১৫ই অক্টোবর, ২০১৯ ইং ৩০শে আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
ফেনীর ভূইয়া ট্রান্সপোর্ট যেন মোহাম্মদ আলীর ” আলাদীনের... গো’লাগু’লিতে আসামি নি’হত বগুড়ায় টাকাসহ চার ছিনতাইকারী গ্রে’ফতার ফ্লোরিডা ইন্টারন্যাশনাল ট্রেড এন্ড কালচারাল এক্সপো... চাঁদপুরে পুলিশ জেলে সংঘর্ষ আহত-৬, রাবার বু’লেট নিক্ষেপ,...

প্রাণ কোম্পানির ভবনে আগুন

 নরসিংদী প্রতিনিধি সমকালনিউজ২৪

নরসিংদীর ঘোড়াশালে প্রাণ এগ্রিকালচার ও প্রাণ ফুড কোম্পানিতে গ্যাসের পাইপলাইনের বিস্ফোরণে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় একজন অগ্নিদগ্ধসহ আহত হয়েছে পাঁচজন।

আজ শুক্রবার সকালে ঘোড়াশালের ঘাগরা এলাকায় অবস্থিত প্রাণ এগ্রিকালচার ও প্রাণ ফুড কোম্পানিতে গ্যাসের পাইপলাইনের লিকেজ হয়ে এই বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় আহতরা হলেন, নিরাপত্তা প্রহরী হাসান (৪০), প্রাণ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক ডা. বিল্লাল হোসেন (৩৫), কেন্টিন কর্মচারী আল-আমিন (২৩) ও ড্রাইভার আবদুল হাইসহ। আরেকজনের নাম পাওয়া যায়নি।

আহতের মধ্যে অগ্নিদগ্ধ একজনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে পাঠানো হয়েছে। এ ছাড়া বিস্ফোরিত প্রাণ ফুডের চারতলা ভবনটিকে পরিত্যক্ত ঘোষণা করেছে ফায়ার সার্ভিস।

ফায়ার সার্ভিস ও প্রত্যক্ষদর্শীদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, আজ সকাল সাড়ে ১০টার দিকে প্রাণের এমসিএলের প্রশাসনিক ভবনের পাশে গ্যাসের পাইপলাইনে লিকেজ হয়ে হঠাৎ করেই বিস্ফোরণ হয়। বিকট শব্দে ভবনের জানালার কাচ ভেঙে পড়ে এবং ভবনটির নিচতলার নিরাপত্তা কর্মীদের অফিস ও প্রাণের স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটিতে বিস্ফোরিত হয়। এ সময় নিরাপত্তাকর্মী, ক্যান্টিন কর্মচারী, ডাক্তার ও চালকসহ পাঁচজন আহত হন। বিস্ফোরণের পর ভবনটিকে ঝুঁকিপূর্ণ চিহ্নিত করে পরিত্যক্ত ঘোষণা করেছে নরসিংদী ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক শহিদুল ইসলাম ভূঁইয়া।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী আবু দাউদ মিয়া (পাশের দোকানদার) বলেন, ‘দোকানে বসেই গ্যাসের বিষাক্ত গন্ধ পাচ্ছিলাম। হঠাৎ করেই বিকট শব্দে পুরো ভবনটি কেঁপে ওঠে এবং আগুন ছড়িয়ে পড়ে। এ সময় আমি দোকান থেকে দৌড়ে বের হয়ে যাই।’

নরসিংদী ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক শহিদুল ইসলাম ভূঁইয়া বলেন, আগুন লাগার খবর শুনে দ্রুত পলাশ উপজেলার ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট ও প্রাণ কোম্পানির একটি ইউনিট প্রায় দেড় ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, গ্যাসের পাইপলাইন লিকেজ থেকেই এই অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়েছে। ফলে লাইনটি বিস্ফোরণ হয়। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন পাঁচজন। ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ এখনও জানা যায়নি।

ঘোড়াশাল প্রাণ ফুডের জি এম (অ্যাডমিন) শহিদুল ইসলাম বলেন, বন্ধের দিন থাকায় কারখানায় শ্রমিকরা ছিল না। এ কারণে নিহতের ঘটনা ঘটেনি। আহতদের হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য প্রেরণ করা হয়েছে। হেড অফিস থেকে কর্মকর্তারা এসে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ নির্ধারণ করবেন।

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
নরসিংদী বিভাগের সর্বশেষ
নরসিংদী বিভাগের আলোচিত
ওপরে