২১শে এপ্রিল, ২০১৯ ইং ৮ই বৈশাখ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
আমি চাইলে নিশ্চয় দোষের হবে না বিমানের টয়লেটে মিলল ১৪ কেজি সোনা পিরোজপুরের নাজিরপুরে শেখ হাসিনা সেতুর উদ্বোধন করলেন... রাজাপুর ভিজিডি কার্ড বিতরণে দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগ স্কুলছাত্রী নিপাকে কৃত্রিম পা লাগাতে নেয়া হবে বিদেশে

ঢোল বাজিয়ে প্রবাসীর বাড়িতে হামলা

 অনলাইন ডেস্কঃ সমকাল নিউজ ২৪
সিলেট নগরীতে দিনদুপুরে ‘জয় বাংলা’ স্লোগানের পাশাপাশি ঢোল বাজিয়ে আশপাশের মানুষকে বিভ্রান্ত করে প্রবাসীর বাড়িতে হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে। বৃহস্পতিবার দুপুর ২টার দিকে নগরীর দর্জিপাড়ার সৌরভ ৪৩নং বাসায় হামলা ও ভাঙচুরের পাশাপাশি লুটপাট চালানো হয়। একপর্যায়ে হামলাকারীরা গুলি ও ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে আতঙ্কের সৃষ্টি করে বলে জানান বাসার মালিক আমেরিকা প্রবাসী শাহ আব্দুল মতলিব কোরেশী। দীর্ঘদিন ধরে চলে আসা জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে স্থানীয় এনাম উদ্দিনের নেতৃত্বে এই হামলা চালানো হয় বলে অভিযোগ করেন তিনি। হামলাকারীরা বাসা থেকে সোনা, নগদ টাকা, মোবাইল, ল্যাপটপ নিয়ে গেছে বলেও জানান প্রবাসী কোরেশী। হামলার বিষয়ে জানতে এনাম উদ্দিনের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি। হামলাকালে ওই বাড়িতে ব্যপক ভাঙচুর চালানো হয় -সমকাল স্থানীয়রা জানায়, হামলাকারীরা মালিক কোরেশীকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করতে চাইলে ভাগিনা সাদ উদ্দিন এগিয়ে যান। এ সময় পিঠে আঘাত পান সাদ। তাকে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। হামলার সময় আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে ইদ্রিস নামে এক হামলাকারীকে আটক করে পুলিশে দিয়েছে। মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (গণমাধ্যম) জেদান আল মুসা বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, হামলার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেছে। প্রবাসী কোরেশী জানান, গত জানুয়ারি মাসে ছেলের বিয়ে শেষে তিনি আমেরিকা যাওয়ার পর গত ১৪ মার্চ মেয়েকে নিয়ে আবারও দেশে আসেন। পরে বৃহস্পতিবার দুপুরে গুলি ছুঁড়ে ও ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে এনামের নেতৃত্বে ১০-১২ জন তার বাসায় হামলা চালায়। এ সময় তারা ১৫ ভরি সোনা, ৮টি মোবাইল ফোন সেট, দুটি ল্যাপটপ, নগদ ৮০ হাজার টাকা ও পার্শ্ববর্তী কেয়ারটেকারের বাসার ২টি মোবাইল ফোন সেট নিয়ে যায়। তিনি জানান, প্রতিবেশী এনামের সঙ্গে জমিজমা নিয়ে তার দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে। এ নিয়ে আদালতে মামলাও চলছে। এলাকাবাসী জানায়, বৃহস্পতিবার হিন্দুদের ধর্মীয় উৎসব দোল পূর্ণিমা থাকায় প্রথমে ঢোলের শব্দ শুনে আশপাশের লোকজনের প্রায় সকলেই বিভ্রান্ত হয়েছিলেন। এ সময় উৎসাহী কেউ কেউ বাইরে বেরিয়ে মোটরসাইকেলে অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীদের দেখতে পান। এরপরই ‘জয় বাংলা’ স্লোগান দিয়ে অন্তত চার রাউন্ড গুলি ও ৫-৬টি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে প্রবাসী কোরেশীর বাসায় প্রবেশ করে সন্ত্রাসীরা। প্রবাসী কোরেশীর বাসার আশপাশে অবিস্ফোরিত আরও ৫টি ককটেল পড়ে থাকতে দেখেন এলাকাবাসী। এ অবস্থায় পুরো এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়লেও বাসার মানুষ ও আশপাশের কয়েকজন মিলে ইদ্রিস নামের এক হামলাকারীকে আটক করে ফেলেন। হামলাকালে ওই বাড়িতে ব্যাপক ভাঙচুর চালানো হয় -সমকাল স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর এসএম শওকত আমীন তৌহিদ সমকালকে বলেন, ঘটনার সময় সিটি করপোরেশনে এক সভায় ছিলাম। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে জানতে পেরেছি, এনাম উদ্দিন নামের একজনের নেতৃত্বে হামলা হয়েছে। প্রবাসীর বাসায় হামলার সময় ঢোল বাজানো হয়েছে। আশপাশের সবার মনোযোগ ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার জন্য হামলাকারীরা এমন করতে পারে বলে মন্তব্য করেন তিনি। কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ সেলিম মিয়া জানান, প্রবাসীর বাসায় ব্যাপক ভাঙচুর করা হয়েছে। তবে কিছু খোঁয়া গেছে কি-না, তা এখনই বলা যাচ্ছে না। পুলিশ তদন্ত করে দেখছে।

