১৪ই আগস্ট, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ ৩০শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
শার্শা উপজেলা যুবলীগের পক্ষথেকে বঙ্গবন্ধুর ৪৫তম... বরগুনা পাথরঘাটা থেকে হরিণের চামড়া উদ্ধার ড্রোন হা’মলার জেরে তুরস্কের রাষ্ট্রদূতকে ইরাকের তলব সিলেটে বাস-অটোরিকশা সং’ঘর্ষে নি’হত বেড়ে ৬ শার্শায় উদ্ধার হওয়া নবজাতক গেল নিঃসন্তান রুবিনার ঘরে

প্লাজমা ডোনেট করে মানুষের জীবন বাঁচাতে চাই — এস পি ফরিদপুর

  সমকালনিউজ২৪

এম কিউ হোসাইন বুলবুল, ফরিদপুর ::

আমরা মানবিকতা দেখাতে কাজ করতে গিয়ে আক্রান্ত হলেও অনুপ্রানিত হয়েছি। মানবতার স্বাক্ষর রাখতে অক্লান্ত পরিশ্রম করেছি। জীবনের মায়া ত্যাগ করে জনসেবায় আত্মনিয়োগ করেছি। ” পাশে আছি আমরা, জেলা পুলিশ ফরিদপুর”। আমাদের মনোবল ভেঙ্গে যায়নি বরং আমরা শক্ত অভিভাবক পেয়ে আরো উদ্যোমী হয়েছি। করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তি জীবনী শক্তি হারিয়ে ফেলে তাই- আমরা প্লাজমা ডোনেট করবো।

আজ বুধবার সকালে জেলা পুলিশ লাইন, ফরিদপুর কতৃক আয়োজিত এক অনুষ্ঠানের ”বাংলাদেশ পুলিশ ব্লাড ব্যংক-এ প্লাজমা ডোনেট করতে যাওয়ার প্রাক্কালে জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে ” করোনা যুদ্ধে জয়ী পুলিশ সদস্যদের অভিনন্দন” অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন ফরিদপুরের পুলিশ সুপার জনাব আলিমুজ্জামান (বিপিএম সেবা)।

অন্যান্যদের মধ্যে এস আই আজাদ ভাঙ্গা থানায় কাজ করতে গিয়ে প্রথম করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন। আক্রান্ত সময়কালের প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করতে গিয়ে তিনি বলেন, আক্রান্ত ব্যক্তি জীবনি শক্তি হারিয়ে ফেলে।

করোনা যোদ্ধা জনাব রাশেদ স্যার বলেন, আমরা পরিবারের সবাই আক্রান্ত ছিলাম। কেউ কারো কাছে যেতে পারতাম না। নিয়ম মেনে কোয়ারেন্টাইনে থাকায় আমারা সবাই সুস্থ্য হয়েছি।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) জনাব সাইফুজ্জামান বলেন, আমরা গোপনীয়তা রক্ষা করে প্রায় দেড় হাজার পুলিশের বেতনের টাকা থেকে বাড়ি-বাড়ি গিয়ে সাহায্য পৌঁছে দিয়েছি, এমনকি করোনা আক্রান্ত মৃদদেহ দাফনও করেছি।

পুলিশ লাইনের রিজার্ভ অফিসার জনাব আনোয়ার বলেন, আমাদের দুজন পুলিশ সদস্য করোনা যুদ্ধে মারা গেছে, আমরা তাদের কে স্যালুট জানাই পাশাপাশি তাদের রুহের মাগফিরাত কামনা করি। ফরিদপুরের সাদিপুর , ডিক্রির চর, নর্থ চ্যানেল এ অনেক কষ্টে সাহায্য বিতরন করেছি আমরা। করোনার ক্ষেত্রে ফরিদপুর এখন দ্বিতীয় অবস্থানে আছে তবুও আমরা আতঙ্কিত নই- মানবিকতার উজ্জল স্বাক্ষর রাখবো-ইনশাআল্লাহ।

অতিরিক্ষ পুলিশ সুপার (অপরাধ ও প্রশাসন) জামাল পাশা বলেন, আন্তরিকতার সাথে মানবিক রোল প্লে করেছে পুলিশ. মানুষের জীবনের সুরক্ষা নিশ্চিত করতে আমরা ঝুঁকি নিয়েছি। আমরা আর কোন মৃত কামনা করিনা-মানুষের পাশে আছি আমরা। প্লাজমা আর একজনের জীবন বাঁচাতে পারে।

অনুষ্ঠানে পুলিশ সুপার আরো বলেন, প্লাজমা ডোনেট করতে প্রথম পর্যায়ে ৩২ জনকে পাঠানো হচ্ছে। পুলিশের প্রতি মানুষের নেগেটিভ ধারনা রয়েছে কিন্ত করোনাকালীন সময়ে পুলিশ উজ্জল শিখরে আরোহন করেছে। তিনি পুলিশ সদস্যদের আহবান করেন-এ উজ্জল শিখর থেকে আমরা যেন নিচে নেমে না যাই সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।

এ সময় সাংবাদিকদের সহায়তা কামনা করে তিনি আরো বলেন-পুলিশ এবং সাংবাদিক একই মুদ্রার এপিঠ-ওপিঠ, আমাদেরকে সহযোগিতা করবেন। সমাজ থেকে মাদক নির্মুল করতে মাদকসেবী ও ব্যবসায়ীদেরকে প্রতিরোধ করতে হবে। মাদকের ক্ষেত্রে জিরো টলারেন্স, আমরা মাদকমুক্ত বাংলাদেশ গড়তে চাই। আমরা অনেক অপরাধ চিত্র উদঘাটন করতে সক্ষম হয়েছি। আমরা জন বান্ধব পুলিশ গড়তেও বদ্ধ পরিকর। পুলিশ অহেতুক কাহাকেও হয়রানি করলে আমাকে জানাবেন-দূর্নিতি মুক্ত সমাজ গড়তে আমরা বদ্ধ পরিকর। এ সময় এক সাথে ২৩ জন পিআর এল-এ যাওয়া পুলিশ সদস্যদের মাঝে চেকও বিতরন করেন তিনি।

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
ফরিদপুর বিভাগের সর্বশেষ
ফরিদপুর বিভাগের আলোচিত
ওপরে