২৩শে মে, ২০১৯ ইং ৯ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
বগুড়ায় রাজনীতির শিকার বাসভবন মোদীর গুজরাটে বেহাল দশা, ৬৩টিতে একজনও পাশ করল না! টানা তৃতীয়বারের জয়ে পশ্চিমবঙ্গের মসনদে মমতা গাড়ি চালিয়ে বড় ভাই রাহুল গান্ধীর বাড়িতে প্রিয়াঙ্কা লোকসভা নির্বাচনে জয়ের সুবাতাস পাচ্ছেন বিজেপির গম্ভীর

চাঁদপুরের মেঘনায় জাটকা রক্ষার অভিযানে কোন জাল বা জেলেকে আটক করতে পারেনি টাস্কফোর্স।

 নজরুল ইসলাম,চাঁদপুর প্রতিনিধি। সমকাল নিউজ ২৪

চাঁদপুরের মেঘনা নদীর অভয়াশ্রমের তৃতীয় দিনে জাটকা রক্ষায় সাড়াশি অভিযান চালান জেলা টাস্কফোর্সের কর্মকর্তা বৃন্দ। রোববার ৩মার্চ বিকেল থেকে সন্ধা পর্যন্ত জেলা প্রশাসক মো. মাজেদুর রহমানারে নেতৃত্বে মেঘনা মোহনা থেকে সদর উপজেলার সফরমালী পর্যন্ত নদীতে জাটকা রক্ষায় টাস্কাফোর্সের টহল অভিযান পরিচালিত হয়। টহলরত অস্থায় নদীতে কোন জাল বা জেলেকে আটক করতে পারেনি টাস্কফোর্স।

এ সময় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান, এনএসআই এর সহকারী পরিচালক এবিএম ফারুক, জেলা মৎস্য কর্মকর্তা আসাদুল বাকীসহ, কোস্ট গার্ড, বিজিবি, নৌ-পুলিশ ও মৎস অফিসের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সংশ্লিষ্ট সুত্রে জানা যায়, গত ১ মার্চ ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত দুই মাস চাঁদপুরের ষাটনাল থেকে লক্ষীপুরের চর আলেকজান্ডার পর্যন্ত একশ কিলোমিটার নদীতে সকল প্রকার মাছ ধরা নিষিদ্ধ করেছে সরকার। চাঁদপুরে মেঘনায় মাছ ধরার কাজে নিয়োজিত রয়েছে ৪৫ হাজার ৯শ ৭৮ জন জেলে। নিষেধাজ্ঞার এই সময়টাতে ৪১ হাজার ১শ ৮৯ জন ইলিশ জেলেকে ৪০ কেজি করে ৪ মাস চাল দেয়া হবে।

এ ব্যাপারে চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক মো. মাজেদুর রহমান খান এ প্রতিনিধিকে বলেন, মেঘনা নদীর অভয়াশ্রমের দুই মাস নদীতে কেউ মাছ শিকার করতে পারবে না। এসময় নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে কেউ নদীতে নামলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। জেলেদের সহযোগিতা পেলে জাটকা মাছ বড় হওয়ার সুযোগ পাবে। দেশের এই সম্পদ রক্ষার সহযোগীতা কামনা করছি।

Print Friendly, PDF & Email

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
চাঁদপুর বিভাগের সর্বশেষ
চাঁদপুর বিভাগের আলোচিত
ওপরে