১৪ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং ২৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
বাবুগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন... চাঁদপুরে আওয়ামী লীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে সভাপন্ড।... ছাতকে শ্রীপতিপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পরিচালনা... বালু উত্তোলনে ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে উঠেছে জাফলং সেতু বিরামপুরে ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস পালন

নলডাঙ্গা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আ’লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী আসাদ

  সমকালনিউজ২৪

নাজিম হাসান,রাজশাহী প্রতিনিধি:
নাটোর জেলার নলডাঙ্গা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগের চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন প্রত্যাশী সাবেক উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান আসাদ ব্যাপক গনসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন। আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচন ঘিরে তিনি উপজেলার পাঁচটি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভা এলাকার পাড়ায় মহল্লায় দিন রাত নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে গনসংযোগ করে যাচ্ছেন। জানা গেছে, গত ২০০৯ সালে তৃতীয় উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে নাটোর সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিপুল ভোটে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। তখন নলডাঙ্গা ছিল থানা। ২০১৩ সালে নলডাঙ্গা থানা কে উপজেলা হিসেবে ঘোষনা করা হয় এবং ২০১৪ সালে প্রথম উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলার প্রথম চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন বিএনপির অ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন। আ’লীগ প্রার্থী উপজেলা আ’লীগের সাধারন সম্পাদক এসএম ফিরোজ তখন বিপুল ভোটে পরাজিত হয়। এছাড়াও বিপ্রবেলঘরিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনেও ২০০৩ ও ২০১১ সালে এসএম ফিরোজ পরাজয় বরন করেন। দলীয় সূত্রে জানা যায়, আসন্ন শেষ ধাপের পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে নলডাঙ্গায় চেয়ারম্যান পদে তিনজনের নাম সুপারিশ করে কেন্দ্রে পাঠিয়েছেন জেলা কমিটি। তাদের মধ্যে রয়েছেন, উপজেলা আ’লীগের সাধারন সম্পাদক অধ্যাপক এসএম ফিরোজ, সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান আসাদ, খাজুরা ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারন সম্পাদক সোহরাব হোসেন। এছাড়াও সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে আরো কয়েকজনের নাম শোনা যাচ্ছে। এদিকে তরুন নেতা হিসেবে আসাদের জনপ্রিয়তা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে বলে জানা গেছে। এক সময়ে বিএনপির ঘাটি হিসেবে পরিচিত নলডাঙ্গা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যানের পদ আসাদই উদ্ধার করতে পারবেন বলে স্থানীয় নেতৃবৃন্দ মনে করেন। উপজেলা আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আমিনুল ইসলাম হাদু, নলডাঙ্গা পৌর আ’লীগ সভাপতি আলহাজ আয়ুব আলী মন্ডল, বিপ্রবেলঘরিয়া ইউনিয়ন আ’লীগ সভাপতি মোসাদ্দেকুল ইসলাম বাদশা, ইউপি চেয়ারম্যান জালাল উদ্দিন প্রামানিক, মাধণগর ইউপি আ’লীগ সাধারন সম্পাদক আফজাল হোসেনসহ অনেক নেতৃবৃন্দ চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে আসাদকেই যোগ্য প্রার্থী মনে করছেন বলে জানা যায়। অপরদিকে উপজেলা আ’লীগের সাধারন সম্পাদক অধ্যাপক এসএম ফিরোজ এর কলেজ সরকারীকরন ঘোষনা হওয়ায় তিনি প্রার্থী হতে পারবেন কিনা এ নিয়ে নানা গুঞ্জন শুরু হয়েছে। গত ২০১৮ সালের ১২আগষ্ট এ সংক্রান্ত গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের শিক্ষা মন্ত্রনালয় এক প্রজ্ঞাপন জারি করেন। যে প্রজ্ঞাপনে সরকারী কলেজের তালিকায় ২৭১টি কলেজের মধ্যে নাটোরের নলডাঙ্গা উপজেলার শহীদ নজমুল হক ডিগ্রি কলেজ অন্তর্ভূক্ত রয়েছে এবং ৮ আগষ্ট হতে সরকারী করা হয়েছে। ওই কলেজের শিক্ষক হওয়ার কারনে তার প্রার্থীতা নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছে। এক্ষেত্রে আসাদই হতে পারেন আ’লীগ মনোনিত চেয়ারম্যান প্রার্থী। এ ব্যাপারে আসাদুজ্জামান আসাদ জানান, কেন্দ্র মনোনয়ন দিলে নলডাঙ্গার সাধারন ভোটাররা আমাকে বিপুল ভোটে নির্বাচিত করবেন বলে আশাবাদি।

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
রাজশাহী বিভাগ বিভাগের সর্বশেষ
ওপরে