমান ওই এলাকায় অনেক দিন যাবত বাসবাস করে আসছিল। এলাকাবাসীর সাথে কথা বলে জানা যায় লোকমান প্রথমে জসিম সওদাগরের মুরগির দোকানে দীর্ঘদিন কর্মচারী হিসেবে কাজ করে পরে প্রান কোম্পানীর সেলস ম্যান হিসেবে অনেক দিন চাকুরী করে।

বিশেষ সূত্রে জানা যায় সে বকতিয়ার নামের চড়িহালদার এক ছেলের এস. এস. সি সার্টফিকেট ব্যবহার করে প্রানের এরিয়া সেলস ম্যানেজার হিসেবে কাজ শুরু করে এবং এক পর্যায়ে তার এ সার্টফিকেট জালিয়াতির কারণে চাকুরীচ্যুত হয়। পরবর্তীতে অন্য একটা কোম্পানীতে আবারো সেলস ম্যান হিসেব কাজ নিয়ে মানুষের কাছ থেকে নতুন কোম্পানিতে টাকা লাভে ইনভেস্ট করে প্রচুর লাভের আশা দেখিয়ে সাধারণ মানুষেপ সাথে প্রতারনা করে টাকা হাতিয়ে নিয়ে পালিয়ে যায়। এছাড়া ও সে মেসাস আব্দুল মাবুদ স্টোর, মা ইলেক্ট্রনিক্স সহ আরো অনেক দোকান থেকে পণ্য ক্রয় করে টাকা না দিয়ে চলে যায়। মাবুদ সওদাগর জানান তিনি পণ্য বিক্রয় বাবদ লোকমান থেকে টাকা পান কিন্তু তিনি লোকমানের মোবাইলে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলে লোকমান তার কল দরে নাই। উক্ত এলাকর ব্যবসায়ী কুদ্দুস জানায় লোকমান ৩০ হাজার টাকার পন্য তাকে কম দামে দেওয়ার কথা বলে তার কাছ থেকে ১৫ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয়েছে। মা ইলেক্টনিক্স এর মালিক আলাউদ্দিন জানায় লোকমান তার দোকান থেখে ইলেক্ট্রনিক্স পন্য ক্রয় করে টাকা বকেয়া রাখে এবং পালিয়ে যায়।

পরবর্তীতে তাকে চট্টগ্রামে বন্দর টিলা বি.কে টিভি এবং কালের ছবি নামক পত্রিকার অফিসে দেখা যায়। এ ব্যাপারে কালের ছবি এর চট্টগ্রামের বুর‌্যো প্রধানের সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করলে তিনি তার অফিসে লোকমানের আশা যাওয়ার কথা শিকার করেন । লোকমান তাদের সাথে কাজ করে কিনা জানতে চাইলে তিনি জানান লোকমান তাদের সাথে কাজ করে না । এ ব্যাপারে লোকমানের সাথে মোবাইলে অনেকবার চেষ্টা করে যোগাযোগ করতে সক্ষম হলে সে জানায় যে সে গোলাম মোস্তাফা তালুকদারের সাথে সাংবাদিকতার কাজ করে । এলাকার মানুষ জানায় লোকমান অষ্টম শ্রেনী ও পাশ করে নাই।

Print Friendly, PDF & Email

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
চট্টগ্রাম বিভাগ বিভাগের সর্বশেষ
চট্টগ্রাম বিভাগ বিভাগের আলোচিত
ওপরে