২০শে মার্চ, ২০১৯ ইং ৬ই চৈত্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
ফেনীতে মাসব্যাপী শিল্প বাণিজ্য মেলা শুরু বামনা উপজেলায় দুই অভিজ্ঞ প্রার্থীর মধ্যে লড়াই বেশ জমে... আই আর এম টিমের হাতে অবৈধ ভাবে আসা পণ্য বোঝাই ভারতীয় ট্রাক... ভারতে পাচারকালে ২০পিস স্বর্ণেরবার ও নগদ ১লাখ ৩৮হাজার... রাণীনগরে যৌতুকের টাকা না পাওয়ায় স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যার...

মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশিসহ আটক ৩০৯, আতঙ্কে অভিবাসীরা!

  সমকাল নিউজ ২৪
মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশিসহ আটক ৩০৯, আতঙ্কে অভিবাসীরা!

মালয়েশিয়ায় অবৈধ অভিবাসীদের গ্রেফতারে ব্যাপক অভিযান চালিয়েছে দেশটির অভিবাসন বিভাগ। স্থানীয় সময় বুধবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৯টার দিকে পুডু বাস টার্মিনাল ও কোতারায় মাইডিন মার্কেটের আশপাশে ব্যাপক তল্লাশি শুরু করে অভিবাসন বিভাগের ১৭৫ জনের একটি টিম। অভিযানে বাংলাদেশিসহ বৈধ-অবৈধ সব মিলিয়ে ৩০৯ জনকে আটক করা হয়েছে। এর মধ্যে ২৯০ জন পুরুষ ও ১৯ জন নারী রয়েছেন।

আটকদের মধ্যে বাংলাদেশ ছাড়াও ইন্দোনেশিয়া, ভারত, পাকিস্তান ও ভিয়েতনামের নাগরিকরাও আছেন। তবে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত আটক বাংলাদেশিদের নির্দিষ্ট সংখ্যা জানা যায়নি।

পুলিশ ও ইমিগ্রেশন বিভাগের এই অভিযানে গোটা এলাকা ফাঁকা হয়ে যায়। অনেক বৈধ অভিবাসীও দ্রুত স্থান ত্যাগ করে। আবার কেউ কেউ অভিযান দেখতে এসেও গ্রেফতার হয়েছেন বলে জানা গেছে।

প্রতিদিনই সেদেশে অবৈধভাবে থাকা শত শত কর্মীকে আটক করছে পুলিশ। বিগত দিনে অভিবাসী শ্রমিকদের আটক করে যাচাই-বাছাই শেষে বৈধ অভিবাসীদের ছেড়ে দেয়া হলেও এবার বৈধ-অবৈধ সবাইকে ঢালাও আটক করা হচ্ছে।

কুয়ালালামপুরের পুলিশ প্রধান দাতুক সেরি মাজলান লাজিম সাংবাদিকদের জানান, আটকদের সবাইকে যাচাই-বাছাইয়ের জন্য জিজ্ঞাং ও দ্যাং ওয়ানগি থানায় (বালাই) এবং চেরাচ ইমিগ্রেশন অফিসে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। প্রত্যেকের ভ্রমণ দলিল, পাসপোর্ট ওয়ার্ক পারমিটসহ সব কাগজপত্র পুঙ্খানুপুঙ্খ চেক করা হবে বলেও জানান তিনি।পুলিশ প্রধান আরও বলেন, কুয়ালালামপুর শহরকে অপরাধমুক্ত নিশ্চিত করতে কারো বিরুদ্ধে কোনো ফৌজদারি মামলা আছে কি-না তা চেক করে দেখা হবে।

মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশ হাইকমিশন সূত্র জানায়, অভিযানের আগে অবৈধ কর্মীদের বৈধকরণ হতে একাধিকবার সুযোগ দিয়েছে দেশটি। আমরাও আমাদের কর্মীদের বৈধ হওয়ার জন্য নানাভাবে প্রচারণা ও সহযোগিতা করেছি। সতর্কবার্তাও দেয়া হয়েছে কিন্তু এর পরও অনেকে হাইকমিশনের নির্দেশকে উপেক্ষা করেছে বা গুরুত্ব দেয়নি। এখন সাধারণ ক্ষমার মেয়াদ শেষে দেশটির পুলিশ অভিযানে নেমেছে। এখানে আমাদের আর কিছুই করার নেই। দেশটি তাদের আইন অনুযায়ী ধরপাকড় বা বহিষ্কার করতে পারে।

Print Friendly, PDF & Email

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
প্রবাসের খবর বিভাগের সর্বশেষ
প্রবাসের খবর বিভাগের আলোচিত
ওপরে