২১শে মে, ২০১৯ ইং ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
গাড়ি থেকে নেমে কৃষকের ধান কাটতে মাঠে নেমে গেলেন... রাজারহাটে নন এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো ক্রমশ বিলীন... আইসিসির দেওয়া ‘বিশেষ সুযোগ’ নিচ্ছে না বাংলাদেশ! হানিমুন থেকে ফিরেই শ্রাবন্তীর স্বামীর মাথায় হাত ! বহিষ্কার হয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা সেই ছাত্রলীগ নেত্রীর

পাকিস্তানে ভারতের বোমা হামলা

 অনলাইন ডেস্ক। সমকাল নিউজ ২৪

ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের পুলওয়ামায় সম্প্রতি আধা সামরিক বাহিনীর গাড়ি বহরের হামলায় হতাহতের ঘটনার বদলা নিতে পাকিস্তানে বোমা হামলা করেছে ভারত। পাক নিয়ন্ত্রীত কাশ্মীরে বিদ্রোহীদের ঘাঁটিতে মঙ্গলবার ভোর রাতে বোমা নিক্ষেপ করে ভারতীয় বিমান বাহিনী। খবর ভারতীয় সংবাদ সংস্থা এএনআই এর।

এএনআই জানিয়েছে, মঙ্গলবার ভোর রাতে নিয়ন্ত্রণরেখা পেরিয়ে পাক নিয়ন্ত্রীত কাশ্মীরের জঙ্গি ঘাঁটিতে হামলা চালিয়েছে ভারতীয় বিমান বাহিনীর সদস্যরা। ভারতীয় যুদ্ধবিমান মিরাজ টু থাউজেন্ডের এর সাহায্যে ভোর সাড়ে তিনটে নাগাদ ওই হামলা চালানো হয়েছে। মুজফফরাবাদ সেক্টরের সকল বিদ্রোহী ঘাঁটি সম্পূর্ণ ধ্বংস করে দেয়া হয়েছে বলে দাবি করেছে ভারতের বিমান বাহিনী। এতে মোট এক হাজার কেজি বোমা নিক্ষেপ করা হয়েছে।

পাকিস্তানে ভেতরে ঢুকে ভারতীয় বিমান বাহিনীর বোমা নিক্ষেপের কথা স্বীকার করেছেন পাকিস্তান আইএসপিআর এর পরিচালক মেজর আসিফ ঘাফুর৷ টুইটা বার্তায় তিনি জানান, পাকিস্তান সেনাদের যথাযথ পদক্ষেপের কারণে ভারতীয় বিমান পিছু হটেছে।

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি পুলওয়ামায় আধা সামরিক বাহিনী সিআরপিএফ এর গাড়ি বহরে বোমা হামলা চালায় বিদ্রোহীরা। এসময় চল্লিশ জন নিহত এবং বেশ কয়েক জন আহত হয়। এ ঘটনার দায় স্বীকার করে স্বাধীন কাশ্মীরের দাবিতে বিদ্রোহ করা জইশ-ই-মোহাম্মদ নামের সংগঠন।

এর সংগঠনকে সহযোগিতা করার দাবি করে এ হামলার দায় পাকিস্তানের ওপর চাপায় ভারত। এ নিয়ে দুই দেশের মধ্যে চরম উত্তেজনাপূর্ণ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। দুদেশের সীমান্তে যুদ্ধাবস্থা বিরাজ করছে। এরই মধ্যে সীমান্তবর্তী গ্রামগুলোর বাসিন্দাদের নিরাপদ আশ্রয়ে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছে ভারত ও পাকিস্তান।

এর আগে ২০১৬ সালের সেপ্টেম্বরে উরি সেনা ছাউনিতে হামলা চালায় বিদ্রোহীরা। সেই ঘটনার দশ দিনের মাথায় পাক নিয়ন্ত্রীত কাশ্মীরের বিদ্রোহী ঘাঁটিতে হামলা চালায় ভারত।

Print Friendly, PDF & Email

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
আন্তর্জাতিক বিভাগের আলোচিত
ওপরে