৭ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং ২২শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
ছাতকে আ.লীগের দু’গ্রুপ মুখোমুখি, ১৪৪ ধারা জারি কলাপাড়া ভূমি দস্যুদের বিরুদ্ধে অধিগ্রহনে... প্রবাসীর বৃদ্ধা মা ও ভগ্নিপতি সহ তিনজনের লা’শ... কোম্পানীগঞ্জের বসুরহাট মা ও শিশু হাসপাতালে ভুল... চিলমারী ভাসমান তেল ডিপোটি পুটিমারী এলাকায়...

চাঁদপুরে ৪৫ জন ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত; আতঙ্ক  চাঁদপুরবাসী

 নজরুল ইসলাম,চাঁদপুর, সমকালনিউজ২৪

চাঁদপুর জেলাশহর ও আশপাশের উপজেলাগুলোয় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ৪৫ জন ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়েছে। এসব রোগী চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। ফলে জেলাশহরের লোকজনের মাঝে ডেঙ্গু জ্বরের আতঙ্ক বিরাজ করছে। চিকিৎসক সূত্রে জানা যায়, ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত রোগীর ৮৫ ভাগ রোগীই ঢাকা থেকে আক্রান্ত হয়ে এ হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, গত তিন সপ্তাহে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে ৪৫ ব্যক্তি এ হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। তাদের মধ্যে ১০ জন এখনো হাসপাতালটিতে চিকিৎসাধীন। বাকিরা সেখান থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। চিকিৎসাধীন দশ রোগীরা হলেন সাদিয়া বিনতে , নাজমুল হুদা, শরিফ হোসেন , তানভীর হোসেন , ফাহিম , সুলতান আহমেদ , সুইটি আক্তার , তন্নী আক্তার, লক্ষণ ও সাদিয়া আক্তার । এ সকল রোগীদের বাড়ি যথাক্রমে চাঁদপুর শহর, ফরিদগঞ্জ, হাইমচর, হাজীগঞ্জ ও শাহরাস্তি উপজেলায়।

গত শনিবার সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, হাসপাতালের কয়েকটি কক্ষে আলাদা করে মশারি টানিয়ে ডেঙ্গু রোগীদের চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। প্রতি কক্ষে তিন-চারজন করে রোগী রয়েছে। চিকিৎসক ও সেবিকারা কিছুক্ষণ পর পর এসে রোগীদের দেখভাল করছেন। কয়েকজন রোগীর অবস্থা উন্নতির দিকে। ডাক্তারাও খোঁজ খবর নিচ্ছেন কিছুক্ষন পরপর।

চাঁদপুর শহরের গুয়াখোলা এলাকার বাসিন্দা লক্ষণ সরকার এবং ফরিদগঞ্জ উপজেলার নাজমুল হুদা ও শরিফ হোসেন বলেন, গত বৃহস্পতিবার (২৫ জুলাই) শরীরে প্রচন্ড জ্বর নিয়ে এ হাসপাতালে ভর্তি হন। পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর জানতে পারেন তাঁরা ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত। পারিবারিক প্রয়োজনে দু-তিন দিন আগে তাঁরা ঢাকায় গিয়েছিলেন। সম্ভবত সেখানেই তাঁদের এডিস মশা কামড়ায়। এতে তাঁরা ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হন।

তাঁরা আরও বলেন, হাসপাতালের চিকিৎসকেরা তাঁদের প্যারাসিটামল বড়ি, ডাবের পানি ও শরবত খেতে দিয়েছেন। এখনো শরীর খুব দুর্বল লাগছে। চিকিৎসকেরা সার্বক্ষণিক তাঁদের খোঁজখবর রাখছেন বলেও জানান তাঁরা। ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হলে শরীরের পানি, রক্তচাপ ও রক্তের প্লাটিলেট দ্রুত কমে যায়।

এজন্য আক্রান্ত রোগীদের প্রাথমিকভাবে প্যারাসিটামল বড়ি, ডাবের পানি, শরবত ও অন্যান্য তরল জাতীয় খাবার দেওয়া হচ্ছে। আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসার জন্য তাঁর হাসপাতালে আলাদা একটি ইউনিট খোলা হয়েছে। সেখানেই তাঁদের চিকিৎসা চলছে। ডেঙ্গু জ্বর হলে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। জ্বর হওয়া মাত্রই দ্রুত নিকটতম হাসপাতালে রোগীকে ভর্তি করাতে হবে। বাসা বা বাড়ির আশপাশ পরিস্কার রাখলে, মশারি খাটিয়ে শুইলে এবং এ ব্যাপারে সচেতন থাকলে ওই রোগ প্রতিরোধ সম্ভব।

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
চাঁদপুর বিভাগের সর্বশেষ
চাঁদপুর বিভাগের আলোচিত
ওপরে