৬ই জুন, ২০২০ ইং ২৩শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
চলতি মাসেই পোশাক শ্রমিক ছাঁটাই হবে : রুবানা হক বগুড়ায় সাংবাদিক অধ্যাপক মোজাম্মেল হকে’র মৃ’ত্যু সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রীর জন্য দোয়া চেয়েছেন মোহনপুর... ভারত সীমান্তে পারমাণবিক অ’স্ত্রের সমাবেশ চীনের! এমপি ফজলে করিমের ভাইয়ের মৃ’ত্যুতে তথ্যমন্ত্রীর শোক!

রাবিতে পুুনরায় পরীক্ষার দাবীতে শিক্ষার্থীদের অবস্থান কর্মসূচি

 জান্নাতুল ফেরদৌস / রাবি সমকালনিউজ২৪

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) মনোবিজ্ঞান বিভাগের মাস্টার্সের অনুষ্ঠিত একটি পরীক্ষা পুনরায় নেওয়ার দাবীতে আবারো অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে বিভাগের মাস্টার্সের শিক্ষার্থীরা। রোববার (১৭ মার্চ ) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন ভবনের সামনে তারা এ অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন।

পরীক্ষার নতুন সময়সূচি আজকের মধ্যে ঘোষণা না করা হলে আগামীকাল থেকে আমরণ অনশন করা হবে বলে কর্মসূচি থেকে হুশিয়ারি দেওয়া হয়।

আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করে বলেন, গত ১৪ মার্চ তাদের সহপাঠী ও পরীক্ষার্থী কানিজ ফাতেমার বাবা ইন্তেকাল করেন। এতে মানসিকভাবে ভেঙ্গে পড়েন ফাতেমা। তার বিষয়টি মানবিকভাবে বিবেচনা করে পরদিন শনিবার (১৬ মার্চ) অনুষ্ঠিতব্য ৫০২ নম্বর কোর্সের ‘কোগনেটিভ নিউরো সাইকোলজি’ পরীক্ষা না নেয়ার জন্য পরীক্ষা কমিটিকে মৌখিকভাবে অনুরোধ করেন শিক্ষার্থীরা। কিন্তু পরীক্ষা কমিটির কয়েকজন সদস্য পরীক্ষা না নেওয়ার পক্ষে মত দিলেও সভাপতি একক ইচ্ছায় পরীক্ষা কার্যক্রম চালিয়ে যান। যেখানে ৬৪জন শিক্ষার্থীদের মধ্যে ১২জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেন।

বিভাগ সূত্রে জানা যায়, শনিবার সাড়ে ১২ টা থেকে সাড়ে ৪ টা পর্যন্ত বিভাগের ৩৪১ও ৩৪২ নং কক্ষে পরীক্ষার আয়োজন করে কর্তৃপক্ষ। এতে মাস্টার্স এর ৬৪ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে মাত্র ১২ জন শিক্ষার্থী অংশ নেয়। আর বাকি শিক্ষার্থীরা পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেননি।

এদিকে এ ঘটনার প্রতিবাদ ও পুনরায় পরীক্ষা নেওয়ার দাবীতে রোববার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র উপদেষ্টা অধ্যাপক লায়লা আরজুমান বানুর কাছে উপাচার্য বরাবর স্মারকলিপি দেন।

জানতে চাইলে বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক মো. এনামুল হক সাংবাদিকদের বলেন, ‘১২ জন শিক্ষার্থী উপস্থিত হওয়ায় পরীক্ষা নেওয়া হয়েছিল। তবে উপাচার্য ও পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক ইতিবাচক হলে ফের পরীক্ষা নিতে কোনো অসুবিধা নেই।’

এ বিষয়ে ছাত্র উপদেষ্টা অধ্যাপক লায়লা আরজুমান বানু বলেন, ‘স্মারকলিপি পেয়েছি। এ ব্যাপারে প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলব।

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
রাজশাহী বিভাগের সর্বশেষ
ওপরে