১৬ই অক্টোবর, ২০১৯ ইং ১লা কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
ঝালকাঠিতে ৫ম শ্রেনীর ছাত্রীকে যৌ’ন নিপড়ন, দিনে থানায়... স্ত্রীর মর্যাদা না পেয়ে স্বামীর বাড়িতে কাবিননামা... জয়নগর ইউনিয়ন আওয়ামিলীগের ত্রি-বার্ষিক কাউন্সিলের... নওগাঁয় হাসপাতাল থেকে চুরি যাওয়া শিশু ১১দিন পর উ’দ্ধার আবরার হ’ত্যার ন্যয়বিচারের দাবীতে চাঁদপুরে মানববন্ধন...

জৈন্তাপুর উপজেলা নির্বাহী বরাবরে ব্যবসায়ীদের স্মারকলিপি

 শোয়েব উদ্দিন,জৈন্তাপুর সমকালনিউজ২৪

জৈন্তাপুর ষ্টেশন বাজার ব্যবসায়ী সমিতির উদ্যোগে ব্যবসায়ীদের বিভিন্ন সমস্যার সমাধান ও এর প্রতিকার চেয়ে ভ্রাম্যমান আদালত কর্তৃক অহেতুক ব্যবসায়ী বৃন্দদের হয়রানী না করা, বাজার রোড যানযট মুক্ত ,ফুটপাত উচ্ছেদ করার লক্ষ্য (২১ মার্চ) বৃহস্পতিবার স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।

স্মারকলিপি প্রদানে উপস্থিত ছিলেন জৈন্তাপুর ষ্টেশন বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আমিনুল ইসলাম সোহেল, সাবেক সভাপতি আমিরুল আলম, সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম, সাবেক সাধারন সম্পাদক বদরুদ্দিন আহমদ পারভেজ, সহ-সভাপতি মামুনুর রশিদ মামুন, অর্থ সম্পাদক সাব্বির আহমদ, ইউপি সদস্য হুমায়ুন কবির খান, পূর্ব বাজার ব্যবসায়ী সমতির সভাপতি কাজী খলিল উল্লাহ, সেক্রেটারি সুলায়মান কবির, ঈসমাইল মিয়া রিপন, কামাল আহমদ, কাদির, ফরিদ আহমদ লাভলু, কৃষ্ণ চরন দাস, বশির উদ্দিন, প্রতাবদেব, মোঃ মাসুক মিয়া, মোঃ বদরুল ইসলাম, নজরুল ইসলাম, মোঃ ইসরাফিল আলম প্রমুখ।

এ সময় ষ্টেশন বাজার ব্যবসায়ীরা বলেন, আমাদের সমিতির আওতাভূক্ত এলাকায় ১৫দিনের মধ্যে এসকল ফুটপাত দখল মুক্ত করব এবং বিভিন্ন খাবর হোটেল সমুহের ব্যবসায়ীরা তাদের নীতিমালা মোতাবেক ব্যবসা পরিচালনা করা এবং ফুটপাত দখল ত্যাগ করবেন বলে আশ্বস্ত করেন। এছাড়া ষ্টেশন বাজার হতে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স রোড, শহীদ মিনার হতে স্কুল রোড অবৈধ ভাবে পার্কিং করে রাখা গাড়ী অপসারনের জন্য প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ব্যবসায়ীদের জানান- আপনারা সচেতন হলে এবং ব্যবসায়ীক নীতিমালা মোতাবেক ব্যবসা বানিজ্য পরিচালনা করলে মোবাইল কোর্ট পরিচালনার প্রয়োজন পড়ে না। নীতিমালা অমান্য করে অনেক ব্যবসায়ীরা নিজেদের দোকানের এরিয়া ছেড়ে ফুট-পাত দখল জনসাধারনের চলাচলের প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে মালামাল রেখে ব্যবসা বানিজ্য পরিচালনার কারনে আমরা যানঝট নিরসনে ৩ মাস কিংবা ৬ মাস পর পর এক একটি অভিযান পরিচালনা করে তাকি।

তারপরও আমরা কোন ব্যবসায়ীকে অহেতুক হয়রানী বা জরিমানা করি না। আপনারা নিজেদের প্রতিষ্ঠান সুষ্ট ভাবে পরিচালনা করে থাকেন তাহলে আমাদের ভ্রাম্যমান আদালতের পরিচালনা করার দরকার পড়ে না।রোড দুটির যানযট নিরসনে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহন করা হবে। মোবাইল কোর্ট পরিচালনায় যাহাতে অহেতুক হয়রানীর স্বীকার না হন সে দিকে নজর দেয়া হবে।

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
সিলেট বিভাগের আলোচিত
ওপরে