১৫ই অক্টোবর, ২০১৯ ইং ৩০শে আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
ড. ইউনূসের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা হাইকোর্টে... ফেনীর ভূইয়া ট্রান্সপোর্ট যেন মোহাম্মদ আলীর ” আলাদীনের... গো’লাগু’লিতে আসামি নি’হত বগুড়ায় টাকাসহ চার ছিনতাইকারী গ্রে’ফতার ফ্লোরিডা ইন্টারন্যাশনাল ট্রেড এন্ড কালচারাল এক্সপো...

মিশুর খুনির ফাঁসির দাবীতে মানববন্ধন; আদালতে ঘাতক সুজনের স্বীকারোক্তি

 কাজী নজরুল ইসলাম,চাঁদপুর, সমকালনিউজ২৪

চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে কুরুচীপূর্ণ প্রেমে ও কুপ্রস্তাবে ব্যর্থ হয়ে বখাটে সুজন খান কর্তৃক গৃহবধ‚ জাহেদা আক্তার মিশুকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় পুলিশের হাতে আটক ঘাতক সুজন খানসহ তার সহযোগীদের ফাঁসির দাবীতে মানববন্ধন করেছে স্থানীয় এলাকাবাসী।

বুধবার ৩১ জুলাই দুপুরে উপজেলার রূপসা দক্ষিণ ইউনিয়নের গৃদকালিন্দিয়া বাজারে অনুষ্ঠিত হয়। এ মানববন্ধনে গৃদকালিন্দিয়া হাজেরা হাসমত বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের কয়েকশ’ শিক্ষার্থী, বাজার ব্যবসায়ী ও স্থানীয় এলাকাবাসী অংশগ্রহণ করে।

এ সময় বক্তব্য রাখেন গৃদকালন্দিয়া হাজেরা হাসমত বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের অধ্যক্ষ ড. মোহাম্মদ মোহেবুল্লাহ খাঁন, উপাধ্যক্ষ মুনীর চৌধুরী, সহকারী অধ্যাপক দেলোয়ার হোসেন, শরীফ হোসেন, বাজার ব্যবসায়ীদের পক্ষে কামাল হোসেন, বাবলু, শাহেদ হোসেন, মহিব, মিশুর পরিবারের পক্ষে জহিরুল ইসলাম ও ইয়াদ হোসেন।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, বখাটে কর্তৃক গৃহবধুকে নির্মমভাবে কুপিয়ে হত্যার ঘটনার দ্রুত বিচার শেষে রায় কার্যকর হলে অপরাধীরা নতুন করে কোনো অপরাধ করতে ভয় পাবে। একই সাথে সারাদেশে শিশু ও নারী নির্যাতন দমনে সহায়ক হবে। তাই সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে দ্রুত এ হত্যাকান্ডের বিচার শুরু করে রায় কার্যকরের দাবী জানান বক্তারা।

এ সময় তারা ফরিদগঞ্জ থানা পুলিশ হত্যাকান্ডের ৩৬ ঘণ্টার মধ্যে ঘাতকসহ ৩ জনকে আটক করায় তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

এদিকে বুধবার দুপুরে চাঁদপুর চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ কামাল হোসেনের আদালতে ঘাতক সুজন খান ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে বলে ফরিদগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আব্দুর রকিব নিশ্চিত করেন।

উল্লেখ্য ২৯ জুলাই সোমবার ভোরবেলা উপজেলার রূপসা দক্ষিণ ইউনিয়নের চরমুঘুয়া গ্রামে ঘরে ঢুকে সুজন খান গৃহবধু জাহেদা আক্তার মিশুকে কুপিয়ে হত্যা করে। নিহত জাহেদা আক্তার মিশুর মা ছালেহা বেগম বাদী হয়ে ঘাতক সুজন খানসহ পাঁচজনকে অভিযুক্ত করে ওই রাতেই ফরিদগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করেন।

পুলিশ ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে ঘাতক সুজনের ভাই সোয়েব খান (২৩) ও তার বন্ধু আমজাদ হোসেনকে (২৪) সোমবার রাতেই আটক করে এবং হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত ধারালো অস্ত্র উদ্ধার করে। পরদিন মঙ্গলবার বিকেলে হত্যাকান্ডের ৩৬ ঘণ্টা পর রূপসা উত্তর ইউনিয়নের নারকেল গ্রামের একটি বাগান থেকে ঘাতক সুজন খানকে আটক করে। সুজন পুলিশের কাছে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে হত্যার কথা স্বীকার করে।

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
চাঁদপুর বিভাগের সর্বশেষ
চাঁদপুর বিভাগের আলোচিত
ওপরে