২১শে আগস্ট, ২০১৯ ইং ৬ই ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
বগুড়ায় বিশ্ব আলোকচিত্র দিবস পালিত চাঁদপুরে মাদ্রাসা ছাত্র হ’ত্যার ঘটনায় আটক-১; মাথা... ফেনীতে ইসলামিক ফাউন্ডেশন কর্তৃক বঙ্গবন্ধু’র ৪৪তম... আত্রাইয়ে হারিয়ে যাচ্ছে ঐতিহ্যবাহী মাটির বাড়ি ঘর বরগুনায় স্বেচ্ছাসেবকদলের ৩৯ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী...

বিরাটদের পরে নিউজ়িল্যান্ড জয় এ বার ঝুলনদের।

 অনলাইন ডেস্ক। সমকাল নিউজ ২৪

নিউজ়িল্যান্ডকে ১৬১ রানে অল আউট করে দিয়ে স্মৃতি মন্ধানা ও মিতালি রাজের কাজ সহজ করে দিয়েছিলেন ঝুলন গোস্বামী, একতা বিস্তরা। জয়ের জন্য প্রায় তৈরি সেই মঞ্চে চাপমুক্ত হয়ে ব্যাট করতে নেমে এই জুটিই আট উইকেটে জেতাল ভারতকে।

সোমবার যেমন পাঁচ ম্যাচের সিরিজ ৩-০ করে ফেলেন বিরাট কোহালিরা। তেমনই, মঙ্গলবার সেই মাউন্ট মাউনগানুইয়েই তিনটি ম্যাচের মধ্যে প্রথম দু’টি জিতে সিরিজ জয় সুনিশ্চিত করে ফেললেন স্মৃতিরা। এই জয়ের সঙ্গে মেয়েদের আইসিসি চ্যাম্পিয়নশিপে নিউজ়িল্যান্ডকে টপকে দু’নম্বরে উঠে এল ভারত।

মঙ্গলবার জয়ের জন্য ১৬২ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে যে ১৫১ রানের অপরাজিত পার্টনারশিপ গড়েন স্মৃতি (৮৩ বলে অপরাজিত ৯০) ও মিতালি (অপরাজিত ৬৩), তাতেই অনায়াস জয় চলে আসে মাত্র ৩৫.২ ওভারেই। দুই ওপেনার জেমাইমা রদ্রিগেজ ও দীপ্তি শর্মা দলের ১৫ রানের মধ্যে আউট হয়ে যাওয়ার পরে হাল ধরেন মিতালিরা। ভারতের হয়ে ওয়ান ডে-তে রান তাড়া করতে নেমে ব্যক্তিগত ব্যাটিং গড়ে মিতালি (১১১.২৯) এখন মহেন্দ্র সিংহ ধোনি (১০৩.০৭) ও বিরাট কোহালির (৯৬.২৩) চেয়েও এগিয়ে।

ম্যাচের সেরার পুরস্কার পেয়ে স্মৃতি বলেন, ‘‘দারুণ লাগছে। তবে বোলারদের কারও এটা পাওয়া উচিত ছিল। আমি কৃতিত্ব দেব তাদের। ওরা ভাল উইকেটে দুর্দান্ত বোলিং করে আমাদের কাজটা সহজ করে দিয়েছে।’’

মঙ্গলবার টস জিতে প্রথম ওভারেই ওপেনার সুজ়ি বেটসকে ফিরিয়ে দেন ঝুলন। অপর ওপেনার সোফি ডিভাইনকে আউট করেন ঝুলনের সঙ্গী পেসার শিখা পাণ্ডে। বাঁহাতি স্পিনার একতা বিস্ত ও লেগস্পিনার পুনম যাদবেরা কুড়ি ওভারের মধ্যেই বিপক্ষকে ৬২-৫ অবস্থায় নিয়ে চলে আসেন। পরে মিডল ও লোয়ার অর্ডারের দুই ব্যাটসম্যানের স্টাম্প ছিটকে দেন ঝুলন। নিউজ়িল্যান্ড অধিনায়ক এমি স্যাটার্থওয়েটকে (৭১) ফেরান পুনম

ব্যাট হাতে দলের হাল ধরেন স্মৃতি ও মিতালি। দুর্দান্ত ফর্মে থাকা ২২ বছর বয়সি স্মৃতির শেষ দশটি ইনিংসে আট নম্বর হাফ সেঞ্চুরি এটি। গত ম্যাচে ১০৫ রান করেছিলেন তিনি। স্মৃতি যখন একদিক থেকে ঝড় তোলেন, তখন অন্য দিকে ঠান্ডা মাথায় তাঁকে সঙ্গ দেন মিতালি। শেষে একটি ছয় মেরে ম্যাচ জেতান তিনি। ম্যাচের পরে মিতালি বলেন, ‘‘দল যে ভাবে তৈরি হচ্ছে, তাতে আমি খুশি। প্রতিকূল পরিবেশে ব্যাট করা বরাবরই আমার চ্যালেঞ্জ। আজ অনেক ধৈর্য নিয়ে ব্যাট করেছি। স্মৃতি দারুণ ফর্মে আছে। ওর পাশে কাউকে দাঁড়াতেই হত।’’ সিরিজ ৩-০ করার লক্ষ্যেই যে শুক্রবার শেষ ওয়ান ডে ম্যাচে নামবেন তাও জানিয়ে দেন অধিনায়ক।

Print Friendly, PDF & Email

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
ওপরে