৫ই এপ্রিল, ২০২০ ইং ২২শে চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
বরগুনা হাসপাতালের ড্রাম থেকে জীবিত নবজাতক শিশুটির... বগুড়ায় খোলা বাজারে চাল-আটা বিক্রি কার্যক্রম শুরু নবীগঞ্জে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান অব্যাহত বাগেরহাটে খোলা বাজারে ১০ টাকা দরে চাল বিক্রি শুরু আ.লীগের দুঃসময়ের কান্ডারী পাথরঘাটার এড.গোলাম কবির আর

মির্জাপুরে সিন্ডিকেট চক্রের কারসাজিতে হু-হু করে বাড়ছে পেঁয়াজের দাম অভিযানে পাঁচ ব্যবসায়ীকে জ’রিমানা

  সমকালনিউজ২৪

মোহাম্মদ মোজাম্মেল হক, টাঙ্গাইল ::

একটি সিন্ডিকেট চক্রের কারসাজি এবং পেঁয়াজ মজুদ রেখে সংসকট সৃষ্টি করে দাম বৃদ্ধির কারনে ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট অ’ভিযান চালিয়ে পাঁচ পেঁয়াজ ব্যবসায়ীকে জ’রিমানা করেছেন। নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট এর অ’ভিযানের খবর পেয়ে বেশ কয়েকজন সিন্ডিকেট চক্র পেঁয়াজের গোডাউন তালা দিয়ে পালিয়ে গেছে বলে অ’ভিযোগ পাওয়া গেছে। আজ বুধবার টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে কয়েকটি বাজারে ভ্রাম্যমান আদালত এ অ’ভিযান পরিচালনা করেন বলে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আবদুল মালেক জানিয়েছেন।

অনুসন্ধানে জানা গেছে, একটি সিন্ডিকেট চক্র নানা অযুহাতে প্রায় এক মাস ধরে মির্জাপুর উপজেলার বিভিন্ন হাট-বাজারে পেঁয়াজ সংকট সৃষ্টি করে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছেন। উপজেলা সদরের মির্জাপুর কাঁচা বাজার, মির্জাপুর বাবু বাজার, কুতুবাজার, দেওহাটা, পাকুল্যা, জামুর্কি, মহেড়া, ফতেপুর, বানাইল, আনাইতারা, ওয়ার্শি, ভাদগ্রাম, ভাওড়া, বহুরিয়া, গোড়াই, লতিফপুর, আজগানা, তরফপুর ও বাঁশতৈল ইউনিয়নের বিভিন্ন হাট-বাজারে ঐ সিন্ডিকেট চক্র প্রতি কেজি পেঁয়াজ ১২০ টাকা থেকে ১৬০ টাকা দরে বিক্রি করছে। হাট-বাজারে ক্রেতারা পেঁয়াজ কিনতে এসে দাম বাড়ার কারন জানতে চাইলে সিন্ডিকেট চক্রের ঐ সদস্য ও ব্যবসায়ীরা নানা অযুহাতে ক্রেতাদের লাঞ্চিত করে আসছে বলেও একাধিক অভিযোগ রয়েছে। আজ বুধবার মির্জাপুর সদরের কাঁচা বাজার, দেওহাটা এবং জামুর্কি বাজারের সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে, প্রতি কেজি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ১৫৫ টাকা থেকে ১৬০ টাকা। নাম প্রকাশ না করার শর্তে খুচরা ব্যবসায়ী জানান, আড়ত ধেকে বেশী দামে পেঁয়াজ কেনার কারনে তাদের দাম বাড়াতে হয়েছে।

এ দিকে খোঁজ নিয়ে দেখা গেছে, দেওহাটা বাজারের আড়তদার শ্যামল বাকালী, চিত্ত বাকালী, শফি মিয়া, আরিফ হোসেন, স্বপন বাকালি, মির্জাপুর বাজারের লেবু মিয়া, মজনু এবং পাকুল্য ও জামুর্কি এলাকার (৭-৮) জন আড়তদার ব্যবসায়ী সিন্ডিকেট করে পেঁয়াজ মজুদ করে দাম বাড়িয়ে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছেন।

এ দিকে আজ বুধবার বিভিন্ন আড়তে পেঁয়াজ মজুদ রয়েছে এমন গোপন সংবাদ পেয়ে মির্জাপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) ও ভ্রাম্যমান আাদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. মইনুল হক, উপজেলার পাকুল্যা, জামুর্কি ও দেওহাটা পেঁয়াজের আড়তে অ’ভিযান চালিয়ে ব্যবসায়ীদের নানা অনিয়ম-দুর্নীতি ও ঘটনার সত্যতা পেয়ে পাঁচজন ব্যবসায়ীকে আ’টক করে ৯০ হাজার টাকা জ’রিমানা আদায় করেছেন।

এ সময় নির্বাহূী ম্যাজিষ্ট্রেট এর অ’ভিযানের খবর পেয়ে ৭-৮ জন ব্যবসায়ী দোকান তালা দিয়ে পালিয়ে যায়। পেঁয়াজের বাজারসহ প্রতিটি জিনিসের দাম সঠিক ভাবে ক্রয়-বিক্রয় হচ্ছে কি না তা নিয়মিত মনিটরিং ব্যবস্থা জোরদার করার জন্য সাধারন মানুষ প্রশাসনের নিকট জোর দাবী জানিয়েছেন।

এ ব্যাপারে ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. মইনুল হক বলেন, পেঁয়াজের বাজার স্থিতিশীল রাখতে বিভিন্ন হাট-বাজারে অভিযান শুরু হয়েছে। আজ বুধবার অভিযান চালিয়ে পাঁজ ব্যবসায়ী জরিমানা করা হয়েছে। তাদের এ অভিযান চলমান থাকবে বলে তিনি জানিয়েছেন।

 

 

‘বিদ্রঃ সমকালনিউজ২৪.কম একটি স্বাধীন অনলাইন পত্রিকা। সমকালনিউজ২৪.কম এর সাথে দৈনিক সমকাল এর কোন সম্পর্ক নেই।’

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
টাঙ্গাইল বিভাগের সর্বশেষ
টাঙ্গাইল বিভাগের আলোচিত
ওপরে