২২শে মে, ২০১৯ ইং ৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
আখাউড়ায় আইনমন্ত্রীর নিজস্ব অর্থায়নে ইফতার মাহফিল... রংধনু শপিং লিমিটেড এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক বাবলু ৫০ কোটি... চাঁদপুরের কৃতি সন্তান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জসিম... চাঁদপুরে কেরোসিনের আগুনে নববধূর মৃত্যু : আটক স্বামী। পত্নীতলায় মালঞ্চ কিন্ডার গার্টেন এন্ড হাইস্কুলের...

জৈন্তাপুরে ফিসারী থেকে শিশুর মৃতদেহ উদ্ধার পিতার হাতে ১১মাসের শিশু সন্তান খুন

 শোয়েব উদ্দিন,জৈন্তাপুর,সিলেট সমকাল নিউজ ২৪

জৈন্তাপুর উপজেলার ফিসারী থেকে উদ্ধার হওয়া মৃত শিশুর পরিচয় সনাক্ত করে পাষন্ড পিতাকে আটক করেছে জৈন্তাপুর মডেল থানা পুলিশ। আটক পাষন্ড পিতা দেলোয়ারকে আদালতে প্রেরণ।

নিহত শিশু সিলেট শাহপরান থানার খাদিমনগর রুস্তুমপুর নাদিয়া ভিলার বাসিন্ধা। সিলেট ফুলকলি লিঃ এর কারিগর সহকারী মো. দেলোয়ার হোসেন ও বিলকিছ বেগমের ছেলে মো. মুরসালিন (১১ মাস)।

শনিবার (২০ এপ্রিল) শিশুর মা বিলকিছ বেগম জৈন্তাপুর মডেল থানায় হাজির হয়ে স্বামী দেলোয়ারের বিরুদ্ধে শিশু হত্যার দায়ে মামলা করেন। যাহার নং-১৬, তারিখ ২০-০৪-২০১৯ ইং

জৈন্তাপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খান মোঃ মইনুল জাকিরের সার্বিক নির্দেশনায় প্রযুক্তির সহযোগিতায় এস.আই মোঃ আজিজুর রহমানের নেতৃত্বে নোয়াখালী বিভাগের লক্ষীপুর জেলা থেকে পাষন্ড পিতা দেলোয়ার হোসেন কে আটক করতে সক্ষম হয়। আটককৃত দেলোয়ার কে রাতের মধ্যেই সিলেটের জৈন্তাপুর মডেল থানায় নিয়ে আসা হয়। পুলিশ প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে নিজের শিশু হত্যার দায় স্বীকার করায় গতকাল ২১ এপ্রিল রবিবার দুপুর ১২টায় বিশেষ নিরাপত্তায় আদালতে প্রেরণ করা হয়।

প্রসঙ্গ- গত ১৯ এপ্রিল (শুক্রবার) সকাল সাড়ে ১০ টায় জৈন্তাপুর উপজেলা ফতেপুর ইউনিয়নের সিলেট-তামাবিল মহাসড়কের পাখিটিখি নামক স্থানে ফিসারী থেকে এই শিশুর (ছেলে) মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। উদ্ধারকৃত শিশুর ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পোষ্ট হওয়ার পর বেরিয়ে আসে শিশুর পরিচয়। সংবাদ পেয়ে শিশুটির মা বিলকিছ বেগম ছুটে যায় সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ মর্গে। সেখানে উদ্ধার হওয়া শিশুটি নিজের শিশু বলে সনাক্ত করেন তিনি। মামলা দায়ের কয়েক ঘন্টার মধ্যেই পাষন্ড পিতাকে তার গ্রামের বাড়ী শাকচর থেকে আটক করা হয়।

এদিকে উদ্ধার হওয়া শিশুর মা বিলকিছ বেগম জানান, তারা লক্ষীপুর জেলার লক্ষীপুর থানার শাকচর গ্রামের বাসিন্ধা। স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে পারিবারিক বিষয় নিয়ে ৩ মাস পূর্বে বাকবিতন্ডা হয় এবং বিষয়টি এক পর্যায় মীমাংশা হয়।

অপরদিকে বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) হঠাৎ করে বিলকিছ বেগমের স্বামী ১১মাস বয়সী মুরসালিনকে নিয়ে নিরুদ্দেশ হয়। বিষয়টি শিশুর মা বিলকিছ বেগম লক্ষীপুর পরিবারের সদস্যদের মোবাইল ফোনে জানান। ১৯ এপ্রিল দুপুরে প্রতিবেশি মারফত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শিশুর ছবি দেখতে পান। মৃত ছেলেকে দেখে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন বিলকিছ। নাদিয়া ভিলার বাসিন্ধারা বিলকিছ বেগমের পরিবারের সদস্যদের বিষয়টি অবহিত করেলে পরিবারের সদস্যরা জৈন্তাপুর মডেল থানায় যোগাযোগ করেন।

এবিষয়ে জৈন্তাপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ খান মোঃ মইনুল জাকির বলেন- তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় এবং আমার সার্বিক দিক নির্দেশনায় ঘাতক পিতাকে আটক করতে সক্ষম হয়েছি। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে নিজের ১১মাস বয়সী সন্তানকে হত্যার দায় স্বীকার করায় ১৬৪ধারায় আসামীর বক্তব্য রেকর্ডের জন্য বিজ্ঞ আদালতে হাজির করা হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
সিলেট বিভাগের সর্বশেষ
সিলেট বিভাগের আলোচিত
ওপরে