১৭ই ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং ৫ই ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
বগুড়ায় বন্ধুকে দিয়ে স্ত্রীকে ধ’র্ষণের ঘটনায় স্বামী... রাষ্ট্রচিন্তা পরিবর্তনের প্রত্যয়ে লিটন তালুকদারের... তালতলীতে সরকারী কলেজ শিক্ষককে কুপিয়ে আহত; প্রতিবাদে... সাপাহার সীমান্তে অপরাধ নির্মূলে বিজিবি বিএসএফ’র... চিলমারীতে যত্ন প্রকল্পের অর্থ বিতরন

ফোনের শুরুতে ‘হ্যালো’ বলার উৎপত্তি

 অনলাইন ডেস্ক সমকালনিউজ২৪

১৫০ বছর আগে টেলিফোন আবিষ্কার করেন বিজ্ঞানী স্যার অ্যালেকজান্ডার গ্রাহাম বেল। ১৮৭৬ সালের পর থেকে যোগাযোগ ব্যবস্থায় বিপ্লব আসে এর হাত ধরে। গ্রাহাম বেল-ই ১৮৮৫ সালে প্রতিষ্ঠা করেন আমেরিকান টেলিফোন অ্যান্ড টেলিগ্রাফ কোম্পানি, যেটি ‘টিঅ্যান্ডটি’ নামে সমধিক পরিচিত।

গ্রাহাম বেলের মা এবং স্ত্রী দু’জনেই ছিলেন বধির। এ সমস্যা থেকে উত্তরণের জন্য তিনি শ্রবণশক্তি সম্পর্কিত ডিভাইস নিয়ে কাজ করেন। এরই এক পর্যায়ে তিনি টেলিফোন অবিষ্কার করেন।

আমরা রিসিভার তুলেই ‘হ্যালো’ বলে সম্বোধন করি অপরপ্রান্তে থাকা বাবা-মা, ভাইবোন, স্বামী-স্ত্রী, বন্ধুদের সঙ্গে। এই ‘হ্যালো’ শব্দটি কেন বলি বা এর উৎপত্তি কোথায় বা কখন থেকে কীভাবে হ্যালো বলা শুরু তা হয়তো আমাদের অনেকেরই জানা নেই।

তথ্যানুসন্ধানে জানা গেছে, ‘হ্যালো’ একটি মেয়ের নাম। যার পুরো নাম মার্গারেট হ্যালো। তিনি ছিলেন আলেকজান্ডার গ্রাহাম বেলের মেয়েবন্ধু। গ্রাহাম বেল টেলিফোন আবিষ্কার করে প্রথম যে কথাটি বলেন, তা হলো ‘হ্যালো’। সেই থেকেই হ্যালো শব্দটি বিশ্বজুড়ে টেলিফোন ব্যবহারকারীদের কাছে জনপ্রিয় একটি শব্দ।

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
ওপরে