২১শে সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং ৬ই আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
চাঁদপুরে ইলিশের আমদানী বাড়লেও দাম না কমায় হতাশ ক্রেতারা আত্রাইয়ে পানিতে ডুবে মাদ্রাসা ছাত্রীর মৃ’ত্যু; ১৯... পাইকগাছায় ভুয়া ঠিকানা দিয়ে বিয়ে করে দুই লক্ষ টাকা... বাল্যবিবাহ-ই’ভটিজিং-স’ন্ত্রাস ও মা’দক প্রতিরোধে... বরগুনায় ৬ষ্ট শ্রেনীর মাদরাসা ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টার ...

রাকসু আন্দোলন মঞ্চকে আলোচনা সভা করতে দেয়নি প্রশাসন

 জান্নাতুল ফেরদৌস / রবি সমকালনিউজ২৪

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) ‘কেমন বিশ্ববিদ্যালয় চাই’ শীর্ষক শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের ভাবনা নিয়ে রাকসু আন্দোলন মঞ্চ আয়োজন করেছিল আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। সোমবার বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ স্মৃতি সংগ্রহশালায় এই আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের অনুমতি না মেলায় আলোচনা সভা করতে পারেনি রাকসু আন্দোলন মঞ্চ।

বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের এমন কর্মকা-ের প্রতিবাদ জানিয়ে সোমবার (১৮ মার্চ) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের পেছনে আমতলায় সংবাদ সম্মেলন করেন রাকসু আন্দোলন মঞ্চ।

সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনটির সমন্বয়ক আব্দুল মজিদ অন্তর বলেন, ‘মুক্তমঞ্চে আলোচনা সভা করার জন্য গত ৩ মার্চ বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ সুখরঞ্জন সমাদ্দার ছাত্র-শিক্ষক সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের (টিএসসিসি) পরিচালক বরাবর একটি লিখিত আবেদন জানিয়েছিলাম। পরে ‘অনুমতি দেওয়া হলো’ এ মর্মে একটি চিঠি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অফিসে পাঠান টিএসসিসি পরিচালক।

পরে আমরা অনুষ্ঠানের সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করলে টিএসসিসির এক কর্মচারি জানায় আমাদের অনুমতি বাতিল করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। তবে কেন বাতিল করা হয়েছে জানতে চাইলে ওই কর্মচারি বলেন ‘ভিসি স্যারের নিষেধ আছে, আপনারা প্রক্টর স্যারের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘পরবর্তিতে এ বিষয়ে কথা বলতে প্রক্টর স্যারের সঙ্গে দেখা করতে চাইলে প্রক্টর স্যার দেখা করেতে অস্বীকৃতি জানান। এরপর মুক্তমঞ্চে কর্মসূচি বাতিল করে বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যকোন জায়গায় কর্মসূচি পালনের অনুমতি চেয়ে প্রক্টর বরাবর আবার আবেদন জমা দিতে গেলে আবেদন জমা নেওয়া হবে না বলে প্রক্টর অফিস থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়। এরপর বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র উপদেষ্টাকে বিষয়টি জানালে ‘ভিসি স্যারের নিষেধ’ আছে বলে তিনিও আমাদের জানান।’

এ বিষয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে অন্তর বলেন, ‘আমাদের আয়োজন ছিল ‘কেমন বিশ্ববিদ্যালয় চাই’ শীর্ষক শিক্ষক শিক্ষার্থীদের ভাবনা। যেখানে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বনামধন্য শিক্ষকগণ উপস্থিত থাকবেন। তা জেনেও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ন্যুনতম সৌজন্যবোধ ও সহযোগিতা না করে উল্টো স্বৈরাচারী ও অগণতান্ত্রিক পন্থা অবলম্বন করে আমাদের কর্মসূচি স্থগিত করতে বাধ্য করে। আমরা মনে করি এর মধ্য দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন চরম স্বৈরাচারী নীতি অবলম্বন করেছে।’

জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক লুৎফর রহমান ও ছাত্র উপদেষ্টা লায়লা আরজুমান বানু বলেন আমাদের অনুমতি দেওয়ার অধিকার নেই। এসব বিষয়ে টিএসসিসির পরিচালক দেখভাল করেন।’

টিএসসিসির ভারপ্রাপ্ত পরিচালক হাসিবুল আলম প্রধান বলেন, ‘বর্তমানে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের সঙ্গে বিভিন্ন ছাত্র সংগঠনের রাকসু নিয়ে সংলাপ চলছে। তাই প্রশাসন আপাতত রাকসু সংক্রান্ত অন্য কোনো কর্মসূচিতে অনুমতি দিতে চাচ্ছে না। তবে আলোচনা সভার অনুমতি দিয়ে পরে বাতিল নয় বরং অনুমতি দেওয়াই হয়নি।’

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন রাকসু আন্দোলন মঞ্চের নির্বাহী সমন্বয়ক শরীফ, ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি সাকিলা খাতুন, ছাত্র ফেডারেশনের রাজনৈতিক শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক মুহাব্বদ হোসেন মিলন প্রমুখ।

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
রাজশাহী বিভাগের সর্বশেষ
ওপরে