৩০শে মে, ২০২০ ইং ১৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
চাঁদপুরে করোনা উপসর্গে আইসোলেশন ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন... বানারীপাড়ায় একরাতে ১২ টি পরিবারের বসতভিটা সন্ধ্যা নদী... নওগাঁয় সড়ক দুর্ঘটনায় মোটরসাইকেলের ২ আরোহী নি’হত ফুলবাড়ীতে পানিতে তলিয়ে গেছে বোরো ধান। দিশেহারা কৃষক গণপরিবহনে স্বাস্থ্যবিধি মানা নিয়ে শঙ্কা

প্রেম বাড়াতে আসছে ‘ইনজেকশন’

 অনলাইন ডেস্ক সমকালনিউজ২৪

যৌবনে যৌন উন্মাদনা কেবলমাত্র প্রকৃতির নিয়মেই হয়। বৈজ্ঞানিক মতে এর বিশ্লেষণ করলে জানা যায় যে, ‘কিসপেপটিন’ নামে এক হরমোনের কারণেই মানুষের মনে যৌন চাহিদার উদ্রেক ঘটে।

বয়ঃসন্ধির সময় ও তার পরে, কিসপেপটিন হরমোন মানুষের মস্তিষ্কে যৌন আবেগের সৃষ্টি করে। কিন্তু, বয়স বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গেই এই হরমোনের কার্যক্ষমতাও কমতে শুরু করে। এখানেই এগিয়ে এসেছেন লন্ডনের এক দল বৈজ্ঞানিক। তাদের মতে, কিসপেপটিনের একটি ডোজ-ই পুনরায় মস্তিষ্কে সঞ্চার করতে পারে যৌন আবেগ।

গবেষণায় ২৯ জন যুবকের উপর এই হরমোন প্রয়োগ করা হয়। পরে এমআরআই করে দেখা যায় যে, যৌনতা ও রোমান্টিকতার জন্য মস্তিষ্কের যে অংশ দায়ী, তা বেশ সক্রিয় হয়েছে এই হরমোনের কারণে।

যারা এই পরীক্ষায় অংশ নিয়েছিলেন, তাদের একাংশ এও জানিয়েছেন যে এই হরমোন নেওয়ার পরে তাদের ‘মুড’ পরিবর্তনও হয়েছে। ফলে, বৈজ্ঞানিকরা মনে করছেন, কিসপেপটিন হরমোন অবসাদ কমাতেও কাজে লাগবে।

গবেষণায় যুক্ত বৈজ্ঞানিকদের মতে, এখনো বেশ কিছু পরীক্ষা নিরীক্ষা করার পরই তারা এই কিসপেপটিন হরমোন বাজারে আনতে সক্ষম হবেন। তারা মোটামুটি এর নামও ঠিক করে ফেলেছেন- ‘মেন্টাল ভায়াগ্রা’।

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
ওপরে