১৬ই অক্টোবর, ২০১৯ ইং ১লা কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
ঝালকাঠিতে ৫ম শ্রেনীর ছাত্রীকে যৌ’ন নিপড়ন, দিনে থানায়... স্ত্রীর মর্যাদা না পেয়ে স্বামীর বাড়িতে কাবিননামা... জয়নগর ইউনিয়ন আওয়ামিলীগের ত্রি-বার্ষিক কাউন্সিলের... নওগাঁয় হাসপাতাল থেকে চুরি যাওয়া শিশু ১১দিন পর উ’দ্ধার আবরার হ’ত্যার ন্যয়বিচারের দাবীতে চাঁদপুরে মানববন্ধন...

বগুড়ায় পুলিশের চাকরি দেওয়ার নামে প্রতারণা গ্রেফতার ১

 জিএম মিজান,বগুড়া, সমকালনিউজ২৪

বগুড়ায় পুলিশ কনস্টেবল পদে চাকরি দেওয়ার নামে প্রতারণার মাধ্যমে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে বগুড়া সদর থানা পুলিশ। বুধবার দুপুরে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে।

গ্রেফতারকৃত আহসানুল কবির (৫০) পাবনা সদর থানার মৃত সামছুদ্দিনের ছেলে। তিনি বগুড়া শহরের লতিফপুর কলোনী এলাকায় দীর্ঘদিন যাবত বসবাস করেন।

জানা যায় বগুড়া পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটের ছাত্র বায়েজিদকে পুলিশ কনস্টেবল পদে চাকরি দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেন আহসানুল কবির এবং বলেন আমি অনেক ছেলেকে পুলিশের চাকরী দিয়েছি । এই প্রতিশ্রুতিতে কয়েকদিন আগে বায়েজিদকে সঙ্গে নিয়ে বগুড়া হাইওয়ে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে যান আহসানুল কবির। বায়েজিদকে বাইরে রেখে তিনি হাইওয়ে পু্লশি সুপারের কক্ষে প্রবেশ করেন। সেখান থেকে বের হয়ে বায়েজিদকে জানানো হয়, আলোচনা হয়েছে তিন লাখ টাকা অগ্রীম দিতে হবে।

বায়েজিদ তখন বিষয়টি তার পরিবারকে জানালে, তারা খোঁজ খবর নিয়ে জানতে পারেন হাইওয়ে পুলিশ সুপার নিয়োগ বোর্ডের কেউ না। এতে তাদের সন্দেহ হলে তারা বিষয়টি বগুড়া সদর থানা পুলিশকে অবগত করেন। পরে পুলিশ কৌশলে আহসানুল কবিরকে গ্রেফতার করে থানায় আনে।

এদিকে, আহসানুল কবির গ্রেফতারের খবর জানাজানি হলে কাহালু থানার কোহালী গ্রামের মশিউর রহমান থানায় হাজির হয়ে অভিযোগ করেন তার ভাতিজা আসিফ খানকে পুলিশে চাকরি দেওয়ার কথা বলে আহসানুল কবির ৬ লাখ টাকা চুক্তি করেন। এরমধ্যে গত মঙ্গলবার সপ্তপদী মার্কেটের সামনে ৯২ হাজার টাকা গ্রহণ করেন।

তবে গ্রেফতারকৃত আহসানুল কবির এর সাথে কতা বললে তিনি বলেন আমি চাকরি দেওয়ার কথা বলে টাকা গ্রহণ করিনি। তবে বায়েজিদের ব্যাপারে সুপারিশ করতে তিনি হাইওয়ে পুলিশ সুপারের সঙ্গে সাক্ষাত করেছেন। হাইওয়ে পুলিশ সুপার তার পরিচিত হওয়ায় তিনি বায়েজিদকে সঙ্গে নিয়ে গিয়েছিলেন।

বগুড়া সদর থানার ওসি এসএম বদিউজ্জামান প্রতিবেদক-কে বলেন, বায়েজিদের সূত্র ধরে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এর পর কাহালু থানার কোহালী গ্রামের মশিউর রহমান বাদী হয়ে আহসানুল কবিরের নামে মামলা করেছে।

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
ওপরে