১৭ই অক্টোবর, ২০১৯ ইং ২রা কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
আমতলীতে ভয়াবহ অগ্নিকান্ড বসতঘর ভস্মিভূত, প্রায় ১০ লক্ষ... বাংলাদেশ সফরে যাচ্ছেন নিউইয়র্কের ৫ জন ষ্টেট সিনেটর ফরাশী ভাষায় নির্মিত তথ্য চিত্র প্রদর্শনী, উদীয়মান... রি’ফাত হ’ত্যা মা’মলার প্রধান আ’সামির জা’মিন... স্পেনে টাইগার মাদ্রিদের নতুন জার্সি উন্মোচন ও...

রাজশাহীতে রোজার শেষে জমে উঠেছে ঈদের বাজার

  সমকালনিউজ২৪

নাজিম হাসান,রাজশাহী প্রতিনিধি:
রোজার শেষের দিকে পবিত্র ঈদুল ফিতরকে কেন্দ্র করে গত কয়েকদিন থেকেই রাজশাহীতে কেনাকাটা শুরু হয়েছে। ধীরে ধীরে জমে উঠছে ঈদের বাজার। জেলার বিভিন্ন বাজারের মার্কেটের দিকে এখন মানুষের স্রোত। ফলে রোজার মাঝামাঝিতে এসে অনেকেই সেরে ফেলেছেন ঈদ পোশাকের কেনাকাটা। তবে বিক্রেতারা জানিয়েছেন,মানুষের ভিড় বেশি হলেও বিক্রি কম হচ্ছে। রোজার শেষের দিকে কেনাকাটা জমে ওঠার কথা জানিয়েছেন তারা। রাজশাহীর আরডিএ মার্কেটে ক্রেতাদের বেশ ভিড় দেখা গেলেও নিউমার্কেটসহ অন্য বিপনীবিতান গুলোতে তেমন ভিড় দেখা যায়নি। গতকাল সোমবার সকালে আরডিএ মার্কেটে গিয়ে দেখা যায়,প্রচুর মানুষ অনেকেই এসেছেন পরিবার নিয়ে ঈদের কেনাকাটা করতে। অনেকে বন্ধুদের সঙ্গে ঈদের কেনাকাটা সারছেন। পছন্দের পোশাকটি খুঁজে পেতে তারা এক দোকান থেকে অন্য দোকানে ছুটছেন। বাবা-মায়ের হাত ধরে পছন্দের পোশাক কিনতে ছোট ছোট ছেলে-মেয়েরা চলছে ছুটে। তবে সাধ ও সাধ্যের মধ্যে নারীরা বিভিন্ন জিনিস কেনার পাশাপাশি শাড়ির বাজারে ভিড় জমাচ্ছেন। গ্রামবাংলার নারীরা পছন্দের শাড়ি কিনতে ছুটছেন মহানগরীর নামিদামী মার্কেট ও শোরুমগুলোতে। জানাগেছে, রমজানের শুরুর দিকে মার্কেটগুলোতে ক্রেতাদের তেমন ভিড় দেখা না গেলেও ১০ রোজার পর থেকে ভিড় বেড়েছে। এখন দোকানিরা বেচাকেনায় ব্যস্ত সময় পার করছেন। ফুটপাথ থেকে শুরু করে নামীদামি শপিংমল আর মার্কেটগুলোতে ক্রেতাদের ভিড় ক্রমেই বাড়ছে। ঈদ উপলক্ষে নানা রকম পোশাকের পসরা সাজিয়েছেন ব্যবসায়ীরা। নতুন পোশাক উঠেছে সব দোকানেই। বিশেষ করে ইফতারের পর মার্কেটগুলোতে তরুণ-তরণীসহ সব বয়সি নারীদের ভিড় দেখা যাচ্ছে। সকাল থেকে শুরু বেচাবিক্রি চলছে গভীর রাত পর্যন্ত। শেষ দিকে বেচাকেনা জমে ওঠায় খুশি ব্যবসায়ীরা। তবে গতবারের চেয়ে এবার বেশি বিক্রি হবে। এখন পর্যন্ত যা বিক্রি হচ্ছে তার অধিকাংশ শিশু আইটেম। মেয়েদের শাড়ি, থ্রি পিসসহ অন্যান্য জামাগুলো বিক্রি হলেও তার হার খুবই কম। আর ছেলেদের আইটেমগুলো পুরোপুরি প্রদর্শনীতেই শোভা পাচ্ছে। বিক্রেতারা জানান,তরুণীদের চাহিদার প্রথম সারিতে আছে ভারতীয় পোশাক। এসব পোশাকের মধ্যে প্রাচী,মীরা,আয়েশা টাকিয়া,লেহেঙ্গা,রেডিমেড সেলাই ছাড়া,সেলাইসহ থ্রি-পিস অন্যতম। এসব পোশাকের দাম দেড় হাজার থেকে পাঁচহাজার টাকার মধ্যে। তবে বেচাবিক্রি গেল বছরের চেয়ে কম। অনলাইনে বেচাকেনা বৃদ্ধি পাওয়ায় এর প্রভাব পড়তে পারে। তবে যারা খুব রুচিশীল ও খুঁতখুঁতে স্বভাবের তারা সবসময় বাজারমুখী এবং তারা বাজারে আসছেন।#

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
রাজশাহী বিভাগ বিভাগের সর্বশেষ
ওপরে