২৫শে মার্চ, ২০১৯ ইং ১১ই চৈত্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
ঠাকুরগাঁওয়ে ভুল অপারেশনে প্রাণ গেল তৃতীয় শ্রেণীর... স্বাধীনতা যুদ্ধে বীর শহীদের স্বরনে মোংলা ইপিজেড কর্তৃক... ডিনস এ্যাওয়ার্ড পেলেন রাবির দুই শিক্ষক রাবিতে পাঁচ দিনব্যাপী শিল্পকর্ম প্রদর্শনী শুরু যশোরের বেনাপোল সীমান্তে ভারতীয় চাপাতা সহ আটক-১

ঠাকুরগাঁওয়ে ভাঙ্গা হচ্ছে মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিমাখা লোহার ব্রীজ, জনমনে ক্ষোভ।

 মোঃ ইলিয়াস আলী, নিজস্ব প্রতিবেদক। সমকাল নিউজ ২৪

ঠাকুরগাঁও শহরে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বলতে শেষ চিহ্ন ছিল টাঙ্গন লোহার সেতু। সেই ইতিহাস জড়িত স্মৃতি ভেঙে ফেলা হচ্ছে। এতে মানুষের মাঝে দেখা দিয়েছে ক্ষোভ।

সঠিক তথ্য জানা না গেলেও প্রবীণদের মতে, ব্রিটিশ শাসনামলে টাঙ্গন সেতুটি নির্মাণ করা হয়েছিল। সে সময় ঠাকুরগাঁও মহকুমার সঙ্গে অন্য এলাকার যোগাযোগের একটি মাত্র রাস্তা ছিল বলে ওই লোহার সেতুর ওপরে প্রচণ্ড চাপ পড়ে। এতে অল্প সময়ের মধ্যেই সেতুটি নড়বড়ে হয়ে পড়ে। ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী মুক্তিযোদ্ধাদের নদী পারে বাধা তৈরি করতে সেতুটি বোমা মেরে উড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা করে। বোমার আঘাতে সেতুটি সম্পূর্ণ ধ্বংস না হয়ে আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়। পরবর্তী সময়ে বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর ক্ষতিগ্রস্ত অংশটুকু মেরামত করে চলাচলের উপযোগী করে তোলা হয়।

আজ বিকেলে গিয়ে দেখা যায় ব্রীজটির উত্তর প্রান্তে উপরের পাটাতন তুলে ফেলছিল কিছু শ্রমিক । জানা গেছে, এলজিইডি এই ব্রীজটি ভেঙে একটি আরসিসি গার্ডার ব্রীজ করবে। ব্রীজ ভাঙ্গার কাজ চলছে মর্মে জেলা পরিষদের একটি নোটিশ দেখা যায় সেখানে।

তবে সংশ্লিষ্ট কারও সাথে আজ যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

এদিকে ব্রীজ ভাঙ্গার ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে প্রতিবাদ জানাতে থাকেন ঠাকুরগাঁওয়ের বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ।

এ বিষয়ে শিক্ষাবিদ মনতোষ কুমার দে বলেন, এসব সিদ্ধান্ত কারা নেয় বুঝিনা। এই একটি মাত্র চিহ্ন হারিয়ে গেলে এই শহরে মুক্তিযুদ্ধের তেমন কোন স্মৃতিচিহ্ন থাকবেনা। দ্রুত এই সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসে বিকল্প ভাবা প্রয়োজন।

Print Friendly, PDF & Email

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
ঠাকুরগাঁও বিভাগের আলোচিত
ওপরে