১৭ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং ২রা আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
বগুড়ায় বিএনপি’র আহ্বায়ক কমিটির পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত মাদ্রিদে বাংলাদেশী মালিকানাধীন ভূঁইয়া মনি... এক নজরে বরগুনা পৌরসভা ১০ টাকা কেজি দরে চাল বিতরণ কর্মসূচী মোগলগাঁও ইউনিয়নে... বরগুনায় ইলিশ উৎসব আগামী দুই অক্টোবর

বাল্য বিয়ে বন্ধ করল থানা পুলিশ

 জৈন্তাপুর প্রতিনিধি- সমকালনিউজ২৪

সিলেটের জৈন্তাপুর উপজেলার এক কিশোরীর বাল্য বিবাহ বন্ধ করলেন মডেল থানা পুলিশ। গতকাল (১৯ আগস্ট) সোমবার উপজেলার দরবস্ত ইউনিয়নের করগ্রাম এলাকায় মেয়ের অমতে বিয়ে দিচ্ছিল তার পরিবার। খবর পেয়ে থানা পুলিশ সেখানে হাজির হয়ে বিয়েটি ভেঙে দিয়ে প্রাপ্ত বয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে না দেয়ার অঙ্গীকারনামা করেন।

জানা যায়, জৈন্তাপুর থানা পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিত্বে জানতে পারে উপজেলার দরবস্ত ইউনিয়নের করগ্রামে একটি বাল্য বিবাহের প্রস্তুতি চলছে। কিন্তু পাত্রীর বয়স মাত্র ১৭। এই কিশোরীর সাথে পার্শ্ববর্তী দরবস্ত ইউনিয়নের পূর্ব ভাইট গ্রামের মৃত নূর ইসলামের ছেলে শহীদ আহমদ (২০) বিয়ে হচ্ছে। সংবাদের প্রেক্ষিতে বাল্য বিয়ে রুখতে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বাহারুল আলম বাহারের তৎপরতায় বাল্য বিয়ে পন্ড করে বর কন্যাকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

বিকাল ৩টায় ভ্রাম্যমান আদালতে জৈন্তাপুর উপজেলা নির্বাহী কার্যালয়ে তাদেরকে হাজির করে পুলিশ। নির্বাহী ম্যাজিষ্টেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মৌরিন করিমের সম্মুখে বর-কন্যা উভয় পক্ষের অভিভাবকগন বাল্য বিয়ে একটি সামাজিক অপরাধ স্বীকার করেন এবং উপযুক্ত বয়স না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে না দেওয়ার অঙ্গীকার করে ভ্রাম্যমান আদালতকে মুচলেকা দেন। ভ্রাম্যমান আদালতে ভূল স্বীকার করায় আদালত পূর্ণবয়স না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে না দেওয়ার ঘোষনাদেন এবং বর কন্যাকে নিজ নিজ অভিবাবকের জিম্মায় দেন।

এবিষয়ে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শ্যামল বনিক বলেন, গোপন সংবাদে খবর পেয়ে আমি ইউপি চেয়ারম্যানের সহায়তায় বাল্য বিয়েটি বন্ধ করি বর-কন্যাকে ভ্রাম্যমান আদালতে প্রেরন করি।

নির্বাহী ম্যাজিষ্টেট মৌরীন করিম বলেন- বাল্য বিয়ে বন্ধ করতে উপজেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসন সোচ্ছার রয়েছে। সংবাদ পেয়ে দ্রুত সময়ের মধ্যে পুলিশ বিয়ে পন্ড করে দিয়েছে। আমি উপজেলাবাসীকে সর্তক বার্তা পৌছে দিয়েছি পরবর্তীতে কেউ এরকম বাল্য বিয়ের আয়োজন করেন বা বাল্য বিয়ে দিতে উৎসাহ দেন তাদেরকেও আইনের আওতায় নিয়ে এসে কঠোর আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
সিলেট বিভাগের আলোচিত
ওপরে