১৭ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং ২রা আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
ঝালকাঠিতে নদী ভাঙ্গনের কবলে দোকনঘর নদীগর্ভে ফেরি... বগুড়ায় বিএনপি’র আহ্বায়ক কমিটির পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত মাদ্রিদে বাংলাদেশী মালিকানাধীন ভূঁইয়া মনি... এক নজরে বরগুনা পৌরসভা ১০ টাকা কেজি দরে চাল বিতরণ কর্মসূচী মোগলগাঁও ইউনিয়নে...

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে ইউপি মেম্বার আদিলের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন

 মোহাম্মদ মোজাম্মেল হক, সমকালনিউজ২৪

টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার ১০ নং গোড়াই ইউনিয়ন পরিষদের ওয়ার্ড মেম্বার মো. আদিদুল রহমান আদিল খান(৪৫) বিরুদ্ধে ৩০ লাখ চাঁদা দাবী ও কয়েক কোটি টাকার ভুমি দখলের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ভুক্তভোগী পরিবার আজ শুক্রবার দুপুরে মির্জাপুর রিপোর্টার্স ইউনিটিতে আদিল খান গংদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্ত মুলক শাস্তির দাবীতে সংবাদ সম্মেলন করেছেন। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করে ভুক্তভোগি আবু আহমেদ খান পিন্টু।

সংবাদ সম্মেলনে আবু আহমেদ খান পিন্টু লিখিত অভিযোগে বলেন, আমি প্যারালাইসিসে আক্রান্ত রোগী। ঠিকমত হাটতে ও কথা বলতে পানিরা। গোড়াই মইননগর মৌজায় ১৬৬৫ দাগের ৯২৩ খতিয়ানের ৫২৩ শতাংশ ভূমির পৈত্রিক সুত্রে, দলিল ক্রয় সুত্রে মালিক। যুগ যুগ ধরে আমরা এই জমি ভোগ দখল করে আসছি। এলাকার ভুমিদস্যু ও চাঁদাবাজ ইউপি মেম্বার আদিল খান ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী এই জমির উপর তাদের কিছু জমি রয়েছে দাবী করে ৩০ লাখ টাকা চাঁদা দাবী করে দখলের চেষ্টা করে। ঘটনাটি আমরা মির্জাপুর থানা পুলিশ ও টাঙ্গাইল জেলা পুলিশ সুপারের নিকট লিখিত অভিযোগ করি আদিল গংদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য। উভয় পক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে চারজন জন আইনজীবি এলাকায় শান্তির লক্ষে উক্ত ভূমির মিমাংশা প্রতিবেদন জেলা পুলিশ সুপারের নিকট দাখিল করেছেন। আইনজীবিদের মিমাংশপত্র উপেক্ষা করে ও লিখিত অভিযোগ দেওয়ার পর থেকেই আদিল খান ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী আমাদের জমি থেকে উচ্ছেদ করে জমি দখলের চেষ্টা করছেন। শুধু তাই নয় জমি না দিলে তাদের ৩০ লাখ টাকা চাঁদা দিতে হবে হুমকি দিয়েছে। এখন আমি ও আমার পরিবার আদিল বাহিনীর হুমকিতে চরম নিরাপত্তা হীনতায় ভুগছি। ভুমি দস্যু ও চাঁদাবাজ আদিল খান গংদের অবিলক্ষে গ্রেফতার এবং দৃষ্টান্ত মুলক শাস্তির দাবী জানাচ্ছি। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, আবু আহমে আহমেদ পিন্টুর স্ত্রী ফাতেমা আক্তার লাখী, ফাহিম ফয়সাল খান পুত্র, কন্যা প্রিয়াংকা খানম, প্রতিবেশী সোহেল প্রমুখ।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত মো. মেম্বার আদিলুর রহমান খান আদিলের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমি ৩০ লাখ টাকা চাঁদা দাবী করিনি। বিভিন্ন অভিযোগ তিনি অস্বীকার করেন।

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
টাঙ্গাইল বিভাগের সর্বশেষ
টাঙ্গাইল বিভাগের আলোচিত
ওপরে