সিলেট নগরীতে দিনদুপুরে ‘জয় বাংলা’ স্লোগানের পাশাপাশি ঢোল বাজিয়ে আশপাশের মানুষকে বিভ্রান্ত করে প্রবাসীর বাড়িতে হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে।

বৃহস্পতিবার দুপুর ২টার দিকে নগরীর দর্জিপাড়ার সৌরভ ৪৩নং বাসায় হামলা ও ভাঙচুরের পাশাপাশি লুটপাট চালানো হয়।

একপর্যায়ে হামলাকারীরা গুলি ও ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে আতঙ্কের সৃষ্টি করে বলে জানান বাসার মালিক আমেরিকা প্রবাসী শাহ আব্দুল মতলিব কোরেশী। দীর্ঘদিন ধরে চলে আসা জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে স্থানীয় এনাম উদ্দিনের নেতৃত্বে এই হামলা চালানো হয় বলে অভিযোগ করেন তিনি। হামলাকারীরা বাসা থেকে সোনা, নগদ টাকা, মোবাইল, ল্যাপটপ নিয়ে গেছে বলেও জানান প্রবাসী কোরেশী।

হামলার বিষয়ে জানতে এনাম উদ্দিনের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

স্থানীয়রা জানায়, হামলাকারীরা মালিক কোরেশীকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করতে চাইলে ভাগিনা সাদ উদ্দিন এগিয়ে যান। এ সময় পিঠে আঘাত পান সাদ। তাকে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। হামলার সময় আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে ইদ্রিস নামে এক হামলাকারীকে আটক করে পুলিশে দিয়েছে।

মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (গণমাধ্যম) জেদান আল মুসা বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, হামলার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেছে।

প্রবাসী কোরেশী জানান, গত জানুয়ারি মাসে ছেলের বিয়ে শেষে তিনি আমেরিকা যাওয়ার পর গত ১৪ মার্চ মেয়েকে নিয়ে আবারও দেশে আসেন। পরে বৃহস্পতিবার দুপুরে গুলি ছুঁড়ে ও ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে এনামের নেতৃত্বে ১০-১২ জন তার বাসায় হামলা চালায়। এ সময় তারা ১৫ ভরি সোনা, ৮টি মোবাইল ফোন সেট, দুটি ল্যাপটপ, নগদ ৮০ হাজার টাকা ও পার্শ্ববর্তী কেয়ারটেকারের বাসার ২টি মোবাইল ফোন সেট নিয়ে যায়।

তিনি জানান, প্রতিবেশী এনামের সঙ্গে জমিজমা নিয়ে তার দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে। এ নিয়ে আদালতে মামলাও চলছে।

এলাকাবাসী জানায়, বৃহস্পতিবার হিন্দুদের ধর্মীয় উৎসব দোল পূর্ণিমা থাকায় প্রথমে ঢোলের শব্দ শুনে আশপাশের লোকজনের প্রায় সকলেই বিভ্রান্ত হয়েছিলেন। এ সময় উৎসাহী কেউ কেউ বাইরে বেরিয়ে মোটরসাইকেলে অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীদের দেখতে পান। এরপরই ‘জয় বাংলা’ স্লোগান দিয়ে অন্তত চার রাউন্ড গুলি ও ৫-৬টি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে প্রবাসী কোরেশীর বাসায় প্রবেশ করে সন্ত্রাসীরা। প্রবাসী কোরেশীর বাসার আশপাশে অবিস্ফোরিত আরও ৫টি ককটেল পড়ে থাকতে দেখেন এলাকাবাসী। এ অবস্থায় পুরো এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়লেও বাসার মানুষ ও আশপাশের কয়েকজন মিলে ইদ্রিস নামের এক হামলাকারীকে আটক করে ফেলেন।

স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর এসএম শওকত আমীন তৌহিদ বলেন, ঘটনার সময় সিটি করপোরেশনে এক সভায় ছিলাম। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে জানতে পেরেছি, এনাম উদ্দিন নামের একজনের নেতৃত্বে হামলা হয়েছে। প্রবাসীর বাসায় হামলার সময় ঢোল বাজানো হয়েছে। আশপাশের সবার মনোযোগ ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার জন্য হামলাকারীরা এমন করতে পারে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ সেলিম মিয়া জানান, প্রবাসীর বাসায় ব্যাপক ভাঙচুর করা হয়েছে। তবে কিছু খোঁয়া গেছে কি-না, তা এখনই বলা যাচ্ছে না। পুলিশ তদন্ত করে দেখছে।

Print Friendly, PDF & Email

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
সিলেট বিভাগের আলোচিত
ওপরে