২৬শে মার্চ, ২০১৯ ইং ১২ই চৈত্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
শ্রীপুরে মাহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালিত ফুলবাড়ীতে অপরচুনিটি মার্কেটিং প্রা: লি: এর... আত্রাইয়ে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালিত সাংবাদিকের উপর ছাত্রলীগ নেতার হামলা বরগুনায়-যথাযোগ্য মর্যাদায় স্বাধীনতা দিবস উদযাপন

পাকিস্তানে হামলা করে যা বললেন মোদি।

 আন্তর্জাতিক ডেস্ক। সমকাল নিউজ ২৪

কাশ্মীরে জঙ্গি গোষ্ঠী জয়েশ-ই-মোহাম্মদের বেশ কয়েকটি ঘাঁটি ও লঞ্চ প্যাডে হামলা চালিয়ে তিনশ জঙ্গিকে হত্যার দাবি করেছে ভারতীয় বিমান বাহিনী।

মঙ্গলবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) সকালে ভারতের বেশ কিছু গণমাধ্যমের খবরে জানানো হয়, পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলার জবাবে পাক অধিকৃত কাশ্মীরে ভারতীয় বিমান বাহিনীর হামলায় অন্তত ৩০০ সন্ত্রাসী নিহত হয়েছে।

এমতাবস্থায় হামলার কয়েক ঘন্টা পর বিষয়টি নিয়ে মুখ খুললেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তিনি বলেন, দুশ্চিন্তার কারণ নেই, ভারত নিরাপদ হাতে রয়েছে।

দেশবাসীকে বার্তা দিয়ে নরেন্দ্র মোদী বলেন, ‘আজ এমন একটা মুহূর্ত যে, আসুন আমরা সবাই ভারতের পরাক্রমী বীরদের প্রনাম জানাই।’

তিনি বলেন, ‘চুরুর মাটি থেকে দেশবাসীকে আশ্বস্ত করছি— দেশ নিরাপদ হাতে রয়েছে।’

রাজস্থানে দেওয়া ভাষণে নরেন্দ্র মোদীর কণ্ঠস্বরে ধরা দিয়েছে প্রবল আবেগ। তিনি বলেন, সৌগন্ধ মুঝে ইস মিট্টি কি, ম্যায় দেশ নহি মিটনে দুঙ্গা, ম্যায় দেশ নহি রুকনে দুঙ্গা, ম্যায় দেশ নহি ঝুকনে দুঙ্গা। অর্থাৎ, এই মাটির দিব্যি, আমি দেশকে ধ্বংস হতে দেব না, আমি দেশকে থামতে দেব না, আমি দেশকে নত হতে দেব না। তাঁর কথায়, ভারতমাতাকে আমার প্রতিশ্রুতি, তোমার মাথা নিচু হতে দেব না।

ভাষণের শেষ প্রান্তে পৌঁছে সুকৌশলে রাজনৈতিক বার্তাও অবশ্য দিয়ে দিয়েছেন মোদী। যে সক্ষমতা ভারত আজ দেখাতে পারছে, তা কার শক্তিতে দেখাতে পারছে? জমায়েতের উদ্দেশে প্রশ্ন ছুড়ে দেন মোদী। সব প্রান্ত থেকেই জবাব আসে ‘মোদী, মোদী’।

কিন্তু সে জবাব সংশোধন করে দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, মোদীর শক্তিতে নয়, আপনাদের একটা ভোটের শক্তিতে এটা সম্ভব হয়েছে।

তিনি বলেন, ২০১৪ সালে আপনাদের ভোট একটা মজবুত সরকার বানিয়েছিল কেন্দ্রে। সেই সরকারের দম আজ গোটা বিশ্ব দেখতে পাচ্ছে।

প্রসঙ্গত, জইশ-ই-মহম্মদের বিরুদ্ধে অভিযান শেষ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই প্রধানমন্ত্রীকে বিশদ রিপোর্ট দেন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল। সকালে নিরাপত্তা বিষয়ক ক্যাবিনেট কমিটির বৈঠক বসে প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে। সেই বৈঠক শেষ হওয়ার পরে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকর সংবাদমাধ্যমের সামনে মুখ খোলেন। অর্থ মন্ত্রী অরুণ জেটলি বিবৃতি দেন। বিদেশ সচিব বিজয় গোখলে সাংবাদিক সম্মেলন করেন।

কিন্তু, প্রধানমন্ত্রী কোনও সাংবাদিক সম্মেলন করেননি। চুরুর জনসভায় গিয়ে তিনি মুখটা খুলেন।

Print Friendly, PDF & Email

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
আন্তর্জাতিক বিভাগের আলোচিত
ওপরে