২৮শে মে, ২০২০ ইং ১৪ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
সাধারণ ছুটি বাড়ছে না, স্বাস্থ্যবিধি মেনে অফিস সাপাহারে আদিবাসীর লা’শ উদ্ধার সাপাহারে অসামাজিক কাজে রাজি না হওয়ায় মধ্যযুগীয় ভাবে... বরগুনায় কিশোর গ্রুপের হামলায় স্কুলছাত্র নি’হত মান্দায় ঘূর্ণিঝড়ের কারনে বসতবাড়ি লন্ডভন্ড

বামনায় নির্বাহী ম্যজিট্রেট এর আদেশ অমান্যকরে জমি জবর দখল করে ইমারত নির্মান

 মিজানুর রহমান সুমন,বামনা/ সমকালনিউজ২৪

বরগুনার বামনা উপজেলার লক্ষীপুরা গ্রামের মৃত আব্দুল মজিদ হাওলাদারের মৃত্যুর পরে তার তিন ছেলে ও তিনমেয়ে ১ একর ৯১ সতাংশ জমির মালিক এই ৬ জন ওয়ারিশ। ১৭/১০/৬৬ রায় সুত্রে ১ একর ৯১ সতাংশ জমির মলিক তিনছেলে তিন মেয়ে এবং মা তাদের অভিবাবক।

এদের বড় ছেলে আব্দুর রশীদ নিলামে ও খরিদ সূত্রে মালিক হইয়া ২৬/০৬/৬৭ সনের হাসেম ও আকব্বর এর নিকট একখানা সাফকবলা ৫৭ সতাংশ জমি বিক্রিকরে এবং দির্ঘদিন পর্যন্ত উক্ত জমি ভোগ দখল করিয়া আসিতেছে । অথচ এসএ ১৩নং খতিয়ান দাগনং ১১৪৮ এর সাথে আরো ৯টি দাগ আছে সেই জমিটি নিয়া উভয় পক্ষের মধ্যে মামলা মোকদ্দমা চলিয়া আসিতেছে এবং এসকল বিষয়ে পর্যালচনা করিয়া নির্বাহী ম্যজিট্রেট বরগুনা থেকে মামলার নিস্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত কোনরকমের ঐ জমিতে চাষাবাদ ও দখল হইতে বিরত থাকার নির্দেশ দেন আসামী মোঃ হানিফ গংদের অথচ তারা আসামী পক্ষরা দস্যু প্রকৃতি হওয়ায় গায়ের জোরে ফৌজদারী ১৪৪/১৪৫ ধারা অমান্য করে উক্ত জমিতে পাকা ইমারত নির্মান শুরু করেন ।

অপরদিকে জমির মূল মালিক ইমাম খালেক গং তাদের দিন কাটে মানুষের বাড়ী দিন মজুর ও মহিলারা ঝি এর কাজ করে। নিজেদের জমি থাকতেও এরা গরীব ও অসহায় বলে এদের পাশে দাড়ানোর কোন লোক নাই। অসহায় মসজিদের ইমাম মোঃ আব্দুল খালেক সহ সকল অংশীদার গন সরকার ও প্রশাসনের কাছে এই দস্যুদের সুনিদ্রিষ্ট তদন্তকরে বিচারের জোর দাবী জানিয়ে তাদের সম্পত্তি ফিরে পেতে চান তাহলে হয়তো ফিরে আসবে তাদের পরিবারের সচ্ছলতা বলে জানান তিনি।

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
বরগুনা বিভাগের সর্বশেষ
বরগুনা বিভাগের আলোচিত
ওপরে