২৬শে মে, ২০১৯ ইং ১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
ফেসবুকের কাছে ১৯৫টি অ্যাকাউন্টের তথ্য চেয়েছে সরকার সদরঘাট জিম্মি ‘খলিফা বাহিনী’র হাতে কৃষকের ঘরে বিয়ের ১১ বছর পর এক সঙ্গে চার সন্তান বাংলাদেশীদের পদচারণায় জমজমাট কলকাতার ঈদ বাজার! স্বামী সন্তানের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের...

রাজশাহীতে নির্বাচন বাতিলের দাবিতে ওয়ার্কার্স পার্টির সংবাদ সম্মেলন

  সমকাল নিউজ ২৪

রাজশাহী থেকে নাজিম হাসান:
রাজশহীর তানোরে প্রথম ধাপের উপজেলা নির্বাচনে ভোট কারচুপির অভিযোগ এনে নির্বাচন বাতিলের জন্য সংবাদ সম্মেলন করেছে ওয়ার্কার্স পার্টি রাজশাহী জেলা ও মহানগর নেতৃবৃন্দ। গতকাল সোমবার বেলা ১২টার সময় ওয়ার্কার্স পার্টির দলীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন তারা। এসময় সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ওয়ার্কার্স পার্টির জেলা কমিটির ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক আশরাফুল হক তোতা। তিনি বলেন,প্রথম ধাপের উপজেলা নির্বাচনে তানোরে চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান ওয়ার্কার্স পার্টি থেকে নির্বাচন করা হয়েছে। এই নির্বাচনে হাতুড়ি প্রতিক নিয়ে শরিফুল ইসলাম চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছিলেন। তিনি প্রথম থেকেই ভোটে এগিয়ে থাকেন। আমাদের প্রার্থী শরিফুল ইসলাম বড় ধরনের ভোটে এগিয়ে ছিলেন। প্রতিপক্ষের পরাজয় নিশ্চিত হলে তারা কলমা ইউনিয়নের ভোটের কারচুপির মাধ্যমে হারানো হয়েছে। তানোরে সুষ্ঠু নির্বাচন হলেও শেষ মুহুর্তে ফলাফলের সময় নৌকা প্রতিকের কর্মিরা নির্দিষ্ট ভোটের মাপযোগ ও ফলাফল ঘোষণা দিয়ে প্রিজাইডিং অফিসারের কাছে পাঠানো হয়। প্রিজাইডিং অফিসারদের জিম্মি করে হাতুড়ি প্রতিকের এজেন্টদের কেন্দ্র থেকে বের করে দিয়ে অবরুদ্ধ করে রাখা হয়। এছাড়া নৌকা প্রতিকের প্রার্থী লুৎফর হায়দার ময়না নিজে বলেন আমি কলমা ইউনিয়নের সেন্টারগুলোতে কত ভোট পেলে পাস করবো। সে হিসেব করে ফলাফল তৈরি করে সহকারি প্রিজাইডিং অফিসারের কাছে নিয়ে গিয়ে ৩৫৪ ভোটের ব্যবধান দেখিয়ে পরাজিত করানো হয়। এছাড়াও ভোটে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ভোট কারচুপির সাথে জড়িত ছিলো অভিযোগ করে তিনি বলেন,নির্বাচনে নিয়োজিত আনসার সদস্যদের নৌকাতে সিল মারার একটি ভিডিও দেখান তিনি। তোতা বলেন, ভোটের পরপর তানোরে হাতুড়ি প্রতিকের পক্ষের কর্মিদের ওপর হামলা,ঘরবাড়ি ভাঙচুর মাছ লুটসহ নানা নির্যাতনের শিকার হচ্ছে। স্থানীয় আদিবাসী ও সংখ্যালঘু মানুষদের ওপর অমানবিক নির্যাতন চালাচ্ছে নৌকা প্রতীকের সমর্থকরা। প্রশাসন এবিষয়ে কোন পদক্ষেপ নিচ্ছে না বলে অভিযোগ করেন তিনি। একই সাথে কারচুপি ভোট বাতিল করে আবার পূর্ণাঙ্গ ভোটের দাবি জানানো হয়। দাবি না মানলে বৃহত্তর আন্দোলের হুশিয়ারি দেয় ওয়ার্কার্স পার্টির নেতৃবৃন্দরা। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন,বাংলাদেশ ওয়ার্কাস পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও রাজশাহী মহানগরের সভাপতি লিয়াকত আলী লিকু, মহানগরের সাধারণ সম্পাদক দেবাশিষ প্রামানিক দেবু, নবনর্বাচিত ওয়ার্কার্স পার্টির উপজেলা ভাইস চেয়ারমাম্যান আবু বাক্কার সিদ্দিকসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ প্রমুখ।#
দুর্গাপুরে বিদ্রোহী প্রার্থীর সমর্থকদের বাড়িতে হামলা ও ভাঙ্গচুর
রাজশাহী থেকে নাজিম হাসান
রাজশাহীর দুর্গাপুরে প্রথম ধাপের উপজেলা নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থীর সমর্থকদের বাড়িতে হামলা ও ভাঙ্গচুর করা হয়েছে। গতকাল সোমবার সকালে উপজেলার যুগিশোপালশা ও নামোদর খালী এলাকায় এ ভাঙ্গচুরের ঘটনা ঘটে।
বিষয়টি নিশ্চিত করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা লিটন সরকার জানান, নির্বাচনের পরে সাধারণত এই রকম বিচ্ছিন্ন ঘটনা ঘটে থাকতে পারে। তবে পরিস্থিতি প্রশাসনের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। এলাকাবাসি সূত্রে জানাগেছে,দুর্গাপুর উপজেলায় ঘোড়া প্রতিক নিয়ে নির্বাচন করেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আব্দুল মজিদ সরকার। তিনি ঘোড়া প্রতীক নিয়ে ভোট পেয়েছেন ২৮ হাজার ৫৪৯। আর তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি নৌকা প্রতীক নিয়ে নজরুল ইসলাম ভোট পেয়েছেন ৩৫ হাজার ৮০৬ ভোট। কিন্তু আব্দুল মজিদ সরকার ভোটে হেরে যাওয়ায় মূলত কারনে তার কর্মীদের উপর ও তাদের বাড়িঘরে হামলা চালানো হচ্ছে। এছাড়াও বিদ্রোহী প্রার্থীর সমর্থকদের বাড়ি ঘেরাও করে রাখা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়াগেছে। এদিকে,স্থানীয় প্রশাসন বলছেন,গতকাল সোমবার সকালে এই ধরনের একটি অভিযোগ আসে তাদের কাছে। তার প্রেক্ষিতে বর্তমানে উপজেলার নামোদর খালী এলাকায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা অবস্থান করছে। এছাড়া মাঠে পুলিশ, র‌্যাব ও বিজিবি কাজ করছে।উল্লেখ্য,গত শনিবার দুপুরে জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও বিদ্রোহী প্রার্থী আব্দুল মজিদ সরকারের সমর্থক দুর্গাপুর পৌরসভার মেয়র তোফাজ্জল হোসেনসহ ১২ নেতাকর্মীকে আটকের পর পাঁচদিনের কারাদন্ড দেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।#

Print Friendly, PDF & Email

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
রাজশাহী বিভাগ বিভাগের সর্বশেষ
ওপরে