২০শে আগস্ট, ২০১৯ ইং ৫ই ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
ই’য়াবা সহ আটক-১ মহাদেবপুর-ছাতড়া সড়ক খানাখন্দে ভরা; দূর্ভোগ চরমে বগুড়ায় স্বেচ্ছাসেবকদলের ৩৯তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন সাংবাদিক ইকবাল হোসেনের শ্বশুরের ইন্তেকালে শোক প্রকাশ দুর্গাপুরে মা সমাবেশ

বাগমারা স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা কর্নেল গুরুতর অসুস্থ

  সমকাল নিউজ ২৪

মাহফুজুর রহমান প্রিন্স, বাগমারা থেকে: বাগমারা উপজেলা স্বেচ্ছাসেক লীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক খন্দকার ইসমাইল হোসেন কর্নেল বর্তমানে মস্তিস্কে রক্তক্ষরন জনিত গুরুতর অসুস্থাবস্থায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ইনসেনটিভ কেয়ার ইউনিট(আইসিইউ)তে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের এই নিবেদিত প্রান নেতা যিনি গোটা উপজেলা ও জেলার আওয়ামী অঙ্গনে কর্নেল ভাই নামে সর্বাধিক পরিচিত ছিলেন তিনি আজ জীবন মৃত্যুর সন্ধিক্ষনে। গত শুক্রবার ব্রেন ষ্ট্রোকের পর তার জ্ঞান এখনও ফিরেনি। তাকে কৃত্রিম ভাবে খাওয়ানো হচ্ছে।

তার ছোট ভাই খন্দকার গোলাম হাফিজ প্রিন্স জানান, গত শুক্রবার ভোর থেকে তার বড় ভাইয়ের বুক ব্যথা শুরু হয়। এ সময় তিনি ব্যথায় ছটফট করতে থাকলে তাকে দ্রত রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। ওই দিন তাকে ৪২ নং ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয় এবং পর দিন শনিবার তাকে ৭ নং ওয়ার্ডে স্থানান্তর করা হয়। এ সময় কর্নেলের কয়েকটি পরীক্ষা নিরীক্ষা ডাক্তাররা জানান, যে তার ভাইয়ের ব্রেন হ্যামারেজ ব্রেন ষ্ট্রাক বা মস্তিস্কে রক্ষক্ষরন হয়েছে। এই অবস্থায় তাকে সাধারন ওয়ার্ডে রেখে চিকিৎসা করানো ঝুকিপূর্ন হওয়ায় তাকে আইসিইউ’তে নেয়ার প্রয়োজন হওয়ায় অনেক চেষ্টা তদবরি ও বাগমারার সংসদ সদস্য ইঞ্জি এনামুল হক ও জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ ভাইয়ের সহযোগিতায় কর্নেলকে শনিবার রবিবার আইসিইউতে স্থানান্তর করা হয়েছে। বর্তমানে তিনি সেখানেই চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তবে তাকে অতি দ্রুত এয়ারবাসে করে ঢাকায় নিয়ে ব্রেন অপারেশন করা প্রয়োজন বলে তার পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

কর্নেলের স্ত্রী ফেরদৌসি বেগম জানান, তার স্বামীর অবস্থা খুবই সংকতাপন্ন। তাকে এয়ার বাসে করে ঢাকায় নেয়া ও তার অপারেশন করার আর্থিক সামর্থ তাদের নেই। তার স্বামী ও তিনি সম্পূর্ন বেকার। তিনি এ জন্য স্থানীয় সংসদ সদস্য ও মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর সদয় দৃষ্টি কামনা করেছেন। কর্নেলের এক মাত্র ছেলে দিনাজপুরের হাজী দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় কলেজে অধ্যায়ন রত এবং এক মাত্র মেয়ে ভবানীগঞ্জ সরকারি মডেল প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিশু শ্রেণিতে অধ্যয়ন করছেন। পিতার আকস্মিক এই পরিনতিতে দুই ভাই বোন নির্বাক হয়ে পড়েছেন। এলাকাবাসী জানায়, এগিকে কর্নেলের এই গুরুতর অসস্থতার খবর শুনে তার পিতা সাবেক ফার্মাসিষ্ট খন্দকার আব্দুল গফুর(৯০) ভীষন অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। তিনি তার ভবানীগঞ্জের বাড়িতে প্রায় একাকি অবস্থায় বড় ছেলে কর্নেলের জন্য হায়হুতাশ করে ফিরছেন।

ভবানীগঞ্জ পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক প্রভাষক আব্দুল জব্বার জানান, কর্নেল ভাই নিঃসন্দেহে একজন নিবেদিত প্রান ও ত্যাগি নেতা । আওয়ামীলীগের দূর্দিনে মিটিং মিছিলে তিনি সবার আগে ঝাপিয়ে পড়তেন। আজ তার এ সংকতাপন্ন অবস্থায় দলীয় সবাই খোজখবর নেয়া ও তার প্রতি খেয়াল রাখা উচিত।

উপজেলা কৃষক লীগের সাধারন সম্পাদক ও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান আসাদ জানান, কর্নেল ভাই আওয়ামীলীগের জন্য শ্রম দিতেন কিন্তু নিজের সুযোগ সুবিধার জন্য তিনি কখনই ভাবতেন না। তার মত ত্যাগি নেতার সুসিকিৎসায় আমাদের পাশে দাঁড়ানো উচিত ।

Print Friendly, PDF & Email

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
রাজশাহী বিভাগ বিভাগের সর্বশেষ
ওপরে