৮ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ২৩শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
শেখ হাসিনা কে ক্ষমতায় রাখতে সকল কে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ... আজ পাইকগাছার কপিলমুনি মুক্ত দিবস রাজশাহীতে নিজ শরীরে আগুন দিয়ে যুবকের আত্মহত্যা টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে চন্দ্রবিন্দু স্কুল এন্ড... রাজশাহীতে মাদক ব্যবসা নিয়ে দুপক্ষের সংঘর্ষে যুবদল নেতা...

মা-ছেলের বিকৃত প্রেম, ৬ মাসের অন্তঃসত্তা মা!

 অনলাইন ডেস্কঃ সমকালনিউজ২৪
মা-ছেলের বিকৃত প্রেম, ৬ মাসের অন্তঃসত্তা মা!

বিকৃত রুচির কিছু মানুষের বসবাস করা পৃথিবীতে কতো আজব ঘটনাই ঘটছে। এমনই এক ঘটনা ভারতীয় মিডিয়ায় ফলাও করে প্রচার করা হলো। ভারতের উত্তরপ্রদেশের গার্গীপুরে ৪২ বছর বয়সী এক মা তার ২৩ বছর বয়সী ছেলের সাথে অসম প্রেম করে চলেছেন। মা এখন ৬ মাসের অন্তঃসত্তা। তবে তারা এ সম্পর্ককে অবৈধ মানতে নারাজ। কারণ তারা খুব শীঘ্রই বিবাহ করছেন।

ওই মহিলার নাম সবিতা পান্ডে। সাত বছর আগে তিনি স্বামী হারা হনএরপর তিনি তার একমাত্র ছেলে দীপককে মানুষ করতে থাকেন। ছেলের বয়স এখন ২৩। ছেলে সরকারী চাকুরী করে। ভালো রোজগার করে।

সবিতা দেবী বলেন, ‘আমি আমার ছেলেকে একা মানুষ করেছি। আমি অনেক কষ্ট করেছি। আমাকে কেউ সাহায্য করেনি। সুতরাং আমার ছেলের সব আয় আমারই প্রাপ্য। অন্য কোন নারী তার আয়ের উপর ভাগ বসাতে পারবে নসবিতা জানান, ৩ বছর আগে ছেলের সঙ্গে তার প্রেম শুরু হয়। বর্তমানে তিনি ৬ মাসের অন্ত:সত্ত্বা।

তিনি বলেন, ‘আমার ছেলের ঔরসে আমি গর্ভবতী হয়েছি। আমরা শীঘ্রই বিয়ে করবো।’এদিকে ২৩ বছর বয়সী ছেলে দীপক বলেন, ‘আমার মা আমাকে কষ্ট করে মানুষ করেছেন। সুতরাং আমার মাকে সুখী করা আমার দায়িত্ব।’

দীপক স্বীকার করেন, তার মায়ের সঙ্গে তিনি প্রেম করছেন। তারা শীঘ্রই বিয়ে করবেন। তারা দুজনেই এই সম্পর্কে খুব সুখী এবং তাদের এই সম্পর্কের মধ্যে কোনো পাপ নেই। অন্যদিকে, শুধু ভারতই নয়, এই ঘটনার সাক্ষী থেকেছে ফ্রান্সও।অবিশ্বাস্য! মা’কে বিয়ে করলো ছেলে! অবিশ্বাস্য এই ঘটনার জন্ম দিয়েছেন এরিক হোল্ডার (৩২) ও এলিজাবেথ লরেঞ্জ (৫৩)। ফ্রান্সের এই জুটি পরস্পর সম্পর্কে ‘ছেলে’ ও ‘মা’ হলেও ঐতিহাসিক এক বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন।

