১৬ই অক্টোবর, ২০১৯ ইং ১লা কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
ঝালকাঠিতে ৫ম শ্রেনীর ছাত্রীকে যৌ’ন নিপড়ন, দিনে থানায়... স্ত্রীর মর্যাদা না পেয়ে স্বামীর বাড়িতে কাবিননামা... জয়নগর ইউনিয়ন আওয়ামিলীগের ত্রি-বার্ষিক কাউন্সিলের... নওগাঁয় হাসপাতাল থেকে চুরি যাওয়া শিশু ১১দিন পর উ’দ্ধার আবরার হ’ত্যার ন্যয়বিচারের দাবীতে চাঁদপুরে মানববন্ধন...

মির্জাগঞ্জে জনপ্রিয়তার শীর্ষে স্বতন্ত্র প্রার্থী খান মোঃ আবু বকর সিদ্দিকী

 হাসান আলী, পটুয়াখালী: সমকালনিউজ২৪

পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে আছেন বর্তমান উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান খান মোঃ আবু বকর সিদিদকী। ক্লিন ইমেজ, নিজস্ব ভোট ব্যাংক, স্বচ্ছ ভাবে পরিষদ পরিচালনা ও সাধারন ভোটাদের মন জয় করাসহ নানা কারনে আলোচনায় শীর্ষে রয়েছেন তিনি এই বলে মনে করছেন উপজেলার সাধারন জনগণ ।

আগামী ৩১ মার্চ অনুষ্ঠিত হবে মির্জাগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচন। তাই ভোটারদের ভালোবাসা নিয়ে পটুয়াখালীর মিজাগঞ্জে দ্বিতীয় মেয়াদেও উপজেলা চেয়ারম্যান হিসেবে মানুষের পাশে থাকতে চান তিনি। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বেশ সরগরম মির্জাগঞ্জ উপজেলা। চেয়ারম্যান পদে ৪ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৬ জন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৫ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দীতা করছেন এবারের নির্বাচনে। এদেরমধ্যে উপজেলা আওয়ামীলীগের আহবায়ক ও সাবেক উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান গাজী আতাহার উদ্দিন আহম্মদ নৌকা পেলেও বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে রয়েছেন বর্তমান উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও পটুয়াখালী জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য খান মোঃ আবু বকর সিদ্দিকী। বিএনপি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে না আসলেও ভোটের মাঠে রয়েছেন মির্জাগঞ্জের সাবেক উপজেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক ও দেউলী সুবিদখালী ইউনিয়নের সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ মোবারক আলী মুন্সী এবং ন্যাশনাল পিপলস পার্টি থেকে মোঃ আঃ রাজ্জাক। তবে ভোটের মাঠে মূল লড়াই হবে গাজী আতাহার উদ্দিন আহম্মদ ও খান মোঃ আবু বকর সিদ্দিকীর মধ্যে। উপজেলার ৬টি ইউনিয়নে ৯১ হাজার ১৬১জন ভোটার রয়েছে। তার মধ্যে পুরুষ ভোটার রয়েছে ৪৫ হাজার ৬৭৪ জন ভোটার এবং মহিলা ভোটার রয়েছেন ৪৫ হাজার ৪৮৭জন।

উপজেলার সাধারন ভোটারদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, সরকারি সহযোগীতায় সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনি কার্যক্রম বাস্তবায়নসহ গরীব অসহায় মানুষের কল্যানে তিনি নিজস্ব অর্থায়নে প্রতিনিয়ত নিজেকে নিয়োজিত রেখেছেন বর্তমান উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সাহেব। ২০১৭ সালের স্থানীয় সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন মূলক কর্মকান্ড ও উপজেলা পরিষদের মাধ্যমে জনগনকে সেবা প্রদানসহ বিভিন্ন কার্যক্রমে সফলতার সঙ্গে পরিচালনায় সমাজ সেবায় বিশেষ অবদানের জন্য বরিশাল বিভাগের শ্রেষ্ঠ উপজেলা চেয়ারম্যান হিসেবে সম্মামনা দেওয়া হয় মির্জাগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান খান মোঃ আবু বকর সিদ্দিকীকে। তিনি ‘বঙ্গবন্ধুর’ আর্দশের একজন কর্মী হয়ে সাধারন মানুষের সহযোগিতা করেছেন।

চেয়ারম্যান প্রার্থী ও বর্তমান উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান খান মোঃ আবু বকর সিদ্দিকী বলেন, গত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে সাধারন মানুষের ভালোবাসা নিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করে বিপুল ভোট জয়ী হয়েছি। গত পাঁচ বছরে চেয়ারম্যান হিসেবে মির্জাগঞ্জে ব্যাপক উন্নয়ন করতে সক্ষম হয়েছি। তাই উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে এবারও সাধারন মানুষের ভালোবাসায় আমি জয় হবো এটা আমার বিশ্বাস।

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
পটুয়াখালী বিভাগের সর্বশেষ
পটুয়াখালী বিভাগের আলোচিত
ওপরে