২৫শে এপ্রিল, ২০১৯ ইং ১২ই বৈশাখ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
তানিয়ার চোখ দিয়ে বের হচ্ছে পাথর, ধান ও পাতা! ধেয়ে আসছে শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় প্রেমিকের প্রতারণা, ভিডিও কলে জীবন দিল ইডেন ছাত্রী! রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আগুন, মসজিদসহ ৩০ ঘর ভস্মীভূত রাজশাহীর চারঘাটে মানসম্মত প্রাথমিক শিক্ষা নিশ্চিতকরণে...

ভোটে থাকা না থাকা নিয়ে বিএনপির কোনো বিরোধ নেই

 অনলাইন ডেস্কঃ সমকাল নিউজ ২৪

আগামী ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোটে থাকা না থাকা নিয়ে বিএনপির কোনো বিরোধ নেই, সরকার বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। আজ শনিবার দুপুরে ঠাকুরগাঁওয়ে আইনজীবী সমিতির সামনে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।

সারা দেশের অবস্থা সম্পর্কে জানতে চাওয়া হলে ঐক্যফ্রন্টের এই মুখপাত্র বলেন, ‘সারা দেশে ভয়-ভীতি, ত্রাস বিরাজ করছে। দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে আমাকে সমর্থকরা ফোন দিয়ে বলছেন, আমরা দাঁড়াতে পারছি না, আমরা এজেন্ট দিতে পারছি না। দুর্ভাগ্যজনকভাবে যে নির্বাচন হওয়ার কথা ছিল একটা উৎসবের মধ্য দিয়ে, সেটা এখন হচ্ছে ভীতি ও ত্রাসের মধ্য দিয়ে। ’
আইনশৃঙ্খলা বাহিনী নিরপেক্ষভাবে কাজ করছে কি না এ প্রশ্নের জবাবে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘যে প্রশাসন দাঁড়িয়ে আছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তারাই মনে হয় যেন আজ প্রতিপক্ষ হয়ে দাঁড়িয়েছে। তারাই ভোটারদের, বিরোধীদলকে…আমরা তো নির্বাচনের একটা অংশ এবং ১০ বছর পর একটা অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন হতে যাচ্ছে। তাদের তো উচিত ছিল আমাদের চা-মিষ্টি খাইয়ে নির্বাচনে রাখার জন্য। সেক্ষেত্রে তারা এমন একটা অবস্থার সৃষ্টি করেছে যেন আমরা বেরিয়ে যাই। আমরাও পণ করেছি যে আমরা সহজে বের হচ্ছি না। ’

পোলিং এজেন্ট সম্পর্কে তিনি আরও বলেন, ‘বিভিন্ন জায়গায় আমাদের পোলিং এজেন্টরা গ্রেপ্তার হয়ে গেছেন। অনেকে আবার ভয়ে রাজি হচ্ছেন না। ভোটে থাকা না থাকা নিয়ে বিএনপির কোনো বিরোধ নেই। সরকার নানা বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে। ’

এ সময় ভোটার ও দলীয় নেতাকর্মীদের সমস্ত বাধা-প্রতিকূলতা, অত্যাচার নির্যাতন উপেক্ষা করে ভোট দেওয়ার জন্য বেরিয়ে আসার আহ্বান জানান মির্জা ফখরুল। তিনি বলেন, ‘এটাই বদলে যাওয়ার সুযোগ। গণতন্ত্রকে পুনরুদ্ধার এবং খালেদা জিয়াকে মুক্তির জন্য এটাই সবচেয়ে বড় সুযোগ। ’

এর আগে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে গিয়ে রিটার্নিং অফিসারের সঙ্গে দেখা করেন মির্জা ফখরুল। পরে এ ব্যাপারে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, ‘রিটার্নিং অফিসারের কাছে আমি কোনো অভিযোগ করতে আসিনি। একজন প্রার্থী হিসেবে আমি রিটার্নিং অফিসারের কাছে এসেছি। আমি তাকে অনুরোধ করেছি, ঠাকুরগাঁওয়ে যেন ফ্রি ফেয়ার ইলেকশন হয়। কেউ যেন ইন্টিমেডেট না হয়। ভোটাররা যেন মন খুলে ভোট দিতে আসতে পারে সে ধরনের অবস্থা তৈরি করতে। ’

ইতিমধ্যে চারজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে- এমন প্রশ্নের জবাবে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘শুধু চারজন নয়, ইতিমধ্যেই আমাদের বহু মানুষকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। সব মিলিয়ে ভয়-ভীতি, একটা ত্রাস সৃষ্টি হয়েছে। তারপরও আমি বরাবরই উনাদের একই বলা বলে এসেছি যে আপনারা আজ থেকে অন্তত একটা পরিবেশ তৈরি করেন যাতে ভোটারদের মুখে একটা হাসি থাকে। উৎসবমুখর পরিবেশে তারা ভোট দিতে যায়। ’

Print Friendly, PDF & Email

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
ওপরে