কিন্তু তাদের এই বিয়ে খুব সহজ ছিল না। ফ্রান্সের প্রচলিত আইনে বাবার স্ত্রীকে নিজেরই ছেলে বিয়ে করতে পারেন না।সুতরাং আইনগতভাবে এরিক হোল্ডার ও এলিজাবেথ লরেঞ্জের মিলিত হওয়া অবৈধ ও আইনসিদ্ধ ছিল না।তবে তাতে দমে যায়নি প্রণয়-পাগল জুটিটি। বরং দীর্ঘদিন আদালতে মামলা লড়ে আদায় করেছে বিয়ের সম্মতি।শুধু কী তাই? ঐতিহাসিক সেই বিয়েতে হাজির করেছিল মিসেস এলিজাবেথ লরেঞ্জের পিতা জেসন এলিজাবেথ।

যিনি বিয়ের পর নবদম্পতিকে আর্শীবাদও করেনএদিকে নতুন ইতিহাস সৃষ্টির পর বিকৃত মানসিকতা পোষণকারী মিস এলিজাবেথ বলেন, ‘আমি জানি আমাদের এই দৃষ্টান্ত ভবিষ্যতে অন্যদেরকে সাহায্য করবে। কেননা এরকম আরও অনেকেই আছেন।’তবে, শুধু মা-ছেলেই নয়, ভারতে বাবা এবং মেয়ের মধ‌্যেও এই একই সম্পর্ক দেখা গিয়েছে। আমাদের পৃথিবীতে কতো আজব ঘটনাই ঘটছে।

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
অপরাধ বিভাগের আলোচিত
বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের অধিনায়ক ও সংসদ সদস্য মাশরাফি বিন মর্তুজাকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে কটূক্তি করেছিলেন নওগাঁ জেলা হাসপাতালের ইনডোর মেডিকেল অফিসার ডা. মৌমিতা জলিল জুলি। এবার সেই জুলিকে শোকজ নোটিশ পাঠিয়েছে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়। সোমবার মন্ত্রণালয়ের উপ সচিব শামীমা নাসরিন স্বাক্ষরিত শোকজ নোটিশে মাশরাফিকে নিয়ে তার ফেসবুক পোস্টের কথা তুলে ধরে বলা হয়, আপনার আচরণ একজন সরকারি কর্মকর্তার জন্য মানানসই নয় এবং অশোভনীয় আচরণ। এবং সরকারি কর্মচারী আচরণ বিধিমালার পরিপন্থী যা সরকারি কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপিল) বিধিমালা, ২০১৮ এর ৩ (খ) মোতাবেক ‘অসদাচরণ’ হিসেবে গণ্য। এতে আরও বলা হয়, ‘এক্ষণে, সেহেতু সরকারি কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপিল) বিধিমালা, ২০১৮ এর ৩ (খ) মোতাবেক অসদাচরণের দায়ে অভিযুক্ত করে কেন উক্ত বিধিমালার অধীনে যথোপযুক্ত দণ্ড প্রদান করা হবে না তা এ নোটিশ প্রাপ্তির তিন কার্যদিবসের মধ্যে কারণ দর্শানোর জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হল।’ উল্লেখ্য, সম্প্রতি নড়াইল সদর হাসপাতালে হঠাৎ পরিদর্শনে গিয়েছিলেন সংসদ সদস্য মাশরাফি। সেখানে তিনি কর্তব্যরত ডাক্তারদের কর্মস্থলে অনুপস্থিত পেলে একজন ডাক্তারের সঙ্গে মোবাইল ফোনে অনুপস্থিতির কারণ জানতে চেয়ে কথা বলেন। কথোপকথনের সে দৃশ্য পরবর্তীতে ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে অনেকে যেমন মাশরাফিকে বাহবা দেন ঠিক তেমনি কেউ কেউ বিশেষ করে ডাক্তার সমাজ মাশরাফির কথার ধরণ নিয়ে প্রশ্ন তুলে তার সমালোচনা করেন। সেই সমালোচকদের একজন ডা. মৌমিতা জলিল। মাশরাফিকে নিয়ে অকথ্য ভাষা ব্যবহার করে তিনিও ফেসবুকে পোস্ট দেন, যা পরবর্তীতে ভাইরাল হলে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়েরও নজরে আসে।
ওপরে