১৫ই অক্টোবর, ২০১৯ ইং ৩০শে আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
বরগুনায় উপকূলী অঞ্চলে স্বাস্থ্যসেবা বিষয়ক সংলাপ... ড. ইউনূসের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা হাইকোর্টে... ফেনীর ভূইয়া ট্রান্সপোর্ট যেন মোহাম্মদ আলীর ” আলাদীনের... গো’লাগু’লিতে আসামি নি’হত বগুড়ায় টাকাসহ চার ছিনতাইকারী গ্রে’ফতার

যেসব কারণে বাদ পড়লেন অা.লীগের হেভিওয়েট পাঁচ নেতা

  সমকালনিউজ২৪

অনলাইন ডেস্ক : তরুণদের প্রতি আস্থা, নতুনদের জায়গা করে দেওয়া ও জনসমর্থনকে মাথায় রেখে এবারের নির্বাচনে মনোয়নয়ন ঘোষণা করেছে আ.লীগ। এ কারণেএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন দৌড়ে বাদ পড়েছেন আওয়ামী লীগের বেশ কয়েকজন হেভিওয়েট নেতা। বাদ পড়াদের মধ্যে বিশেষভাবে উঠে এসেছে পাঁচ নেতার নাম। তারা হলেন-গাজীপুরের আওয়ামী লীগ নেতা ডাকসুর সাবেক ভিপি মুক্তিযোদ্ধা আখতারউজ্জামান, আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবীর নানক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. আব্দুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম এবং দলটির অপর সাংগঠনিক সম্পাদক বি এম মোজাম্মেল হক।

আ.লীগের হেভিওয়েট নেতাদের তালিকায় বেশ নামঢাক রয়েছে জাহাঙ্গীর কবীর নানকের। তাঁর পছন্দের আসন ছিল ঢাকা-১৩। এ আসনে মনোনয়ন পেয়েছেন ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাদেক খান।

দলীয় মনোনয়ন বঞ্চিত হয়েছেন ফরিদপুর-১ আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য ও দলটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. আব্দুর রহমান। এ আসনে মনোনয়ন পেয়েছেন রূপালী ব্যাংকের চেয়ারম্যান ও সাবেক সিনিয়র সচিব মঞ্জুর হোসেন বুলবুল।

মাদারীপুর-৩ আসনে দলীয় মনোনয়ন পাননি আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম। এ আসনে দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন দলটির দফতর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ।

গাজীপুর-৫ আসন থেকে (সংসদীয় আসন ১৯৮) আ.লীগের মনোনয়ন ফরম জমা দিয়েছিলেন আ. লীগের কেন্দ্রীয় নেতা, সাবেক এমপি, ডাকসুর সাবেক ভিপি মুক্তিযোদ্ধা আখতারউজ্জামান। তবে হেভিওয়েট এ প্রার্থী মনোনয়ন পাননি। এ আসনে মনোনয়ন পেয়েছেন আ.লীগ নেত্রী মেহের আফরোজ চুমকি।

শরীয়তপুর-১ আসনে দলীয় মনোনয়ন পাননি আওয়ামী লীগের অপর সাংগঠনিক সম্পাদক বি এম মোজাম্মেল হক। এ আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন দলটির কেন্দ্রীয় কাযনির্বাহী কমিটির সদস্য মো. ইকবাল হোসেন অপু।

রোববার সকাল থেকে ঢাকার বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে মনোনয়নের চিঠি বিতরণ শুরু হয়। দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের জানান, ৩০০ আসনের মধ্যে এদিন ‘২৩০টির মতো’ আসনে আওয়ামী লীগের মনোনীতদের চিঠি দেয়া হচ্ছে। আনুষ্ঠানিকভাবে মনোনীতদের নাম ঘোষণা করা হবে সোমবার।

নবম সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ১৪ দল ও জাতীয় পার্টি মহাজোট করে নির্বাচনে অংশ নিয়েছিল। ওই নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ছিল ২৬৪ জন, জাতীয় পার্টি প্রার্থী দিয়েছিল ৪৯টি আসনে। আওয়ামী লীগ জিতেছিল ২৩০টি আসনে, জাতীয় পার্টি ২৭টিতে।

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
ওপরে