১২ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং ২৭শে কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
সরকার ঘূর্ণিঝড় বুলবুলে ক্ষতিগ্রস্থদের পাশে থাকবে: মো.... বগুড়ায় গণসচেতনতার লক্ষ্যে পুলিশের লিফলেট বিতরণ বালুর বদলে ব্যবহৃত হচ্ছে পাহাড়ি মাটি নবীগঞ্জের... ইবিতে মোহনা টিভি’র ১০ম জন্মদিন উদযাপন আখাউড়ায় যুবলীগের ৪৭তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত

বউকে বোন পরিচয়ে একাধিক বিয়ে, অতঃপর

 অনলাইন ডেস্কঃ সমকালনিউজ২৪
বউকে বোন পরিচয়ে একাধিক বিয়ে, অতঃপর

ফেসবুকে নিজেকে মেজর সাজিয়ে আর নিজ স্ত্রীকে বোন পরিচয় দিয়ে একাধিক বিয়েসহ নানা প্রতারণার অভিযোগে জাহিদ ওরফে সুমিরকে গ্রেপ্তার করেছে আশুলিয়া থানা পুলিশ।

ফেইসবুকে টার্গেট করে মেয়েদের প্রেমে ফাঁদে ফেলে কাউকে চাকরি বা নানা সুবিধা পাইয়ে দেয়ার কথা বলে সম্পর্ক তৈরি করে। তারপর নানা কায়দায় টাকা হাতিয়ে নেন। এখানে শেষ নয়। তারপর স্ব-শরীরে মেয়ের পরিবারের কাছে হাজির হয়ে সরাসরি বিয়ের প্রস্তাব। মেয়ে হিন্দু পরিবারের হলে, নিজেকে হিন্দু ধর্মালম্বী বলেই পরিচয় দেয়। পরিবার বলতে নিজের স্ত্রী মেঘলাকে বোন পরিচয় করিয়ে দেয় এই ভুয়া মেজর জাহিদ।

আশুলিয়া এমন এক ভুক্তভোগী নারীর অভিযোগের ভিত্তিতে শনিবার সকালে র‌্যাব-৪ এর একটি দল সাভারের ব্যাংক কলোনী এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করে ভুয়া মেজর জাহিদকে। তার গ্রামের বাড়ি গাইবান্ধা জেলার পলাশবাড়ী থানায়। বর্তমানে তার স্ত্রী মেঘলাকে নিয়ে টাঙ্গাইলের কালীহাতি থানার অস্তিপাড়া গ্রামে বসবাস করে আসছিলো।

আশুলিয়ার ভুক্তভোগী নারী জানান, তার সঙ্গে মেজর সেজে ফেসবুকে পরিচয় হয় জাহিদের। পরে চাকরি দেয়া কথা বলে ৪ লাখ ৩০ হাজার টাকা নেয়। তবে দীর্ঘ দিন কেটে গেলেও চাকরির কোন খবর নেই। পরে হঠাৎ একদিন বাসায় উপস্থিত হয়ে বিয়ের প্রস্তাব দেন ও নিজেকে হিন্দু ধর্মালম্বীর বলে জানায়। বাবা পুলিশ কমিশনার। দেশের বাইরে অবস্থান করছে ও মা মানসিকভাবে অসুস্থ। তাই মেঘলা নামে এক নারীকে নিজের বোন পরিচয় দিয়ে বিয়ের কথা বলে। গত বছরের ২৫ নভেম্বর হিন্দু ধর্মীয় রীতিনীতি অনুসারে বিবাহ হয়। সাভারে একটি ভাড়া বাসায় বসবাস করতে থাকি। জাহিদ মাঝে মধ্যে রাতে আসতো, আবার ভোরে চলে যেতে। এরমধ্যে আমি জানতে পারি, জাহিদ ভুয়া মেজর ও সে মুসলিম ছেলে। এছাড়া সে একইভাবে প্রতারণা করে দেশের বিভিন্ন স্থানে একাধিক বিয়ে করেছে ও টাকা হাতিয়ে নিয়েছে।

এ বিষয়ে আশুলিয়া থানার এস আই কামরুল হাসান তুহিন জানান, দুপুরে ভুয়া মেজর জাহিদকে আদালতে পাঠানো হয়। পরে বিজ্ঞ আদালত আসামিকে দুদিনের রিমান্ডে মঞ্জুর করেছেন। ইতিমধ্যে বিভিন্ন স্থান থেকে ভুক্তভোগী নারী ও পরিবার যোগাযোগ করছেন। তাদের প্রতারিত হওয়া ঘটনা তুলে ধরছেন। পাশাপাশি ভুয়া মেজর জাহিদের স্ত্রী মেঘলাকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। কারণ এই প্রতারণার সঙ্গে মেঘলা জড়িত রয়েছে। কারণ প্রেমের ক্ষেত্রে ও অন্য নারীকে বিয়ের সময় স্ত্রী মেঘলাকে তার বোন বলে পরিচয় করিয়ে দিত।

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
ওপরে