১৪ই অক্টোবর, ২০১৯ ইং ২৯শে আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
বরগুনায় আন্তর্জাতিক দুর্যোগ প্রশমন দিবস পালিত... বরগুনায় বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশে পুলিশের লাঠিচার্জ॥... আমতলীতে সময় মেডিকেয়ার এন্ড হসপিস এর ক্লিনিক্যাল... ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা আ’লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে... সনাতন ধর্মালম্বিদের আজ কোজাগরী লক্ষ্মীপূজা

বানারীপাড়ায় গাঁজাসহ ক্রেতাকে আটকের সময় পালিয়ে গেলো মূল মাদক ব্যবসায়ী

 মো. সুজন মোল্লা,বানারীপাড়া সমকালনিউজ২৪

বানারীপাড়া বন্দর বাজারের শাওন ক্যাবল নেটওর্য়াক’র সত্ত্বাধীকারী মো. মোজাম্মেল হোসেন সহ ৩ জনের বিরুদ্ধে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে থানা পুলিশের এসআই মো. মজিবুর রহমান বাদী হয়ে মামলা করেছেন। মামলার আসামীরা হলো বন্দর বাজারের ক্যাবল ব্যবসায়ী মো. মোজাম্মেল’র সহযোগী রতর মোল্লা,নান্নু ও মোজাম্মেল হোসেন। এদের মধ্য থেকে রতন মোল্লাকে গাঁজা সহ পুলিশ গ্রেফতার করে জেল হাজতে পাঠিয়েছে।

মামলা সূত্রে জানাগেছে ১১ এপ্রিল দুপুর আড়াইটার সময় বানারীপাড়া থানার কতেক পুলিশ অফিসার কলেজ মোড়ে মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা করছিলেন। এ সময় তারা গোপনে সংবাদ প্রাপ্ত হন,পৌরসভার ২নয় ওয়ার্ডের কেন্দ্রীয় হরিসভা মন্দির সংলগ্ন রিক্সা স্ট্যান্ডের দক্ষিণপাশে মাদক ক্রয়-বিক্রয় হচ্ছে। পরে থানার এসআই মো. মজিবুর রহমান সহ অন্য পুরিশ সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌছালে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে আসামী রতন মোল্লা দৌঁড়ে পালানোর সময় স্ট্যান্ডে থাকা ইকবাল খালাসীর রিক্সার ওপরে ওঠে ছিটের নিচে তার হাতে থাকা গাঁজার পোটলা লুকানোর চেষ্টাকালে তাকে আটক করে পুলিশ।

এ সময় রতন মোল্লার সাথে থাকা তার অপর দুই সহযোগী ক্যাবল ব্যবসায়ী মোজাম্মেল ও নান্নু বিপুল পরিমান মাদকদ্রব্য (গাঁজা) নিয়ে পালিয়ে যায় বলে সে স্বীকার করে এবং তার কাছ থেকে পাওয়া গাঁজা মোজাম্মেল ও নান্নুর কাছ থেকে ক্রয় করেছে বলে জানায়।

এদিকে বানারীপাড়ার ক্যাবল ব্যবসায়ী মোজাম্মেল হোসেন রাতারাতি আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ বনে যাওয়ার আঁড়ালে মাদক ব্যাবসা এবং ভূমি দস্যুতার সাথে সম্পৃক্ততার একাধিক অভিযোগ উঠেছে স্থানীয়দের কাছ থেকে। মোজাম্মেলের সম্পদের হিসাব ও তার ক্যাবল ব্যবসায় সরকারকে রাজস্ব ফাঁকি দেয়ার বিষয়েও তদন্ত করতে জোর দাবী উঠেছে স্থানীয়দের মধ্য থেকে। অপরদিকে নান্নুর অপর দুই আসামীর সাথে কোন প্রকার যোগসূত্র নেই বলে দাবী করে তিনি স্থানীয় রাজনীতির রোষানলে পড়েছেন বলে তার পরিবার থেকে বলা হয়েছে।

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
বরিশাল বিভাগের সর্বশেষ
বরিশাল বিভাগের আলোচিত
ওপরে