৮ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ২৫শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
গুরুদাসপুর শিশুকে গলা কেটে হ’ত্যা, রক্তমাখা ছু’রি সহ... বরগুনায় এলজিইডির প্রকৌশলীকে মারধর প্রকৃতির এক অপার সৌন্দর্য জারুল ফুল যশোরের বেনাপোলে ভারতীয় গাঁ’জাসহ আটক ১ জয়পুরহাটের আক্কেলপুরে পৌরসভার পক্ষ থেকে ঈদ উৎসব ভাতা...

পূর্ব শত্রুতার জের ধরে বরগুনায় বসতবাড়ী ভাংচুর ও লুটপাট ” নিরাপত্তাহীনতায় ভুক্তভোগী পরিবার

  সমকালনিউজ২৪

মোঃ সোহরাব,বরগুনা প্রতিনিধি ::

বরগুনায় পূর্ব শত্রুতার জেরে দুটি বসতবাড়ী ভাংচুর ও লুটপাটের শিকার হয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন বরগুনা সদর উপজেলার আয়লাপাতাকাটা ইউনিয়নের পূর্ব কেওড়াবুনিয়া গ্রামে মজিবুর রহমান ও তার ভাই হিমু মিয়া। চুরি, লুটপাট, হামলা, ডাকাতি কোন বিষয়ে মামলা গ্রহণ করবেন এনিয়ে গড়িমসি করছে থানা পুলিশ। পূর্ণাঙ্গ কোর্ট না খোলার কারণে কোর্টেও মামলা করতে পারছেন না মজিবুর রহমান।

জানা গেছে, রাত ৮টার দিকে বরগুনা সদর উপজেলার আয়লাপাতাকাটা ইউনিয়নের পূর্ব কেওড়াবুনিয়া গ্রামে মজিবুর রহমান ও তার ভাই হিমু মিয়ার বসতবাড়িতে পূর্ব শত্রুতার জেরে দুটি বসতবাড়ী ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটে। মজিবর রহমানের স্ত্রী ওয়াহিদা পারভিন জানান, রাত আনুমানিক ৮টার দিকে পার্শ্ববর্তী একই বংশের ফোরকান, ইউনুস, কামাল, শামিম, আইয়ুব আলী, নান্টু, দেলোয়ার মেম্বার, আলতাফ হোসেনসহ ৩০/৪০ জনের একদল মুখোশধারী সন্ত্রাসী পূর্ব পরিকল্পিতভাবে সন্ত্রাসী কায়দায় ঘরের দরজা ভেঙ্গে ঘরে প্রবেশ করে ভাঙচুর চালায় । তারা ঘরে থাকা ষ্টিল আলমিরা ভেঙ্গে নগদ ৭০হাজার টাকা, ৭ভরি স্বর্ণালংকার, একটি মোবাইল সেট নিয়ে চলে যায়। তিনি আরও বলেন, পার্শ্ববর্তী তার দেবর হিমু মিয়ার বসত ঘরও এসময় তারা কুপিয়ে ভাংচুর করে। প্রতিপক্ষরা দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে তাড়িয়ে দেয় আমাদের। এ ঘটনায় মজিবর রহমান বরগুনা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

ভুক্তভোগী মজিবুর রহমান অভিযোগ করে বলেন, লোমহর্ষক এঘটনার পরে আইনের আশ্রয়ও নিতে পারছি না প্রভাবশালী প্রতিপক্ষের প্রভাবে। তারা খুনজখমের ভয়ভীতি দেখাচ্ছে। তাদের ভয়ে ভীত সন্ত্রস্ত হয়ে বাড়িঘর ছেড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছি। আমাদের পরিবার বাড়িতে নিরাপত্তাহীনতার মধ্যে আছে। বাড়িতে ভয়ে যেতে পারছিনা’ তিনি আরো বলেন, ‘পুলিশ মামলা না নেয়ায় প্রতিপক্ষরা আমাদের মেরে ফেলার হুমকি দিচ্ছে, পুলিশ মামলা না নেয়ায় যেকোনো দুর্ঘটনা ঘটার আশঙ্কা আছি।

এ ব্যাপারে বরগুনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) মোঃ শহিদুল ইসলাম জানান, মজিবুর রহমান ও তার ভাই হিমুর বসতঘরে হামলা করে বাড়িতে অবরুদ্ধ করে রাখা হয়েছে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ পাঠিয়ে পুলিশের পিকআপ ভ্যানে করে তাকে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে।

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
বরগুনা বিভাগের সর্বশেষ
বরগুনা বিভাগের আলোচিত
ওপরে